Inqilab Logo

রোববার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১ আশ্বিন ১৪২৮, ১৮ সফর ১৪৪৩ হিজরী

তিন কিশোরীর ইতিহাস

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৭ জুলাই, ২০২১, ১২:০০ এএম

এ যেন- এলেন, দেখলেন, জয় করলেন! জাপানের ১৩ বছরের কিশোরী মোমিজি নিশিয়ার গল্পটা এমনই। গতকাল নিজেদের ঘরে এবারের অলিম্পিকে সম্পূর্ণ নতুন এক ইভেন্ট স্কেটবোর্ডিংয়ের মেয়েদের বিভাগে নেমেই সোনা জিতেছেন ১৩ বছরের বিস্ময় মোমিজি। এই ইতিহাস গড়তে মোমিজের স্কোর ছিল ১৫.২৬।

ঘটনা এখানেই শেষ নয়। ১৪.৬৪ স্কোর নিয়ে রৌপ্য পদক জেতা ব্রাজিলের রাইসা লিয়ালের বয়সও ১৩ বছর। যেন আনলাকি সংখ্যাটিকে ‘লাকি’ বানানোর পন নিয়েই নেমেছিলেন তারা। কাকতালীয়ভাবে ব্রোঞ্জ পদক জেতা প্রতিযোগীর বয়সও খুব বেশি নয়। ১৫.৪৯ স্কোরে ব্রোঞ্জ জেতা জাপানের ফুনা নাকায়ামার বয়স ১৬ বছর।

১৩ বছর ৩৩০ দিনে সোনা জিতে অলিম্পিকের ইতিহাসে সবচেয়ে কম বয়সে সোনা জেতাদের তালিকায় এখন দ্বিতীয় স্থানে মোমিজি। এর আগে ১৯৩৬ বার্লিন অলিম্পিকে ১৩ বছর ২৬৮ দিন বয়সে সোনা জিতেছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের মারজুরি গেস্ট্রিং। তবে সেটি ছিল স্প্রিংবোর্ড ইভেন্ট। যদিও সেই ইভেন্টও অনেকটা স্কেটবোর্ডিংয়ের মতোই।

অলিম্পিকে এবার প্রথমবার অন্তর্ভুক্ত হয়েছে স্কেটবোর্ডিং। সোনা জিতলেই তাই ইতিহাসের পাতায় নাম লেখানোর সুযোগ ছিল অংশ নেওয়া সব প্রতিযোগীর সামনে। সবাইকে অবাক করে দিয়ে ১৩ বছরের কিশোরী মোমিজিই শেষ পর্যন্ত বাজিমাত করলেন। জেতার পর সোনাজয়ী মোমিজ বলেছেন, ‘আমি কখনো চিন্তাই করিনি জিততে পারব। তবে আশপাশের সবাই দারুণ উৎসাহিত করেছিল। শেষ পর্যন্ত লক্ষ্যে পৌঁছাতে পেরেছি এতেই আমি খুশি।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: অলিম্পিক

৭ আগস্ট, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন