Inqilab Logo

রোববার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪ আশ্বিন ১৪২৮, ১১ সফর ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

স্ত্রীকে হত্যার পর আত্মহত্যা বলে চালান

গ্রেফতারের পর স্বীকারোক্তি

বিশেষ সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৯ জুলাই, ২০২১, ১২:০৪ এএম

নাটোরের গুরুদাসপুরের মতিবাড়ী এলাকায় যৌতুকের জন্য স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগে স্বামী সাগর হোসেনকে (২৫) গ্রেফতার করেছে সিআইডি। শনিবার রাতে সিআইডির একটি দল অভিযান চালিয়ে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের মিয়ার বাজার থেকে তাকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারের পর সাগর স্ত্রীকে হত্যাসহ সব স্বীকার করেছে। গতকাল রোববার সিআইডির প্রধান কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার মুক্তা ধর এসব তথ্য জানান।

তিনি বলেন, গ্রেফতার সাগর হোসেন গত ১৩ জুলাই রাতে তার স্ত্রী সুবর্ণা খাতুনের (২১) মুখে কাপড় গুজে লাঠি দিয়ে নৃশংসভাবে মারধর করেন। এর এক পর্যায়ে সুবর্ণা মারা যান। পরে সিলিংয়ের সঙ্গে ওড়না বেঁধে সুবর্ণাকে ঝুঁলিয়ে দিয়ে আত্মহত্যা বলে চালানোর চেষ্টা করেন তিনি। এ ঘটনার পর ১৫ জুলাই সুবর্ণার বাবা হাফিজুল সরদার বাদী হয়ে নাটোরের গুরুদাসপুর থানায় সাগর হোসেন এবং তার মা সাবিনা বেগমকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা করেন। এরপর ঘটনাস্থল থেকেই ১৫ জুলাই সাবিনা বেগমকে গ্রেফতার করা হয়। তিনি আরো বলেন, তিন বছর আগে সাগরের সঙ্গে সুবর্ণার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের জন্য সুবর্ণাকে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করতেন। ঘটনার প্রায় ২৫ দিন আগে গরুর ব্যবসার কথা বলে সুবর্ণার পরিবার থেকে টাকা নেয়ার জন্য তাকে চাপ দেন সাগর।
এর জের ধরেই পরে সুবর্ণাকে হত্যা করেন সাগর। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সাগর হত্যাকান্ডের দায় স্বীকার করেছে বলেও জানান এই সিআইডি কর্মকর্তা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আত্মহত্যা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ