Inqilab Logo

সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫ আশ্বিন ১৪২৮, ১২ সফর ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

সৈয়দপুরে কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা

সৈয়দপুর (নীলফামারী) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৪ জুলাই, ২০২১, ৮:৫৪ পিএম

নীলফামারীর সৈয়দপুরে বাবার ওপর অভিমান করে গলায় ফাঁস লাগিয়ে কলেজ পড়ুয়া এক শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছে। তাঁর নাম আরিফ হোসেন (২০)। গত শুক্রবার রাতে শহরের নিচু কলোনী ভাঙ্গা কোয়ার্টার এলাকায় এ আত্মহত্যা ঘটনাটি ঘটেছে। এ ঘটনায় স্থানীয় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

থানা পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, সৈয়দপুর পৌরসভা ৮ নম্বর ওয়ার্ডের নিচুকলোনী ভাঙ্গা কোয়ার্টার এলাকার বাসিন্দা মো. ময়নুল ইসলাম বাবু। তিনি পেশায় একজন রাজমিস্ত্রী। তাঁর দুই ছেলের মধ্যে আরিফ হোসেন (২০) ছোট। সে শহরের পাটোয়ারীপাড়াস্থ মকবুল হোসেন বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজে একাদশ শ্রেণিতে অধ্যয়ন করে।

গত শুক্রবার (২৩ জুলাই) কলেজ ছাত্র আরিফ স্থানীয় একটি সেলুনে গিয়ে নিজের তার মাথার চুল কাটান। এরপর সে বাসায় ফিরে এলে চুল কাটার আকার আকৃতি নিয়ে বাবার সঙ্গে তার সামান্য বাগবিতন্ডা হয়। পরবর্তীতে আরিফের বাবা তাকে আবারও ভালভাবে চুল কাটার জন্য সেলুনে পাঠান। এ অবস্থায় আরিফ সেলুন থেকে ফিরে রাতের খাওয়া দাওয়া সেরে বাসার নিজের রুমে ঘুমিয়ে পড়ে।

পরদিন আজ শনিবার (২৪ জুলাই) সকাল আনুমানিক ৭টা পর্যন্ত তাকে ঘুম থেকে উঠতে না দেখে তার মা ডাকতে যান। এ সময় তিনি ছেলেকে গলায় রশি দিয়ে ফাঁস লাগানো অবস্থায় ঘরের সিলিংয়ের সঙ্গে ঝুলতে দেখতে পান। এ সময় তিনি আর্তচিৎকার করলে তার বাবা ও আশেপাশের লোকজন দ্রুত ছুটে আসেন। এরপর গলায় ফাঁস লাগানো রশি কেটে তাকে নিচে নামানো হয়েছে।

পরে খবর পেয়ে সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আবুল হাসনাত খানের উপস্থিতিতে উপ-পরিদর্শক (এসআই) পলাশ চন্দ্র বর্মা ঘটনাস্থলে পৌঁছে লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করেন। তিনি জানান, লাশের শরীরে কোথাও কোন রকম আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। কলেজ ছাত্র আরিফ তার বাবার ওপর অভিমান করে আত্মহত্যা করে থাকতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল হাসনাত খান বলেন, এ ঘটনায় থানায় একটি অস্বাভাবিক মৃত্যু (ইউডি) মামলা হয়েছে। লাশের ময়নাতদন্তের জন্য নীলফামারী আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আত্মহত্যা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ