Inqilab Logo

শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২, ১৭ আষাঢ় ১৪২৯, ০১ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

বকেয়া বেতন-ভাতা চাই রাজধানীতে সরকারী টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজ শিক্ষকদের মানববন্ধনে দাবি

প্রকাশের সময় : ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : বকেয়া বেতন-ভাতার দাবিতে কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের ৬৪টি সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজ শিক্ষকরা মানববন্ধন করেছে। গতকাল (রোববার) সকালে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে ৩ শতাধিক শিক্ষকের উপস্থিতে ‘এসডিপি সমাপ্ত উন্নয়ন প্রকল্প শিক্ষক ফোরাম’র ব্যানারে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধন থেকে বিগত ১৫ মাসের বকেয়া বেতন-ভাতা প্রদান, ২য় শিফট এর ভাতা প্রদান, সরকারি সকল সুযোগ-সুবিধা প্রদান ও চাকরি স্থায়ীকরণের দাবি জানানো হয়।
মানববন্ধনে শিক্ষক নেতারা বলেন, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের এসডিপি প্রকল্পের আওতায় প্রতিটি প্রতিষ্ঠিনে ৫ জন করে মোট ৩২০ জন (ইনস্ট্রাক্টর ও জুনিয়র ইনস্ট্রাক্টর) শিক্ষক নিয়োগ প্রদান করা হয়। প্রকল্পটি ৩০ জুন ২০১৫ সালে সমাপ্ত হওয়ার পরও কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের মৌখিক নির্দেশক্রমে শিক্ষকগণ বেতন-ভাতাদি ছাড়াই দীর্ঘ ১৫ মাস যাবৎ তাদের শিক্ষা কার্যক্রম চালিয়ে আসছেন। ইতিমধ্যে শিক্ষকদের সরকারি চাকরিতে আবেদনের বয়স প্রায় শেষ হয়ে আসছে। ফলে অনেক শিক্ষক আশঙ্কা ও হতাশার মাঝে দিন অতিবাহিত করছেন। টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজসমূহে এসএসসি (ভোকঃ) ও এইচএসসি (ভোকঃ) এর আওতায় ১ম ও ২য় শিফটের শ্রেণি কার্যক্রমে শিক্ষকগণ নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছে। ফলে ২০১৫-২০১৬ সালের ফলাফলে দারুন সাফল্য অর্জন করা সম্ভব হয়েছে। কারিগরি শিক্ষা ক্ষেত্রে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দিক-নির্দেশনার আলোকে ২০২০ সালের মধ্যে কারিগরি শিক্ষার হার ২০ শতাংশে উন্নীত করার লক্ষ্যে ইতিমধ্যে ৬৪টি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজে ডিপ্লোমা-ইন-ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্স চালু করা হলেও টিএসসিসমূহের শিক্ষক সংকট নিরসনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি। এসএসসি ও এইচএসসি (ভোকঃ) কোর্সসহ ডিপ্লোমা-ইন-ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্সসমূহের যথাযথ বাস্তবায়নে উক্ত শিক্ষকবৃন্দের প্রয়োজন রয়েছে। গত ২০ জুলাই অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগের ও শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সমন্বিত সভায় প্রকল্পে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগকৃত শিক্ষকদের বেতন-ভাতা প্রদানের উপায় খুঁজে বের করার জন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে নির্দেশ প্রদান করা হয়। কিন্তু অর্থ মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা উপেক্ষা করে কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক নতুন নিয়োগ প্রদানের প্রস্তাব শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে দাখিল করেন।
টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজের প্রিন্সিপালেরা কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের নিকট শিক্ষকদের বেতন-ভাতাদি প্রাপ্তির আবেদন প্রেরণ করেন। এছাড়াও শিক্ষকগণ তাদের বেতন-ভাতাদি প্রাপ্তি ও চাকরি স্থায়ীকরণের লক্ষ্যে শিক্ষামন্ত্রী, শিক্ষাসচিব ও কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেন এবং শিক্ষকদের বেতন-ভাতাদি প্রদান ও চাকরি স্থায়ীকরণের জন্য সরকারের শীর্ষ স্থানীয় এমপি-মন্ত্রীগণ শিক্ষামন্ত্রী, শিক্ষা সচিব ও মহাপরিচালক বরাবর ডিও লেটার প্রদান করেন।
মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সভাপতি মোঃ সামসুদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক মোঃ রেদুয়ান চৌধুরী, ঢাকা বিভাগের সভাপতি মোঃ হুমায়ুন কবির, সিলেট সভাপতি মোঃ আবু তাহের, রংপুর সভাপতি মােঃ বদরুজ্জামান, খুলনা সভাপতি মোঃ হাসান, রাজশাহী সভাপতি মোঃ রাকিবুল হাসান, চট্টগ্রাম সভাপতি মোঃ রাসেল মিয়া, শাহীন আলম, সামসুল কবির প্রমুখ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বকেয়া বেতন-ভাতা চাই রাজধানীতে সরকারী টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজ শিক্ষকদের মানববন্ধনে দাবি
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ