Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮ আশ্বিন ১৪২৮, ১৫ সফর ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

ভারতে কোভিশিল্ড, কোভ্যাক্সিন মিশ্র টিকার ট্রায়াল শুরু

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩১ জুলাই, ২০২১, ১২:০৪ এএম

দুটি ডোজ আলাদা সংস্থার। হয়ত প্রথম ডোজ পেলেন কোভিশিল্ড এর। দ্বিতীয় ডোজ নিলেন কোভ্যাক্সিন এর। কিংবা উল্টোটাও হতে পারে। টিকার যে সংকট চলছে, তার মধ্যে অনেকেই মিশ্র টিকা নেওয়ার কথা ভাবছেন। আবার কোথাও কোথাও ভুল করে এই ধরনের টিকা দেওয়াও হয়েছে। যার ফলে অনেকে উপকারও পেয়েছেন বলে দাবি করা হয়েছে। এবার সেটাই খতিয়ে দেখতে চাইছে সরকারের এক বিশেষজ্ঞ কমিটি। ড্রাগ স্ট্যান্ডার্ড কন্ট্রোল অর্গানাইজেশনের তরফে এবার এই ধরনের মিশ্র টিকার ট্রায়াল শুরুর অনুমতি মিলল।

ভেলোরের ক্রিশ্চিয়ান মেডিক্যাল কলেজ স¤প্রতি কোভ্যাক্সিন এবং কোভিশিল্ড এর মিশ্র টিকার চতুর্থ দফার ট্রায়ালের অনুমতি চেয়ে ড্রাগ স্ট্যান্ডার্ড কন্ট্রোল অর্গানাইজেশনের সাবজেক্ট এক্সপার্ট কমিটির কাছে আবেদন করেছিল। সাবজেক্ট এক্সপার্ট কমিটি সিএমসি ভেলোরকে প্রায় ৩০০ স্বেচ্ছাসেবকের উপর চতুর্থ দফার ট্রায়াল সেরে ফেলার অনুমতি দিয়ে দিল। এই ট্রায়ালের মাধ্যমে দেখে নেওয়া হবে, এক ব্যক্তিকে প্রয়োজনে দুটি আলাদা আলাদা টিকার ডোজ দেওয়া যাবে কিনা। আর দিলে সেটা কতটা কার্যকরী হবে।

করোনার প্রকোপ রুখতে মিশ্র টিকা দেওয়া যায় কিনা, তা নিয়ে ইতোমধ্যেই গবেষণা শুরু করেছেন বিভিন্ন দেশের গবেষকরা। অনেক গবেষকেরই দাবি, দুটি আলাদা সংস্থার টিকা নিলে একই টিকার দুই ডোজের তুলনায় রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বেশি হয়। জার্মানিতে আবার ইতিমধ্যেই মিশ্র টিকা নেওয়া শুরুও হয়ে গিয়েছে। সেদেশের চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মার্কেল নিজে দুটি ভিন্ন সংস্থার টিকা নিয়েছেন সাধারণ মানুষকে উৎসাহিত করার জন্য। যদিও, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এভাবে মিশ্র টিকা নেওয়ার বিপক্ষে। হু’র কথায় তা বিপজ্জনক। সূত্র : আজকাল।



 

Show all comments
  • Surajit Hazra ৩১ জুলাই, ২০২১, ৪:৩২ এএম says : 0
    মানুষ জনের এখন গিনিপিগ এর মতো অবস্থা। সব কিছু ট্রায়াল হয়ে যাক
    Total Reply(0) Reply
  • Swarup Mandal, Kalkata ৩১ জুলাই, ২০২১, ৪:৩০ এএম says : 0
    তাহলে বলুন প্রোগ্ৰাম অনেক গভীরে। স্বাস্থ্য কর্মীদের ভুলে যারা দু রকমের ভ্যাকসিন নিয়েছিলেন সব আগে থেকেই প্রোগ্ৰামিং ছিলো । আর এমন ভুলের সমিক্ষা করলে নারী , পুরুষ এর অনুপাত অঙ্কের ভাষায় মিলে যাবে। WHO কি আর আমাদের দেশের সিস্টেম জানে যেটা কিনা ইচ্ছাকৃত/অনিচ্ছাকৃত ভুল ছিলো তার মাধ্যমে ১/২ ট্রায়েল হয়ে গেছে। সরকার যখন পারমিশান দিচ্ছে তার মানে বিপ্লব অনেক আগেই হয়ে গেছে এতো কেবল কাগুজি খানাপুরতি, ভবিষ্যতে WHO এর কাছ থেকে সার্টিফিকেট নেওয়ার প্রসেস। তাই বলুন কেন একের পর এক রাজ্যে সেম ভুল হচ্ছিলো, দুধরনের টিকা একি ব্যাক্তিকে দেওয়ার রহস্য আজ সমজ মে আয়া। আমার কোন আপত্তি নেই ভালো যদি হয় হোক না ক্ষতি কি।
    Total Reply(0) Reply
  • Tarique Faiz ৩১ জুলাই, ২০২১, ৪:৩১ এএম says : 0
    আগে নেতা,মন্ত্রীগুলোর উপর ট্রায়াল হোক। জনগণের পয়সায় তারা প্রচুর সুযোগ-সুবিধে পেয়েছে,প্রচুর লুটেছে।
    Total Reply(0) Reply
  • Jaydeep Bhattacharya ৩১ জুলাই, ২০২১, ৪:৩১ এএম says : 0
    দুটো কে মিলিয়ে? এটা Vaccine বানাবেন নাকি painting? দেখবেন আবার Vaccine বানাতে গিয়ে বোমা বানিয়ে ফেলবেন না যেন।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত

২১ সেপ্টেম্বর, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন