Inqilab Logo

শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩ আশ্বিন ১৪২৮, ১০ সফর ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

ভুয়া চিকিৎসকের কারাদন্ড ও জরিমানা

কাপাসিয়া (গাজীপুর) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৭ জুলাই, ২০২১, ১২:০২ এএম

গাজীপুরের কাপাসিয়ায় চিকিৎসক সেজে সেবা প্রদান করার অভিযোগে জালাল উদ্দিন নামে এক ব্যক্তিকে ভ্রাম্যমাণ আদালত ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেছেন। এছাড়া করোনা পরিস্থিতিতে সরকার নির্দেশিত লকডাউনের মাঝে মাস্ক পরিধান না করে অহেতুক ঘোরাঘুরি ও আড্ডা দেয়ায় বিভিন্নজনের নিকট থেকে সাড়ে ৯ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।
ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ঘাগুটিয়া ইউনিয়নের চালা বাজারে বিভিন্নস্থানে গত রোববার দুপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোসা. ইসমত আরার নেতৃত্বে মোবাইল কোর্ট পরিচালিত হয়। এসময় বাইরে অহেতুক ঘোরাঘুরি করা ব্যক্তিদের থার্মাল স্ক্যানার দিয়ে শরীরের তাপমাত্রা মাপা হয়। যাদের তাপমাত্রা বেশি পাওয়া যায় তাদেরকে অধিক জরিমানা করা হয়। এছাড়া সরকারের নির্দেশনা অমান্য করে রাস্তাঘাটে অহেতুক ঘোরাফেরা, মাস্ক পরিধান না করা, টেলিভিশন চালিয়ে চায়ের দোকানে আড্ডা দেয়া ব্যক্তিদের নিকট থেকে ৯ হাজার ৫শ’ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।
তাদের বিরুদ্ধে সংক্রামক রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ আইন ২০১৮ অনুযায়ী মামলা দেয়া হয়।
এছাড়া ভ্রাম্যমাণ আদালত ঘাগুটিয়া চালাবাজারে জালাল উদ্দিন নামে এক ব্যক্তি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ব্যবস্থাপনা বিষয়ে অনার্স ও মাস্টার্স পাশ করে মায়া ডায়াগনস্টিক সেন্টারের মাধ্যমে মহিলা ও শিশুদের বিভিন্ন রোগের চিকিৎসা ও ব্যবস্থাপত্র প্রদানের প্রমাণ পায়। পরে কোনো প্রকার ডিগ্রি বা অভিজ্ঞতা ছাড়া প্রেসক্রিপশন দেয়ার জন্য মেডিক্যাল এবং ডেন্টাল কাউন্সিল আইন ২০১০ এর ২৮ ধারা অনুযায়ী তাকে ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয়। এসময় কাপাসিয়া থানা পুলিশের সদস্যরা সার্বিক সহযোগিতা করেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন