Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২২, ১১ মাঘ ১৪২৮, ২১ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

মেজবাহ চতুর্থ, সোহাগী পঞ্চম

প্রকাশের সময় : ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্পোর্ট রিপোর্টার শিলং (ভারত) থেকে : দক্ষিণ এশিয়ান গেমসে তিন বার দ্রæততম মানব হওয়ার খ্যাতি রয়েছে বাংলাদেশের (৮৫,৮৭ টানা দুই বার দ্রæততম মানব ছিলেন শাহ আলম)। ১৯৯৩ ঢাকা সাফ গেমসে বিমল চন্দ্র তরফদারের পর আর সেই খ্যাতি হাতছাড়া। ১০০ মিটার স্প্রিন্টে পুরুষ বিভাগে সর্বশেষ পদকটি ১৯৯৯ কাঠমান্ডু সাফে। প্রয়াত মাহবুব ব্রোঞ্জ জিতেছিলেন। এর পর থেকে আরো কোনো পদক নেই এই ইভেন্টে। এবার একটু আশা ছিলো বাংলাদেশকে প্রতিনিধিত্ব করা একমাত্র অ্যাথলেট মেজবাহ আহমেদকে ঘিরে। সারুসজাই কমপ্লেক্সে যখন শুরু হলো ট্র্যাক এন্ড ফিল্ডের রাজত্বের লড়াই- তখন পিনপতন নিরবতা, থমথমে চারিদিক। ফ্লাডলাইটের সব আলো যেন ১০০ মিটারের ট্র্যাকের আট প্রতিযোগির উপর। তবে হতাশ হতে হলো বাংলাদেশকে।
গৌহাটি-শিলং এসএ গেমসে ১০০ মিটার স্প্রিন্টে বাংলাদেশের একমাত্র প্রতিযোগি মেজবাহ। শুরুটা বেশ ভালোই ছিল বাংলাদেশের দ্রæততম মানবের। ৬০ মিটার পর্যন্ত ব্রোঞ্জ পদকের লড়াইয়ে ছিলেন। শেষ ৪০ মিটারে পিছিয়ে পড়ে ব্রোঞ্জ পদক হারান। ১০.৮২ (সেকেন্ড) টাইমিং নিয়ে মেজবাহ চতুর্থ হয়েছেন। ব্রোঞ্জ পদক জয়ী লংকান আশরাফুর টাইমিং ১০.৬৯।
দক্ষিণ এশিয়ার জনসংখ্যা প্রায় দুইশ কোটি। দুইশ’ কোটি জনসংখ্যার দ্রæততম মানবী ও মানবী শ্রীলংকার। পুরুষ ১০০ মিটার স্প্রিন্টে হিমাশা এশান ১০.২৮ রেকর্ড টাইমিং নিয়ে স্বর্ণ জিতেছেন। এশানকে কেমন প্রতিদ্বন্দিতার মধ্যে পড়তে হয়নি। তবে ১০০ মিটার মহিলা স্প্রিন্টে অবশ্য প্রতিদ্ব›িদ্বতাটা হয়েছে হাড্ডাহাড্ডি। রতœায়াকে ১১.৭১ টাইমিং নিয়ে দ্রæততম মানবী হয়েছেন। মাত্র ০০.০১ সেকেন্ড বেশি নিয়ে ভারতের শ্রাবণী নন্দা রৌপ্য ও চান্দ ০০.০৪ সেকেন্ড বেশিতে ব্রোঞ্জ জিতেছেন।
মহিলা ইভেন্টে বাংলাদেশের প্রতিযোগি ছিলেন দুই জন। দ্রæততম মানবী শিরিন আক্তার। আরেক জন ছিলেন সোহাগী আক্তার। সোহাগী ১০০ মিটার স্প্রিন্টে লড়ার অভিজ্ঞতা তেমন নেই। আন্তর্জাতিক পর্যায়ে প্রথম মিটেই অবশ্য চমক দেখিয়েছেন সোহাগী। ১০০ মিটার স্প্রিন্টে (১২.৩৭) পঞ্চম হয়েছেন। পেছনে ফেলেছেন নিজ দেশের দ্রæততম মানবী শিরিনকে (১২.৪৭)। স্প্রিন্ট শেষে তাই নিজের চেয়ে সোহাগীর প্রশংসাই বেশি করলেন শিরিন, ‘আমার চেয়ে সোহাগী বেশি ভালো করেছে। ওর পারফরম্যান্সে আসলেই খুশি হওয়ার মতো।’ এসএ গেমসের মঞ্চ থেকে শিরিনের শিক্ষা, ‘পর্যাপ্ত অনুশীলন ও সুযোগ সুবিধার বিকল্প নেই।’ লংকান মানবী রতœায়েকে শিরিনের ঘনিষ্ঠ বন্ধু। চীনে এশিয়ান অ্যাথলেটিক্স চ্যাম্পিয়নশীপে দুই জন এক সাথে লড়েছিলেন। সেখান থেকেই বন্ধুত্ব। বন্ধু রতœায়েকে দক্ষিণ এশিয়ার দ্রæততম মানবী হওয়ায় ভিন্ন অনুভূতি শিরিনের। ছয় বছর দক্ষিণ এশিয়ার দ্রæততম মানবী ছিলেন পাকিস্তানের নাসিম হামিদ। নতুন দ্রæততম মানবী হয়েও খানিকটা আক্ষেপ রতœায়েকের, ‘সেরা হয়েছি। ভালো লেগেছে। কিন্তু টাইমিংটা আরো কম হতে পারতো।’ দ্রæততম মানবের খ্যাতিটা শ্রীলংকারই রয়েছে। রেকর্ড টাইমিং নিয়ে স্বর্ণ জেতায় বেশ উচ্ছ¡াসিত হিমাশা এশান, ‘খুবই ভালো লাগছে। বিশাল জনসংখ্যাপূর্ণ এলাকার মধ্যে আমি দ্রæততম মানব। এটি এক বিশেষ অনুভূতি।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মেজবাহ চতুর্থ

১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬
আরও পড়ুন