Inqilab Logo

সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫ আশ্বিন ১৪২৮, ১২ সফর ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

ফের জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে শিল্পা শেট্টিকে

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৭ জুলাই, ২০২১, ২:২৩ পিএম

পর্নকান্ডে রাজ কুন্দ্রা গ্রেফতারির ঘটনায় তার স্ত্রী তথা অভিনেত্রী শিল্পা শেট্টিকে ইতিমধ্যেই একবার জিজ্ঞাসাবাদ করেছেন মুম্বাই পুলিশের অপরাধ দমন শাখার অফিসাররা। শোনা যাচ্ছে, শিল্পাকে দ্বিতীয়বার জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডাকা হতে পারে। সূত্রের খবর, রাজের ঘটনায় শিল্পা আদৌ জড়িত কি না, সেই তদন্তের স্বার্থে শিল্পার ফোন ক্লোন করা হতে পারে।

গত ২৩ জুলাই রাজ এবং শিল্পার জুহুর বাংলোতে তল্লাশি চালিয়েছে পুলিশ। সে দিনই শিল্পার বয়ানও রেকর্ড করা হয়। প্রায় দু’ঘণ্টার কথোপকথনে শিল্পা নাকি কাঁপছিলেন। দৃশ্যতই ভেঙে পড়েন। এখনও পর্যন্ত রাজের এই ব্যবসায় শিল্পার জড়িত থাকার কোনও প্রমাণ পাওয়া যায়নি বলে খবর।

এদিকে গতকাল (২৬ জুলাই) কানপুরে রাজ কুন্দ্রার দুটি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট বাজেয়াপ্ত করেছে পুলিশ। সম্প্রতি রাজের ঘটনায় মুখ খুলেছেন মুকেশ খান্না। গোটা ঘটনায় রাজ কুন্দ্রা দোষী, এমন দাবি করেননি তিনি। তার মতে বিচারের ভার আদালতের। কিন্তু অবৈধ ঘটনা যে প্রকাশ্যে এসেছে, তাতে খুশি তিনি।

মুকেশ বলেন, “রাজের সঙ্গে কোনওদিন দেখা হয়নি। ম্যাচ ফিক্সিংয়ে ওর নাম শুনেছিলাম কয়েক বছর আগে। কী প্রমাণ হবে আমি জানি না। সুশান্ত মার্ডার কেস আজও প্রমাণ হয়নি। অন্তত নিষিদ্ধ বিষয়টা সামনে এসেছে, সেটা কড়া ভাবে নিষিদ্ধ করা হোক। অবৈধ কাজ আমি সমর্থন করি না। দেশের যুবসমাজ, শিশুদের ব্যাপারে কনসার্ন আমি। যাঁরা এ কাজ করেছেন তাদেরকে ডিফেন্ড করতে চাই না।”

এ প্রসঙ্গে নিজের মত জানাতে গিয়ে কমেডিয়ান সুনীল পাল জানালেন, যা হয়েছে ঠিক হয়েছে। এমনটা হওয়াই উচিত ছিল।

উল্লেখ্য, গত ১৯ জুলাই শিল্পা শেট্টির স্বামী রাজ কুন্দ্রাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পর্নোগ্রাফি তৈরি করে একটি অ্যাপের সাহায্যে তা প্রকাশ করার অভিযোগে তাকে গ্রেফতার করা হয়। আগামী ২৭ জুলাই পর্যন্ত পুলিশের হেফাজতেই থাকবেন রাজ। গত শুক্রবার শিল্পাকেও জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। ছয় ঘণ্টা ধরে চলে জিজ্ঞাসাবাদ পর্ব। পুলিশ সূত্রে খবর, শিল্পার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট ও টাকা পয়সার লেনদেনের উপর কড়া নজর রাখবে মুম্বাই পুলিশ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বলিউড


আরও
আরও পড়ুন