Inqilab Logo

রোববার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১ আশ্বিন ১৪২৮, ১৮ সফর ১৪৪৩ হিজরী

এবার তৈমুরকেও অভিনয়ে নামাচ্ছেন সাইফ!

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৯ জুলাই, ২০২১, ১১:২১ এএম

নবাব পরিবারে শর্মিলা ঠাকুর থেকে শুরু করে মেয়ে সারা আলি খান সকলেই যুক্ত অভিনয়ে। বাবা মনসুর আলি খান পতৌদি, দিদি সাবা এবং ছেলে ইব্রাহিম আলি খান ছাড়া সাইফ আলি খানের গোটা খানদান ফিল্মি। সেই সূত্র ধরেই এবার সাইফের এক ভক্ত আবদার করে বসলেন তৈমুরকে দিয়ে অভিনয় করানোর। তার পরামর্শ, জনপ্রিয় হলিউড ছবি ‘বেবি’জ ডে আউট’ এর হিন্দি রিমেক করা হোক। আর তাতে অভিনয় করুক তৈমুর। সাইফকে তিনি অনুরোধ করেছেন ছেলেকে দিয়ে এই ছবিতে অভিনয় করানোর। তৈমুর অভিনয় করলে সেই ছবি হিট হবেই হবে।

ভক্তের আবদার পৌঁছেছে খোদ সাইফের কানে। তিনি উত্তর দিতেও ভোলেননি। তবে ছেলেকে দিয়ে অভিনয় করানোর ব‍্যাপারে তিনি যথেষ্ট সন্দিহান। কারণ তিনি যতটাই ‘কুল’ স্বভাবের, ছেলে তৈমুর ঠিক ততটাই দুরন্ত। দুটো শট দিয়েই তার ধৈর্য্য শেষ হয়ে যায়। তৈমুরকে সামলানো অসম্ভব। তার থেকে বরং তাদের নিয়ে যদি ওই ব্যক্তিই ছবি বানান তবে সেটাই ভাল হবে বলে মনে হয় সাইফের।

তবে অভিনেতা নিজে কি কখনো ভাবেননি তৈমুরকে অভিনয়ে নামানোর কথা? মোটেই না। ছেলেকে কাজে লাগিয়ে রোজগার করার ইচ্ছা ছিল তারও। এক সাক্ষাৎকারে নিজেই এ কথা স্বীকার করেছিলেন সাইফ। তার এই পরিকল্পনা সফলও হত যদি না তৈমুরের মা কারিনা মাঝখানে বাধা হয়ে দাঁড়াতেন। নিজের ছেলেকে বিক্রি করার চিন্তার জন্য সাইফকে ধিক্কারও দিয়েছিলেন কারিনা।

২০১৮ তে এক সাক্ষাৎকারে সাইফ জানান, তৈমুরের জন্মের পর তিনি যে যে প্রযোজকের সঙ্গে কাজ করেছেন তারা সকলেই প্রায় কোনো না কোনো সময় তাকে বলেছেন তৈমুরকে দিয়ে ছবির প্রচার করালে কেমন হয়? এমনকি অভিনেতা নিজেও ভেবেছিলেন তৈমুরকে দিয়ে ন্যাপির বিজ্ঞাপন করাবেন। সেই বিষয়ে কারিনার সঙ্গে আলোচনা করে ক্ষেপে যান অভিনেত্রী। তিনি সাইফকে সাফ জানান, এত নীচে না নামতে। নিজের ছেলেকে বিক্রি করার কথা কিভাবে ভাবতে পারেন তিনি!

উল্লেখ্য, বলিউডে তারকা সন্তানদের মধ্যে জনপ্রিয়তার দিক থেকে প্রথম স্থানে আসবে তৈমুর আলি খানের নাম। সাইফ-কারিনার প্রথম সন্তান জন্মের পর থেকেই সমস্ত লাইমলাইট কেড়ে নিয়েছিল। ছোট্ট থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় এক রকম কব্জা করে রেখেছিল তৈমুর। এখনো বেশ কিছুটা বড় হয়ে যেতেও তাকে নিয়ে আলোচনা বন্ধ হয়নি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ