Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৪ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

খসে পড়ছে পলেস্তরা

বিদ্যালয় ভবন নির্মাণে অনিয়ম

পিরোজপুর জেলা সংবাদাদাতা : | প্রকাশের সময় : ১৮ জুলাই, ২০২১, ১২:০১ এএম

পিরোজপুরের পাড়েরহাট রাজলক্ষ্মী মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও কলেজের নতুন চারতলা ভবন নির্মাণ কাজে নিম্নমানের নির্মাণ সামগ্রী ব্যবহারের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এর মধ্যেই খুলে খুলে পড়ছে নির্মাণাধীন ভবনের কলামের পলেস্তরা। এ কারণে নির্মাণ কাজ নিয়ে ক্ষোভ জানিয়েছেন বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও স্থানীয়রা।
বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা জানান, পিরোজপুর শিক্ষা প্রকৌশল কার্যালয়ের অধীনে ২ কোটি ৮১ লাখ ২২ হাজার ৪১১ টাকা ব্যয়ে পিরোজপুর জেলার ইন্দুরকানী উপজেলার পাড়েরহাট রাজলক্ষ্মী মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও কলেজের নতুন চারতলা ভবন নির্মাণ কাজ শুরু হয়। পিরোজপুরের আলেয়া কনস্ট্রাকশন নামে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান এর নির্মাণ কাজের দায়িত্ব পায়। তবে এ ভবন নির্মাণে নিম্নমানের কাজ করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করে আসছিল বিদ্যালয়ের শিক্ষকসহ স্থানীয়রা।
গতকাল বিদ্যালয়ের চতুর্থ তলায় কলামের পলেস্তরা খোলার পরপরই সেখানে কলামের পলেস্তরা খুলে খুলে পড়ে যাচ্ছিলো। কলামের রড বের হয়ে আসে। নিম্নমানের নির্মাণ সামগ্রী দেয়ায় বিদ্যালয়টির নবনির্মিত ভবনের কার্যক্রমও পড়েছে ঝুঁকির মধ্যে। বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সাবেক সদস্য বাবুল খান বলেন, নিম্নমানের মালামাল ব্যবহার করা হয়েছে বলে বিদ্যালয়ের কলামের পলেস্তরা খুলে খুলে পড়ছে। ঢালাই কাজে বালি ও সিমেন্ট খুবই কম ব্যবহার করেছে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান তাই এ সমস্যা হয়েছে। আমরা চাই একটি মানসম্মত কাজের মাধ্যমে বিদ্যালয় ভবনের কাজ শেষ হোক।
বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক শিব শংকর সাহা বলেন, বিদ্যালয় ভবনের কাজ হচ্ছে নিম্নমানের। গ্রেড-ননগ্রেড রড দিয়ে পিলার ঢালাইয়ের কাজ করেছে। করোনাকালীন সময়ে আমরা বিদ্যালয়ে না থাকার সুযোগে তারা এই নিম্নমানের কাজ করে ভবনের কাজ শেষ করছে। বিদ্যালয় ভবন নির্মাণের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান আলেয়া কনস্ট্রাকশনের মালিক নাসির শেখ জানান, মিস্ত্রিদের ভুলের কারণে এমনটা হয়েছে। ভবনের চতুর্থ তলার কলামের ঢালাই দেয়ার সময় মিস্ত্রি সঠিকভাবে কাজ না করায় এ ভুল হয়েছে। তবে ভবন নির্মাণে নিম্নমানের মালামাল ব্যবহার করা হয়েছে বলে যে অভিযোগ করা হয়েছে তা তিনি অস্বীকার করেন। পিরোজপুর জেলা শিক্ষা প্রকৌশল অধিদফতরের নির্বাহী প্রকৌশলী প্রতিভা সরকার জানান, ঘটনা শোনার পরপরই একজন ইঞ্জিনিয়ার নির্মাণাধীন ভবনে পাঠানো হয়েছে। কলাম নির্মাণে নিম্নমানের কাজ হলে তা আবার করা হবে। এ বিষয়ে ঠিকাদারের কাছে জানতে চেয়ে নোটিশ দেয়া হবে এবং পরে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভবন নির্মাণে অনিয়ম

১৮ জুলাই, ২০২১
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ