Inqilab Logo

সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২ আশ্বিন ১৪২৮, ১৯ সফর ১৪৪৩ হিজরী

শরণখোলায় পানিবন্দি গ্রামবাসীরা কেটে দিল পাউবো’র বাঁধ

বাগেরহাট জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২ আগস্ট, ২০২১, ৭:১২ পিএম

বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলায় এক সপ্তাহ ধরে পানিবন্দি থাকা ক্ষুব্ধ গ্রামবাসী কেটে দিল পানি উন্নয়ন বোর্ডের বেড়ি বাঁধ। গত ২৭ জুলাই থেকে পানিবন্দি থাকার পর সোমবার ভোর রাতে উপজেলার ধানসাগর ইউনিয়নের রাজাপুর বটতলা পয়েন্টে বাঁধ কেটে পানি নিষ্কাশন শুরু করে তারা। এদিকে সোমবার সকালে রায়েন্দা ইউনিয়নের দক্ষিণ রাজাপুর এবং খোন্তাকাটা ইউনিয়নের রাজৈর গ্রামের কালিয়ার খালে পানি উন্নয়ন বোর্ডের বেড়ি বাঁধ কাটতে গেলে পুলিশ গিয়ে তা বন্ধ করে দিয়েছে।

এলাকাবাসী জানান, গত ২৭ জুলাই থেকে তিনদিনে প্রায় ৭০০ মিলিমিটার বৃষ্টিতে পানিবন্দি হয়ে পরে উপজেলার প্রায় ৯০ ভাগ মানুষ। কিন্তু পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্মাণাধীন ৩৫/১ পোল্ডারের বেড়ি বাঁধে পর্যাপ্ত স্লুইসগেট নির্মাণ না করে অপরিকল্পিত ভাবে ছোট করে অল্প সংখ্যক স্লুইসগেট নির্মাণের কারণে পর্যাপ্ত পানি নিষ্কাশন হচ্ছে না। ফলে কৃষি খামার রাস্তা-ঘাট ও বিভিন্ন বাড়ি-ঘরে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়ে ৭০ হাজার মানুষ এক সপ্তাহ ধরে পানিবন্দি হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে। এক সপ্তাহের মধ্যে পানি নিষ্কাশন না হওয়ায় তারা ক্ষুব্ধ হয়ে বাঁধ কেটে দেয়।

এ ব্যপারে ধানসাগর ইউপি চেয়ারম্যান মাইনুল ইসলাম টিপু বলেন, রাতের আধারে কারা বাঁধ কেটেছে তা আমার জানা নেই। তবে পানিবন্দি হাজার হাজার মানুষের রান্নাবান্না বন্ধ এবং ঘর থেকে বের হতে না পেরে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছিল।

রায়েন্দা ইউপি চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান মিলন বলেন, পানি ব্যবস্থাপনার স্থায়ী সমাধানের জন্য সরকারিভাবে উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। কিন্তু সাধারণ মানুষ কষ্ট সহ্য করতে না পেরে হয়তো বাঁধ কেটেছে।

উপকূল রক্ষা বেড়ি বাঁধ প্রকল্পের সিইসি সাইফুল ইসলাম বলেন, বাঁধ নির্মাণ প্রকল্পের টিম লিডার মিস্টার হেরির নেতৃত্বে সোমবার ৫ সদস্যের একটি টিম সরেজমিন ঘুরে পাইপ স্থাপন করে দ্রুত পানি নিষ্কাশনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

শরণখোলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা খাতুনে জান্নাত বলেন, পানিবন্দি মানুষ অতিষ্ঠ হয়ে বাঁধ কেটেছে। গণহারে বাঁধ কাটার উদ্যোগ নিলে আমি তাদের বুঝিয়ে তা বন্ধ করেছি। সোমবার (৩ আগস্ট) থেকে পাইপ স্থাপনের মাধ্যমে দ্রুত পানি নিষ্কাশন শুরু করা হবে। এছাড়া স্থায়ী সমাধানের জন্য পর্যাপ্ত স্লুইসগেট নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বাগেরহাট


আরও
আরও পড়ুন