Inqilab Logo

রোববার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১ আশ্বিন ১৪২৮, ১৮ সফর ১৪৪৩ হিজরী

দক্ষিণ-পূর্ব ইউরোপজুড়ে প্রচন্ড তাপদাহে দাবানল ও মৃত্যু

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২ আগস্ট, ২০২১, ১২:০০ এএম

কয়েক দশকের মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ তাপপ্রবাহ দক্ষিণ-পূর্ব ইউরোপ জুড়ে মৃত্যু ও বিপর্যয় সৃষ্টি করছে। বনের দাবানলের কারণে পুরো গ্রাম খালি করে দেয়া হয়েছে এবং সবাইকে মধ্য দুপুরে সরাসরি সূর্যের নীচে যেতে নিষেধ করা হয়েছে।

আফ্রিকা থেকে আসা গরম বাতাসে তাপপ্রবাহ সৃষ্ট হচ্ছে, তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রী সেলসিয়াস (১০৪ ফারেনহাইট) এর উপরে পৌঁছেছে এবং আবহাওয়াবিদরা আশঙ্কা করছেন যে, এ আবহাওয়া আগামী সপ্তাহ অব্যাহত থাকবে। গ্রীস, তুরস্ক, সার্বিয়া এবং বুলগেরিয়া এবং এ অঞ্চলের অন্যান্য অনেক দেশের কর্তৃপক্ষ দুপুরের সময় সরাসরি সূর্যালোক এড়াতে বাসিন্দাদের সতর্ক করছে, যখন অঞ্চল জুড়ে অগ্নিনির্বাপক কর্মীরা সম্পত্তি রক্ষার জন্য হিমশিম খাচ্ছে। তুরস্কে কয়েক ডজন দাবানল ইতোমধ্যেই বেশ কয়েকজনের প্রাণহানি ঘটিয়েছে এবং কর্মকর্তাদের মতে ৫০ জনেরও বেশি মানুষকে হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়েছে। দেশটির দক্ষিণে গ্রাম এবং সৈকত রিসোর্টগুলো থেকে বাসিন্দাদের সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

স্যাটেলাইট ইমেজে দেখা গেছে, ওই অঞ্চল জুড়ে ভয়াবহ দাবানলের কারণে সৃষ্ট ধ্বংসযজ্ঞ। তুরস্কে নিহতদের মধ্যে একটি বিবাহিত দম্পতি, ৮২ বছর বয়সী একজন বৃদ্ধ এবং ২৫ বছরের একজন স্বেচ্ছাসেবক যুবক রয়েছেন যিনি অগ্নিনির্বাপকদের কাছে পানি আনার সময় মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় নিহত হন। আজারবাইজান ঘোষণা করেছে যে, তারা হেলিকপ্টার এবং বিশেষ সরঞ্জামসহ সহায়তার জন্য শত শত স্বেচ্ছাসেবী পাঠাচ্ছে।

এথেন্সে তামাত্রা (৪০ ডিগ্রী সেলসিয়াস বা ১০৪ ফারেনহাইট) বেড়ে যাওয়ায় গ্রিসের কর্তৃপক্ষ জনসাধারণের শুক্রবার অপ্রয়োজনীয় ভ্রমণে না যাওয়ার জন্য সতর্ক করেছে। ইউরোপে রেকর্ড করা সবচেয়ে বেশি তাপমাত্রা ছিল এথেন্সে। ১৯৭৭ সালের ১০ জুলাই সেখানে রেকর্ড ৪৮ ডিগ্রী সেলসিয়াস (১১৮ ফারেনহাইট) তাপমাত্রা ছিল। জার্মানি এবং বেলজিয়ামে সাম্প্রতিক মারাত্মক বন্যা এবং কানাডা এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে অভ‚তপূর্ব তাপপ্রবাহের মতো চরম আবহাওয়া আবহাওয়া পরিবর্তনের কারণে আরও ঘন ঘন হয়ে উঠবে বলে আশা করা হচ্ছে।

জাতিসংঘের বিশ্ব আবহাওয়া বিভাগের জ্যেষ্ঠ আবহাওয়া বিজ্ঞানী মাইক কেনডন বলেন, ‘যদি আমরা বিশ্বব্যাপী চিন্তা করি, সম্প্রতি কিছু খুব গুরুতর আবহাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। যেমন কানাডায় ৪৯.৬ ডিগ্রী সেলসিয়াস (১২১.২৮ ফারেনহাইট) তাপমাত্রা, যা হচ্ছে সর্বকালের তাপমাত্রার রেকর্ড ‘জাতিসংঘের ডবিøউএমও বলছে যে, ২০২০ এখন পর্যন্ত রেকর্ড করা তিনটি উষ্ণতম বছরের মধ্যে একটি এবং ইউরোপের জন্য সবচেয়ে উষ্ণতম বছর হিসাবে রেকর্ড। সূত্র : স্কাই নিউজ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: দাবানল


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ