Inqilab Logo

রোববার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১ আশ্বিন ১৪২৮, ১৮ সফর ১৪৪৩ হিজরী

নাবালিকা পুজার বিয়ে হচ্ছিল, প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বন্ধ

খুলনা ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৩ জুলাই, ২০২১, ১১:৫০ পিএম

আজ শুক্রবার রাতে বিয়ে হওয়ার কথা ছিল অপ্রাপ্ত বয়স্কা পুজা সরকারের। সকল আয়োজন সম্পন্ন করা হয়েছিল। খবর পেয়ে সেখানে অভিযান চালান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা। বিয়ে বন্ধ করে দিয়ে তিনি কনের বাবা রনজিত সরকারকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন। কন্যার বয়স ১৮ না হলে বিয়ে দেবেন না-এমন মুচলেকাও নেন।

ঘটনাটি ঘটেছে খুলনার দিঘলিয়া উপজেলার বারাকপুর ইউনিয়নের বারাকপুর গ্রামে।

সূত্র জানায়, দিঘলিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ মাহবুবুল আলম শুক্রবার রাতে বারাকপুর বাজার এলাকায় লকডাউন তদারকি করছিলেন। এ সময় তার কাছে খবর আসে বারাকপুর গ্রামে একটি বাড়িতে বাল্যবিয়ের আয়োজন চলছে। খবর পাওয়ার পর তাৎক্ষণিকভাবে তিনি ঐ গ্রামে গিয়ে বাল্যবিয়ে বন্ধ করে দেন। বাবা রনজিত সরকারের কাছে মেয়ে পূজা সরকারের জন্মসনদ দেখতে চান। সরকারি আইন অনুযায়ী পূজা সরকারের বিয়ের বয়স ১৮ বছর পূর্ন না হওয়ায় মেয়ের বিয়ের উদ্যোগ গ্রহণ করায় বাল্য বিবাহ প্রতিরোধ আইনে বাবা রনজিত সরকারকে পাঁচ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেওয়া হয় এবং ভবিষ্যতে মেয়ের বয়স ১৮ বছর পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত মেয়ের বিবাহ দেওয়া থেকে বিরত থাকার অঙ্গীকারনামা বা মুচলেকা নেওয়া হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: খুলনা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ