Inqilab Logo

সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২, ১০ মাঘ ১৪২৮, ২০ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

বিমানবন্দর সড়কে গাড়ির চাকা নড়ছে না

বিশেষ সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২০ জুলাই, ২০২১, ১১:৩০ এএম

ঈদ পালনে আজও (মঙ্গলবার) বিপুল সংখ্যক মানুষ রাজধানী ছাড়ছেন। ঘরমুখী মানুষের চাপে সকাল থেকেই রাজধানীর বনানী থেকে উত্তরা পর্যন্ত তীব্র যানজট দেখা গেছে। এটি মূলত গতকালের যানজটেরই ধারাবাহিকতা। ঢাকা থেকে বের হওয়ার পথে যানজট থাকলেও ঢাকামুখী পথ রয়েছে ফাঁকা।

ভুক্তভোগিরা জানান, রাজধানীর বনানী, কুড়িল বিশ্বরোড, খিলক্ষেত ও প্রগতি সরণিতে গাড়ির চাকা নড়ছে না। সারি সারি গাড়িতে বাড়িফেরা মানুষ বসে আছেন। প্রচুর মানুষ হেঁটেই এগিয়ে যাচ্ছেন যতটা সম্ভব। শিশু, বৃদ্ধ ও নারীরা ঈদযাত্রায় চরম ভোগান্তির শিকার হয়েছেন।
বাসচালকেরা বলছেন, কাল (বুধবার) ঈদ। আজও একসাথে প্রচুর মানুষ ঢাকা ছাড়ায় এবং পথে কোরবানির পশুবাহী গাড়ির কারণে এ যানজট সৃষ্টি হয়েছে। এদিকে, সকাল থেকে শুরু হওয়া বৃষ্টির কারণে যানজটের ভোগান্তি কয়েকগুণ বেড়ে গেছে।

আজ বেলা ১১টায় যানজটের বিষয়ে বাসচালক ও সংশ্লিষ্ট ট্রাফিক পুলিশের কর্মকর্তারা জানান, বনানী কবরস্থান এলাকা থেকে ফ্লাইওভার পর্যন্ত প্রচÐ যানজটের সৃষ্টি হয়েছে সকাল থেকেই। বনানী ফ্লাইওভারের পর মাঝখানে কিছু রাস্তায় থেমে থেমে গাড়ি চললেও বিমানবন্দরের পর থেকে আবারও টানা যানজটের সৃষ্টি হয়েছে, যা উত্তরা পর্যন্ত পৌঁছেছে।
এছাড়া বিমানবন্দর সড়কের যানজটের কারণে কুড়ি বিশ্বরোড হয়ে এর প্রভাব পড়ছে প্রগতি সরণির বিভিন্ন রাস্তায়। অন্যদিকে, সকাল ৯টা থেকে বৃষ্টি শুরু হওয়ায় যানজটের ভোগান্তি আরও কয়েকগুণ বেড়ে গেছে বলে সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন।

এ বিষয়ে যানজটে আটকে থাকা বিভিন্ন পরিবহনের চালকরা জানান, আজ সকাল থেকে বনানী ও উত্তরা এলাকায় যানজটের কারণে তাদের গাড়ি নিয়ে রাস্তায় বসে থাকতে হয়েছে। এর মধ্যে বৃষ্টি হওয়াতে যানজটের পরিস্থিতি আরও খারাপের দিকে যাচ্ছে। গতকালও একই চিত্র ছিল। রাত ৯টায় যারা নতুনবাজার থেকে বাসে উঠেছেন আজ ভোররাতে তারা আব্দুল্লাহপুর পৌঁছেছেন।

চালকরা জানান, বিমানবন্দর থেকে উত্তরা পর্যন্ত রাস্তায় নানা ধরনের কাজ চলছে। এতে করে রাস্তায় কোথাও কোথায় রয়েছে ভাঙাচোরা, খোঁড়াখুঁড়ি আবার কোথায় কনস্ট্রাকশনের মালামাল পড়ে রয়েছে। যার ফলে বিমানবন্দর থেকে উত্তরা পর্যন্ত যানজট লেগেই থাকে। এর মধ্যে বৃষ্টি কারণে রাস্তায় পানি জমে যানজটের পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ দিকে যাবে।

যানজট নিয়ে গুলশান ট্রাফিক বিভাগের (বাড্ডা জোনের) সহকারী পুলিশ কমিশনার সুবীর রঞ্জন দাস জানান, ঈদযাত্রার আজ শেষ দিন। রাস্তায় প্রচুর গাড়ির চাপ। তবে কুড়িল বিশ্বরোড থেকে নদ্দা পর্যন্ত থেমে আছে গাড়ির চাকা।

উত্তরার যানজট নিয়ে ডিএমপির ট্রাফিকের উত্তরা বিভাগের সহকারী পুলিশ কমিশনার (উত্তরা পশ্চিম জোন) সাইফুল মালিক জানান, সকাল থেকেই গত কয়েক দিনের মতো যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। তবে আজ কিছুটা থেমে থেমে গাড়ি চলছে। বিমানবন্দর সড়ক থেকে উত্তরা পর্যন্ত যানজটের পরিমাণ কিছুটা বেশি। বেলা বাড়ার সঙ্গে যানজট বৃদ্ধি পাওয়ার আশংকা রয়েছে। তবে আগামীকাল থেকে যানজট থাকবে না বলে ধারণা করা হচ্ছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যানজট

২২ জানুয়ারি, ২০২২
১৫ নভেম্বর, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ