Inqilab Logo

শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০ আশ্বিন ১৪২৮, ১৭ সফর ১৪৪৩ হিজরী

ব্যাংকে গ্রাহকের উপচেপড়া ভিড়

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৬ জুলাই, ২০২১, ১২:০১ এএম

করোনাভাইরাসের সংক্রমণরোধে গত ১ জুলাই থেকে ১৪ জুলাই কঠোর বিধিনিষেধ শেষে গতকাল বৃহস্পতিবার স্বাভাবিকভাবে ব্যাংক লেনদেন শুরু হয়েছে। সকাল থেকেই ব্যাংকগুলোতে গ্রাহকের উপচে পড়া ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, কঠোর বিধিনিষেধের কারণে গ্রাহকরা বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া ব্যাংকে আসেননি। মাত্র কয়েকদিন পরই ঈদুল আজহা। কোরবানিকে কেন্দ্র করে সবার টাকা দরকার। আগামী সপ্তাহে আর মাত্র দুই কার্যদিবস ব্যাংকের লেনদেন চলবে। এ কারণে ব্যাংকে টাকা উত্তোলনের চাপ পড়েছে। কোনো কোনো ব্যাংকে গ্রাহকদের দীর্ঘ লাইন লক্ষ্য করা গেছে। এটিএম বুথেও ভিড় লক্ষ্য করা গেছে গ্রাহকের।

সরজমিনে গতকাল রাজধানীর মতিঝিল, দিলকুশা ও পল্টন এলাকার ব্যাংকগুলো ঘুরে দেখো গেছে, অধিকাংশ ব্যাংকে গ্রাহকের চাপ বেড়েছে। গ্রাহকরা বলছেন, কোরবানির কয়েকদিন বাকি থাকলেও আজ মার্কেট খোলা হচ্ছে, বাজারে কোরবানির পশুও চলে এসেছে। বাড়তি চাপ নিতে চান না, আগেই সব কিনতে চান। এজন্য তো নগদ টাকার প্রয়োজন হবে। অগ্রণী ব্যাংকের প্রিন্সিপ্যাল শাখার মহাব্যবস্থাপক মো. মোজাম্মেল হোসেন জানান, দীর্ঘ ১৪ দিন কঠোর বিধিনিষেধ শেষে স্বাভাবিক ব্যাংকিং কার্যক্রম শুরু হয়েছে। গ্রাহক উপস্থিতি গত দিনগুলোর চেয়ে বেশি। তাছাড়া কয়েকদিন পরেই ঈদ, এ সময়ে যারা কোরবানি পশু কিনবেন তারা আজ টাকা তুলতে ভিড় করছেন।

সোনালী ব্যাংকের প্রিন্সিপ্যাল শাখার উপ-মহাব্যবস্থাপক মো. মনিরুজ্জামান বলেন, বৃহস্পতিবার গ্রাহক উপস্থিতি তুলনামূলক বেশি।

জসিম উদ্দিন নামে এক ব্যাংক গ্রাহক জানান, কোরবানির হাট শুরু হয়েছে। পশু কেনার জন্য হাতে টাকা প্রয়োজন। যে কোনো সময় টাকা লাগতে পারে। এ কারণে আজ ব্যাংকে এসেছি। তবে দীর্ঘ সময় লাইনে দাঁড়িয়ে আছি।

আব্দুর রহিম নামে মার্কেন্টাইল ব্যাংকের এক গ্রাহক জানান, ব্যাংক থেকে টাকা উত্তোলনের জন্য এসেছি।
উল্লেখ্য, ঈদকে কেন্দ্র করে ব্যাংক লেনদেনের সময়েও পরিবর্তন আনা হয়েছে। ঈদের আগের তিন দিন অর্থাৎ গতকাল বৃহস্পতিবার, রোববার ও সোমবার ব্যাংক লেনদেন হবে সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ব্যাংক


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ