Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩ আশ্বিন ১৪২৮, ২০ সফর ১৪৪৩ হিজরী

মাশরাফির নড়াইল ফাউন্ডেশন স্পোর্টস একাডেমির সাথে ৫ বছরের জন্য পার্টনারশীপ আইপিডিসির

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৭ জুলাই, ২০২১, ৬:৩০ পিএম

আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড নড়াইলে খেলাধুলার প্রচার ও প্রসারের জন্য সম্প্রতি নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন (এনইএফ)-এর সাথে একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে। রাজধানীর গুলশানে অবস্থিত আইপিডিসি’র প্রধান কার্যালয়ে এই চুক্তি স্বাক্ষর সম্পন্ন হয়।

নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন (এনইএফ)-এর চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা এবং আইপিডিসি ফাইন্যান্সের ম্যানেজিং ডিরেক্টর ও সিইও মমিনুল ইসলাম স্ব স্ব প্রতিষ্ঠানের পক্ষে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছেন। স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে উভয় প্রতিষ্ঠানের অন্যান্য উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

চুক্তির আওতায় আইপিডিসি ফাইন্যান্স আগামী পাঁচ বছরে এনইএফ-এর দর্শন অনুসারে নড়াইল জেলায় ক্রীড়া প্রশিক্ষণ সরবরাহ করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হয়েছে। আইপিডিসি ফাইন্যান্স ২০১৮ সাল থেকে ক্রীড়া প্রশিক্ষণ সুবিধার মান ধরে রাখতে এনইএফ-কে সব ধরনের সহায়তা নিশ্চিত করে আসছে। গত বছর আইপিডিসি এই ফাউন্ডেশনকে নড়াইলে একটি জিমন্যাসিয়াম তৈরি করতে সহায়তা করেছিল, যা এ বছরের শেষ নাগাদ উদ্বোধন করা হবে।

স্পোর্টস একাডেমী বর্তমানে ১৬-১৮ বছর বয়সী ৬০ জন ক্রিকেট, ফুটবল ও ভলিবল খেলোয়াড়কে প্রশিক্ষণ দিয়ে থাকে। এই গ্রুপটি প্রতিযোগিতামূলক আন্তর্জাতিক পর্যায়ের খেলোয়াড় হওয়ার জন্য প্রশিক্ষিত হচ্ছে, সেই সাথে তাদের শিক্ষা, আবাসন ও স্বাস্থ্যসেবাও নিশ্চিত করা হচ্ছে।

এনইএফ’র প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান মাশরাফি বিন মুর্তজা বলেন, “আমি কেবলমাত্র নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন-এর মাধ্যমে শিক্ষা, স্বাস্থ্য, আইসিটি, সংস্কৃতি এবং খেলাধুলার ক্ষেত্রে নড়াইলকে আমূল বদলে দেওয়ার স্বপ্ন দেখেছি। আইপিডিসি ফাইন্যান্স-এর প্রতি আমার আন্তরিক কৃতজ্ঞতা এই স্বপ্নে সহযোগী হওয়ার জন্য, যা অন্যদেরকেও দেশ থেকে মেধাবী খেলোয়াড় বাছাই করে আনতে অনুপ্রাণিত করবে।”

আইপিডিসি’র পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মমিনুল ইসলাম বলেন, “আইপিডিসি তরুণ ও সুবিধাবঞ্চিতদের প্রতি সবসময়ই বিশেষ মনোযোগী এবং তাদের জন্য যুগোপযোগী সুযোগ তৈরি করতে সর্বদা সচেষ্ট। আমরা এই যাত্রায় স্বয়ং ‘দ্য ক্যাপটেন’-এর নেতৃত্বে একটি অনন্য প্ল্যাটফর্ম পেয়ে অত্যন্ত আনন্দিত।”



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ