Inqilab Logo

রোববার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২২ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

ইতিহাসে গেইল ‘দ্য বস’

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৪ জুলাই, ২০২১, ১২:০৪ এএম

অনেক দিন ধরে ক্রিস গেইলের ফর্ম নিয়ে প্রশ্ন ছিল। তা অবশ্য হওয়ারই কথা! বুড়িয়ে যাওয়া ব্যাটিং দানবের সর্বশেষ টি-টোয়েন্টি হাফসেঞ্চুরিটি যে ছিল ২০১৬ সালে! সেই গেইলই সেন্ট লুসিয়ায় দেখালেন বয়সটা তার কাছে এখনও সংখ্যা মাত্র! ৪১ বয়সী তারকার বিধ্বংসী এক ইনিংসে রীতিমত উড়ে গেছে অস্ট্রেলিয়া। গেইলের ব্যাটে গতপরশু তৃতীয় টি-টোয়েন্টিতে অজিদের ৬ উইকেটে হারিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এর ফলে দুই ম্যাচ হাতে রেখেই ৫ ম্যাচের সিরিজ নিশ্চিত করেছে স্বাগতিকরা।
এই বছরে ডাক পাওয়ার পর থেকে বড্ড ¤øান ছিলেন গেইল। ৯ ইনিংসে সংগ্রহটাও ছিল নামের সঙ্গে বেমানান-১০২। কিন্তু সেন্ট লুসিয়ায় সেই খরা কাটাতে এমনই এক ইনিংস খেললেন। তাতে ইতিহাস গড়ে টি-টোয়েন্টির প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে গড়েছেন অনন্য কীর্তি।
‘ক্রিকেটের বস’ ২০ ওভারের ক্রিকেটে তার শ্রেষ্ঠত্বের আরেকটা নমুনা এই ম্যাচে রেখেছেন। শুধু ম্যাচ জেতানো বিধ্বংসী ইনিংসই নয়, এই ম্যাচে তিনি পূরণ করেছেন টি-টোয়েন্টিতে ১৪ হাজার রান। আর কোনো ব্যাটসম্যানের এমনকি ১১ হাজার রানও নেই।
মাইলফলক ছুঁয়ে ৪১ বছর বয়সী ব্যাটসম্যান বললেন, এখন তিনি তাকিয়ে ১৫ হাজারের দিকে, ‘১৪ হাজার টি-টোয়েন্টি রান করতে পারা দারুণ অর্জন। এখন আমার নিজেকে লক্ষ্য দেওয়া উচিত ১৫ হাজার। প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে ১৪ হাজার করতে পারা খুবই তৃপ্তির। আশা করি, আরও অনেক রান আসবে এবং দেখিয়ে দিতে পারব, এখনও আমার সামর্থ্য কতটা আছে।’
১৪২ রানের লক্ষ্য তারা করতে নেমে শুরুটা বিবর্ণ ছিল ক্যারিবীয়দের। প্রথম ওভারে আন্দ্রে ফ্লেচারকে হ্যাজেলউড ফেরালে নামেন গেইল। তার পরেই ম্যাচটা অস্ট্রেলিয়ার কাছ থেকে হাতের মুঠোয় নিয়ে নেন তিনি। গেইল সবচেয়ে বেশি বিধ্বংসী ছিলেন স্পিনার অ্যাডাম জাম্পার বেলায়। তার নবম ওভারে ছক্কা মেরেই ১৪ হাজার রানের মাইলফলকে পৌঁছেছেন। তার ১১তম ওভারে টানা তিন ছক্কা মেরেই পূরণ করেন হাফসেঞ্চুরি। একই ধারা বজায় রাখেন ১২তম ওভারেও। রাইলি মেরিডিথের ওভারে তিনটি ছক্কা মেরে আউটও হয়েছেন একই ওভারে।
গেইলের এই ছক্কা বৃষ্টিতে জয়ের মঞ্চও গড়া হয়ে যায় তাতে। ছক্কা বৃষ্টির ম্যাচে ৪টি চারের সঙ্গে ৭টি ছয় হাঁকান তিনি!
গেইল দলীয় ১০৯ রানে ফিরলেও ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক পুরান ২৭ বলে ৩২ রানের ইনিংস খেলে জয়ের বন্দরে পৌঁছান দলকে। গেইল ঝড়ের পর ৪ উইকেট হারানো ওয়েস্ট ইন্ডিজ জয় নিশ্চিত করে ১৪.৫ ওভারে। এরআগে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নামা অস্ট্রেলিয়া অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চের ৩০ ও ময়জেস হ্যানরিকসের ৩৩ রানে ভর করে ৬ উইকেটে তোলে ১৪১ রান।
ক্রিকেটে ‘ইউনিভার্স বস’ হিসেবে নিজেই ঘোষণা দিয়েছিলেন গেইল। ব্যাটেও ব্যবহার করতেন ‘ইউনিভার্স বস’ লেখা স্টিকার। কিন্তু বছর দুয়েক আগে থেকেই গেইলকে বিরত রেখেছে আইসিসি। বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থার পলিসি অনুযায়ী, ক্রিকেটাদের পোশাকে বা ক্রিকেট সামগ্রীতে ব্যক্তিগত ব্র্যান্ডিং ও কোনো বার্তার সুযোগ নেই।
সেন্ট লুসিয়ায় অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজের তৃতীয় টি-টোয়েন্টির পর পুরনো সেই প্রসঙ্গ আবার জিজ্ঞেস করা হলো গেইলকে। জয়ের নায়ক বললেন তার ব্যাটের স্টিকার নিয়ে, ‘এখানে শুধু লেখা ‘দ্য বস।’ আসলে তো এটা ‘ইউনিভার্স বস।’ তবে আইসিসি চায় না আমি ‘ইউনিভার্স বস’ ব্যবহার করি। তাই সংক্ষপ্তি করে শুধু ‘দ্য বস’ করে নিয়েছি। কারণ আমিই তো বস!’

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: গেইল

২০ সেপ্টেম্বর, ২০২১
২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১
২০ মার্চ, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন