Inqilab Logo

শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২ আশ্বিন ১৪২৮, ০৯ সফর ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

করোনা ও ডেঙ্গু প্রতিরোধে চরমভাবে ব্যর্থ সরকার

পীর সাহেব চরমোনাই

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৭ জুলাই, ২০২১, ১২:০১ এএম

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর আমীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই বলেছেন, করোনার পাশাপাশি ডেঙ্গু পরিস্থিতিও ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। সিটি কর্পোরেশন ভেজাল ঔষধ ছিটানোর কারণে মশা নিধন হচ্ছে না। তিনি বলেন, দিন যত যাচ্ছে করোনার সাথে ডেঙ্গু বেড়েই চলছে। এমতাবস্থায় দেশবাসি চরম উদ্বিগ্ন। রাজধানীর বিভিন্ন হাসপাতালে ডেঙ্গু আক্রান্ত সংখ্যা বেড়ে চলছে। এহেন ভয়াবহ পরিস্থিতি অতীতের ডেঙ্গু পরিস্থিতিকে স্মরণ করিয়ে দেয়। স্থানীয় সরকার ও সিটি কর্পোরেশন আবারও ডেঙ্গু দমনে পুরোপুরি ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে।

গতকাল সোমবার এক বিবৃতিতে পীর সাহেব চরমোনাই ডেঙ্গু মশার ভয়াবহ উপদ্রব ও আশঙ্কাজনকভাবে আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন। তিনি বলেন; “একদিকে করোনা অন্যদিকে ডেঙ্গু”- পুরো জনপদ আজ মারাত্নক স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে। করোনার অযুহাত দিয়ে ডেঙ্গু প্রতিরোধের ব্যর্থতা ঢাকবার সুযোগ নেই। প্রতিটি সিটিতেই মশা নিধনে বিশাল বিশাল বাজেট থাকে। মশক যদি নিধন-ই না হয়, তবে বাজেটের টাকা কোথায় যায়? জনগণ তা জানতে চায়। স্থানীয় সরকার ও সিটি কর্পোরেশন বাস্তবতার আলোকে সময়োপযোগী পদক্ষেপ বাস্তবায়ন করলে আজ আমাদেরকে করোনার পাশাপাশি ডেঙ্গু আতঙ্কে ভুগতে হত না।

পীর সাহেব চরমোনাই বিবৃতিতে জনগণের প্রতি আহবান জানিয়ে বলেন; আসুন নিজেরা সতর্ক হয়ে নিজ বাসার আঙ্গিনা, ফুলের টব, বাসার ছাদ, এয়ারকন্ডিশন, বারান্দা সহ যেসকল জায়গায় পানি জমে থাকার সম্ভাবনা রয়েছে সেগুলো নিয়মিত তদারকি করে জমে থাকা পানি মুক্ত করে পরিষ্কার রাখি। নিজেদেরকে ডেঙ্গু মুক্ত রাখি, পাশাপাশি ডেঙ্গুর বংশবিস্তার রোধে সহায়তা করি।

বাংলাদেশ নেজামে ইসলাম পার্টি : এদিকে, বাংলাদেশ নেজামে ইসলাম পার্টির নির্বাহী সভাপতি ও জাতীয় সংহতি মঞ্চের প্রধান সমন্বয়কারী মাওলানা একে এম আশরাফুল হক গতকাল সোমবার এক বিবৃতিতে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা দিন দিন বৃদ্ধি পাওয়ায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, ঢাকা শহরের ডেঙ্গু উপদ্রব চরম পর্যায়ে পৌঁছেছে। রাজধানীর ঘরে ঘরে আজ ডেঙ্গু রোগী। বৈশ্বিক করোনা মহামারি সাথে পাল্লা দিয়ে নগরবাসীকে ডেঙ্গুর মুখোমুখি হতে হচ্ছে। এডিস মশা নিধনে ডিসিসি চরমভাবে ব্যর্থ। তিনি বলেন, সরকারি হাসপাতালে সাধারণ ডেঙ্গু রোগীরা চিকিৎসার সুযোগ পাচ্ছে না। বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা ব্যবস্থা অপ্রতুল। ফলে সাধারণ জনগণের ভোগান্তি চরম পর্যায়ে পৌঁছেছে। সরকারি ও বেসরকারি সকল হাসপাতালে ডেঙ্গু চিকিৎসা দ্রুত ও সহজলভ্য করার দাবি জানান তিনি। তিনি আরো বলেন, শত শত কোটি টাকার মশক নিধন কর্মসূচি যথাযথভাবে বাস্তবায়ন না হওয়ায় ডেঙ্গু মশা নিধনে ঢাকা সিটি করপোরেশন (ডিসিসি) ব্যর্থ হচ্ছে। এই ব্যর্থতার দরুন ঢাকা সিটি করপোরেশনের মশক নিধনের দায়িত্বশীলদের বিরুদ্ধে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করার জোর দাবি জানান তিনি। তিনি মশক নিধনে ব্যর্থ দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে তদন্ত কমিটির ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ