Inqilab Logo

রোববার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১ আশ্বিন ১৪২৮, ১৮ সফর ১৪৪৩ হিজরী

১৪ আগস্টের মধ্যে আফগান সীমান্তে বেড়া দেবে পাকিস্তান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৮ জুলাই, ২০২১, ১২:০১ এএম

দশকের দশকের যুদ্ধের ফলে দেশ ছাড়তে বাধ্য হচ্ছেন আফগানরা। তাদের বেশিরভাগই পূর্ব দিকে পাকিস্তানে কিংবা পশ্চিমে ইরানে আশ্রয় নিতে বাধ্য হয়েছেন। প্রতিবেশী দেশটিতে অশান্তির কারণে শরণার্থী সঙ্কটের আশঙ্কার মধ্যে পাকিস্তান সোমবার ঘোষণা করেছে যে, আফগান সীমান্তে বেড়া দেয়ার কাজ ১৪ আগস্টের মধ্যে শেষ করা হবে। জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থার তথ্য অনুসারে, বছরের প্রথম থেকেই পাকিস্তানে ১৪ লাখ ও ইরানে প্রায় ১০ লাখ আফগান শরণার্থী রয়েছে। উভয় দেশে অননুমোদিত আফগানদের সংখ্যা অনেক বেশি বলে অনুমান করা হয়।

পাকিস্তান এরই মধ্যে আরও শরণার্থী নেয়ার বিষয়টি অস্বীকার করেছে। এই প্রেক্ষিতে সোমবার ইসলামাবাদে এক সংবাদ সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ রশিদ আহমেদ বলেন, আফগান সীমান্তে বেড়া দেয়া ১৪ আগস্টের মধ্যে শেষ হবে এবং ইরানের সীমান্তেও বেড়া দেয়ার কাজ ৪৬ থেকে ৪৮ শতাংশ শেষ হয়ে গেছে। তিনি বলেন, গত কয়েক বছরে ভিসা পুনর্নবীকরণ না করেই পাকিস্তানে হাজার হাজার বিদেশি বসবাস করছেন। রশিদ এই বিদেশীদের ১৪ আগস্টের আগে পাকিস্তান ছেড়ে যেতে বা অনলাইনে আবেদনের মাধ্যমে তাদের ভিসা পুনর্নবীকরণের জন্য বলেছেন।

যারা ভিসার নবায়নের জন্য আবেদন করবেন তাদের কোনও জরিমানা করা হবে না বলে তিনি জানিয়েছেন। মন্ত্রী বলেন, ফেডারাল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সি (এফআইএ) এর সাইবার-ক্রাইম শাখাও এর কর্মক্ষমতা ও দক্ষতা উন্নয়নের জন্য আধুনিক লাইনে গড়ে তোলা হবে। কম্পিউটারাইজড জাতীয় পরিচয়পত্রের জন্য নাদ্রায় যাচাইকরণ, পুনর্নবীকরণ ও সংশোধন করার নতুন নীতি চালু করা হয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন। তিনি আরও বলেন, নকল পরিচয় পত্র দেয়ার ক্ষেত্রে জড়িত থাকার অভিযোগে করাচিতে নাদ্রার ৩৯ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছিল। লাহোর ও মুলতানসহ অন্যান্য শহরেও একই পদক্ষেপ নেয়া হবে বলেও জানান তিনি। সূত্র : ট্রিবিউন।

 



 

Show all comments
  • Mahdi Nobel ২৮ জুলাই, ২০২১, ৮:২১ এএম says : 0
    আম্রিকা-ন্যাটোর অহমিকা অহংকার আজ কোথায়! কথিত বিশ্বের সুপার পাওয়ার দাবিদাররা আজ কোথায়!অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ও অস্ত্রশস্ত্র সম্বলিত সামরিক বাহিনী গুলো কোথায়! ওদের অহংকার-অহমিকা ধুলিস্যাৎ করে দিয়েছেন আল্লাহ্ পাহাড়ি মোল্লাদের মাধ্যমে.
    Total Reply(0) Reply
  • Jobayer Ahmad ২৮ জুলাই, ২০২১, ৮:১৯ এএম says : 0
    তারা আল্লাহু আকবারের নামে অস্ত্র তুলে, সে দেশে আল্লাহু আকবারের নামে জিহাদ চলে।যে দেশের সন্তানেরা বড় হয় শহিদ গাজীর সমাবেশে সে দেশের সত্যের বিজয় হতেই হবে।
    Total Reply(0) Reply
  • Mohi Uddin ২৮ জুলাই, ২০২১, ৮:১৮ এএম says : 0
    যতগুলা দেশে তারা যুদ্ধ চালিয়েছে সব জায়গার একই গল্প।এতগুলো বছর যুদ্ধ করার পর তাহারা চলিয়া গেল এখন যা করতেছে তা হলো তোমরা তোমাদের কে মারবা আমরা তোমাদের সাহায্য করবো ।সব সময় অন্যের ক্ষতি করতে তাহারা সজাগ। তাদের উপর আল্লাহর গজব পড়বে।
    Total Reply(0) Reply
  • Mahdi Nobel ২৮ জুলাই, ২০২১, ৮:২১ এএম says : 0
    আম্রিকা-ন্যাটোর অহমিকা অহংকার আজ কোথায়! কথিত বিশ্বের সুপার পাওয়ার দাবিদাররা আজ কোথায়!অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ও অস্ত্রশস্ত্র সম্বলিত সামরিক বাহিনী গুলো কোথায়! ওদের অহংকার-অহমিকা ধুলিস্যাৎ করে দিয়েছেন আল্লাহ্ পাহাড়ি মোল্লাদের মাধ্যমে.
    Total Reply(0) Reply
  • জুনাইরা নুহা ২৮ জুলাই, ২০২১, ৮:২২ এএম says : 0
    সমর শক্তি শেষ হয়। ঈমানী শক্তি কখনো শেষ হয় না। তার প্রমান তালেবান ও আফগান যুদ্ধ।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পাকিস্তান


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ