Inqilab Logo

বুধবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪ আশ্বিন ১৪২৮, ২১ সফর ১৪৪৩ হিজরী

মালিককে রক্ষায় রক্তাক্ত লড়াই!

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৬ জুলাই, ২০২১, ১২:০৩ এএম

তীক্ষè থাবার আঁচড় ও কামড়ে রক্তাক্ত হয়েছে গোটা দেহ। তা সত্ত্বেও ছোট্ট মালিককে বাঁচাতে রুখে দাঁড়িয়েছে তার পোষা কুকুর মেসি। নিজের থেকে অনেক বড় একটি কায়োটির দাঁত-নখ-থাবার বিরুদ্ধে ছোট্ট মেসির লড়াইয়ে মুগ্ধ নেটদুনিয়ার অনেকেই।
মেসির এমন কীর্তিতে স্বাভাবিক ভাবেই গর্বিত তার মালিকও। বছর দশেকের মালিক লিলি কোওয়ানের কথায় মেসি অত্যন্ত সাহসী! ছোট্ট মেসির গলায় বকলস বেঁধে রোজকার মতো ভোরে হাঁটতে বেরিয়ে বিপদের মুখে পড়েছিল ১০ বছরের লিলিরা।এ ঘটনা ঘটেছে কানাডার টরেন্টোর স্কারবরোতে।

নির্জন রাস্তায় হঠাৎই তাদের হামলা করে একটি বিশালাকায় কায়োটি। নেকড়ে জাতীয় ওই প্রাণীটি সাধারণত উত্তর আমেরিকায় দেখা যায়। নেকড়ের থেকে আকারে ছোট হলেও মেসির তুলনায় সে অনেক বেশি বড়র। ১০ বছরের ইয়র্কশায়ার টেরিয়ার মেসির প্রায় চার কেজি। তবুও কায়োটির হিংস্র চেহারাতেও ঘাবড়ে যায়নি সে।

রাস্তায় এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে প্রাণভয়ে চিৎকার করে সাহায্য চাইতে শুরু করেছে লিলি। তবে নির্জন রাস্তায় তাদের বাঁচানোর কেউ ছিলেন না। লিলির কথায়, ‘ভাবছিলাম, এবার আমার কী হবে? চিৎকার করলেও কেউ তা শুনতে পাননি। লোকজনের ডোরবেল বাজাতে শুরু করি। অবশেষে একজন প্রতিবেশী বাড়িতে আশ্রয় দেন।’
মেসির বীরত্বের গোটাটাই ধরা পড়েছে ওই এলাকার বাসিন্দাদের সিসিটিভি ক্যামেরায়। তাতে দেখা গেছে, অসহায় লিলিকে বাঁচাতে লড়াই শুরু করেছে মেসি। স্কারবরোর রাস্তায় ওই হিংস্র কায়োটির বিরুদ্ধে প্রাণপণে লড়াই করে তাড়িয়ে দিতেও সফল হয়েছে।

তবে এই অসম লড়াইয়ে গুরুতর জখম হয়েছে মেসি। কায়োটির থাবা বসেছে তার মুখে-পিঠে। জখম হয়েছে একটি পা। হাসপাতালে ভর্তি করাতে হয়েছে তাকে। সেখানেই অস্ত্রোপচার হয়েছে মেসির।
সেই ব্যয়বহুল চিকিৎসা খরচ তুলতে নেটমাধ্যমে প্রচারের সাহায্যে উঠেছে ২৯ হাজার ৭৯২ ডলার। অবশেষে খানিকটা সুস্থ হয়েছে মেসি। লিলি বলেছে, ‘এখন একটু লেজ নাড়াতে পারছে মেসি। তবে তাকে দিনে ছয়বার ওষুধ খেতে হবে।’ সূত্র : টরেন্টো সান, ডেইলি মেইল।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন