Inqilab Logo

রোববার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১ আশ্বিন ১৪২৮, ১৮ সফর ১৪৪৩ হিজরী

লকডাউনের মধ্যেও সর্বোচ্চ আক্রান্তের রেকর্ড সিডনিতে

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৯ জুলাই, ২০২১, ১০:৪৫ এএম

অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়েলসে রাজ্যে দু’সপ্তাহের কঠোর লকডাউনের মধ্যেও এবছর একদিনে সর্বোচ্চ কোভিড শনাক্তের রেকর্ড হয়েছে সিডনিতে। নিউ সাউথ ওয়েলসের রাজ্য সরকার বৃহস্পতিবার রাজধানী সিডনিতে একদিনে ২৩৯ জন করোনায় আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন। মহামারি শুরুর পর সেখানে এটিই একদিনে সর্বোচ্চ শনাক্তের রেকর্ড। আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে খবরে এ তথ্য জানা যায়।
সিডনিতে সরকারঘোষিত লকডাউন বাস্তবায়নে ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার জন্য পুলিশকে বাড়তি ক্ষমতা প্রয়োগে নির্দেশনা দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। একই সঙ্গে করোনা সংক্রমণের আটটি হটস্পটে সেখানকার প্রায় দুই মিলিয়নেরও বেশি বাসিন্দাকে ঘরের বাইরে গেলে মাস্ক পরার নির্দেশ দেয়া হয়েছে এবং তাদের বাসাবাড়ির পাঁচ কিলোমিটারের (তিন মাইল) মধ্যে থাকতে বলা হয়েছে।
সেখানে এখন পর্যন্ত দুই হাজার ৮০০ জনের বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। এর মধ্যে ১৮২ জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তাদের মধ্যে ৫৪ জন নিবিড় পর্যবেক্ষণে (আইসিইউ) রয়েছেন এবং ২২ জনকে ভ্যান্টিলেশনে রাখা হয়েছে। এদিন নতুন করে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মহামারি শুরুর পর এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে।
করোনার অধিক সংক্রমণশীল ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট ছড়িয়ে পড়ার পর সিডনিতে চলমান লকডাউন আরও চার সপ্তাহ বাড়ানো হয়েছে। সিডনির ৫ মিলিয়ন মানুষকে আগামী ২৮ আগস্ট পর্যন্ত মেনে চলতে হবে এই বিধিনিষেধ।
সিডনিতে স্থানীয়ভাবে শনাক্ত বেশিরভাগ রোগীর মধ্যে কমপক্ষে ৬৬ শতাংশ ওই এলাকায় চলাফেরা করার মাধ্যমে সংক্রমিত হয়েছেন। কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, সংক্রমণের হার শূন্যের কাছাকাছি না আসা পর্যন্ত লকডাউন তুলে নেয়া হবে না।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস


আরও
আরও পড়ুন