Inqilab Logo

সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৩ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

মোবাইল ফোন লুকিয়ে রাখায় মাকে পিটিয়ে হত্যা

রংপুর থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৮ জুলাই, ২০২১, ২:১৪ পিএম

মোবাইল ফোন লুকিয়ে রাখায় মাকে ক্রিকেট ব্যাট দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করেছে দত্তক নেয়া ছেলে। এ ঘটনায় দত্তক ছেলে রাকিবকে আটক করেছে পুলিশ। মৃতার নাম রাবেয়া বেগম (৫৩)।
নির্মম এ ঘটনাটি শনিবার রাতে নগরীর উত্তর মুনশিপাড়ায় ঘটেছে। নিহত রাবেয়া বেগম ওই এলাকার মৃত ইকরামুল ইসলামের স্ত্রী।
পুলিশ ও এলাকাবাসী জানিয়েছে, নগরীর উত্তর মুন্সিপাড়া এলাকার নিঃসন্তান ইকরামুল ইসলাম ও তার স্ত্রী রাবেয়া বেগম কয়েক বছর আগে পাবনা থেকে এক বছর বয়সী রাকিবকে দত্তক নিয়ে আসেন। রাবেয়ার বাবার বাড়ি পাবনায়। ২ বছর আগে স্বামী ইকরামুল ইসলাম মারা গেলে রাকিবকে নিয়ে ওই বাড়িতেই বসবাস করেন। এলাকাবাসী জানায়, রাকিব মানসিক ভারসাম্যহীন এবং এর আগেও সে মা রাবেয়া বেগমকে মারপিট করে।
শনিবার রাতে মোবাইল ফোন লুকিয়ে রাখায় উত্তেজিত হয়ে রাকিব রাবেয়া বেগমকে ক্রিকেট ব্যাট দিয়ে মারতে থাকে। রাবেয়া বেগমের চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা বাড়িতে এসে দেখতে পান ঘরের মেঝেতে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে আছেন রাবেয়া বেগম। প্রতিবেশিদের উপস্থিতিতেও রাকিব ক্রিকেটের ব্যাট দিয়ে তার মাথায় উপর্যুপরি আঘাত করতে থাকে। তাকে থামানোর আগেই ঘটনাস্থলে প্রাণ হারাণ রাবেয়া বেগম। এ সময় প্রতিবেশীদের উদ্দেশ্য রাকিব চিৎকার করে বলতে থাকে- মোবাইল লুকিয়ে রাখায় তার মাকে পিটিয়ে মেরে ফেলেছে।
খবর পেয়ে রাতেই ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে ক্রিকেটের ব্যাটসহ রাকিবকে আটক করে পুলিশ।
কোতোয়ালি থানার উপ-পরিদর্শক এরশাদ আলী বিষয়টি নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, ঘটনাস্থল থেকে রাবেয়া বেগমের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পিটিয়ে হত্যা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ