Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ১৩ কার্তিক ১৪২৭, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

কাশ্মীর ভারতের অঙ্গ হলে এই ইস্যুটি জাতিসংঘের এজেন্ডায় কেন, প্রশ্ন পাকিস্তানের

প্রকাশের সময় : ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : জাতিসংঘে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের ভাষণের পর পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নফিস জাকারিয়া একটার পর একটা ট্যুইট করে সুষমা স্বরাজের ট্যুইটের সমালোচনা করেন। জাকারিয়া ট্যুইট করে বলেছেন, ভারতের দাবি কাশ্মীর তাদের অভিন্ন অঙ্গ। যদি এটা সত্যি হয় তাহলে নিরাপত্তা পারিষদের এজেন্ডাতে কেন কাশ্মীর ইস্যুটি অন্তর্ভুক্ত রয়েছে? সুষমার বক্তব্যের পরেই জাকারিয়া ট্যুইট করে বলেন, অবাক করার মতো বিষয়! ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাতিসংঘে গিয়ে জাতিসংঘে গৃহীত প্রস্তাবকেই অস্বীকার করছেন।
বালুচিস্তানের উপর সুষমার বক্তব্য নিয়ে জাকারিয়া ট্যুইট করে বলেন, বালুচিস্তানে ভারত নিজেদের বিধ্বংসী গতিবিধিকে পরিচালনা করে আসছে। যেটা জাতিসংঘের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে এবং এটি আন্তর্জাতিক আইনকে লঙ্ঘন করা। জাতিসংঘে পাকিস্তানের প্রতিনিধি মলীহা লোধী ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের ভাষণের পরে সুষমা স্বরাজের ভাষণকে মিথ্যা এবং আধারহীন বলেছেন।
ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের ভাষণের পরে মলীহা লোধী ট্যুইট করে বলেন, সব থেকে বড় মিথ্যা কাশ্মীর ভারতের অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ। মলীহা লোধী ট্যুইটারে লেখেন, কাশ্মীরের বিবাদ আন্তর্জাতিক স্তরের মান্যতা পেয়েছে। এটি জাতিসংঘের সবথেকে পুরানো বিষয়। তিনি আরো লেখেন, দ্বিতীয় মিথ্যা কাশ্মীরে কোনো মানবাধিকার লঙ্ঘন হচ্ছে না। আসলে এই লঙ্ঘন দস্তাবেজে লেখা আছে। তিনি জাতিসংঘে বালুচিস্তানের বিষয়টি তোলার জন্য প্রশ্ন করেছেন। তিনি লিখেছেন, বালুচিস্তানের সম্মন্ধে তোলা, যেটা একটি দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়, জাতিসংঘ চার্টারের সিদ্ধান্ত এবং আন্তর্জাতিক নিয়মের লঙ্ঘন তো এখানেই হলো। তিনি এও বলেন, ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দাবি সত্যি নয়। তাঁর দেশ পাকিস্তান নিয়ে আলোচনার জন্য কোনো শর্ত আরোপ করেনি। বিবিসি, রয়টার্স।



 

Show all comments
  • রাসেল ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ২:১৫ পিএম says : 0
    একদম ঠিক
    Total Reply(0) Reply
  • hasan ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:১০ এএম says : 0
    সব ভিতুর দল,
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কাশ্মীর ভারতের অঙ্গ হলে এই ইস্যুটি জাতিসংঘের এজেন্ডায় কেন
আরও পড়ুন