Inqilab Logo

সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২ আশ্বিন ১৪২৮, ১৯ সফর ১৪৪৩ হিজরী

মৌলভীবাজার নতুন করে ৬৪ জন করোনায় আক্রন্ত : শনাক্তের হার ২৯ দশমিক

মৌলভীবাজার জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৩ আগস্ট, ২০২১, ৪:১১ পিএম

গত ২৪ ঘণ্টায় মৌলভীবাজার জেলায় করোনা শনাক্ত হয়েছেন আরও ৬৪ জন। গতকাল আক্রান্ত সংখ্যা ছিল ১৯০ জন। সে হিসেবে আক্রান্ত কমে এসেছে। তবে অনেক রিপোর্ট এখনও আসেনি সিলেট থেকে।
সিভিল সার্জন অফিস সূত্রে জানা যায়, পিসিআর ল্যাব মৌলভীবাজারে না থাকায় নমুনা সিলেটে পাঠাতে হয়। যে কারণে রিপোর্ট আসকে ২-৩ দিন সময় লেগে যায়।
মঙ্গলবার ৩ আগস্ট সিভিল সার্জন অফিসের কোভিড-১৯ কোয়ারেন্টাইন ও আইসোলেশনের দৈনিক প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে।
সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের পিসিআর ল্যাবে মৌলভীবাজার জেলায় ২১৬ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৬৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়। শনাক্তের হার ২৯ দশমিক ৬৩ শতাংশ।
নতুন শনাক্ত ৬৪ জনের মধ্যে মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা হাসপাতালের ৬ জন, জুড়ীর ৫ জন, শ্রীমঙ্গলের ৬ জন, কমলগঞ্জের ১৬ জন, বড়লেখার ২ জন, কুলাউড়ার ২২ জন, রাজনগরের ৭ জন। এ নিয়ে জেলায় ৫ হাজার ৮১৩ জনকে করোনায় আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত করা হয়েছে।
জেলা সিভিল সার্জন ডাঃ চৌধুরী জালাল উদ্দিন মুর্শেদ জানান, গত ২৪ ঘন্টায় ২১৬ টি নমুনা পরীক্ষায় পাঠালে ৬৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। পরীক্ষা অনুযায়ী আক্রান্তের হার ২৯.৬৩ শতাংশ। এ পর্যন্ত জেলায় ৫৮১৩ জনের শরিরে করোনা সনাক্ত হয়। সুস্থ হয়েছেন ৪,০০২ জন। হাসপাতালের করোনা ইউনিটে করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে ভর্তি রয়েছেন ৬৮ জন।
তিনি আরও জানান, জেলার ২০টি কেন্দ্রে টিকা রেজিষ্ট্রেশন ও টিকা দেয়ার কাজ চলছে। প্রতিদিন ৪ থেকে সাড়ে ৫ হাজার টিকা দেয়া হচ্ছে। পাশাপাশি মৌলভীবাজার পৌর সভার উদ্যেগে ৭টি বুথে টিকা রেজিষ্ট্রেশন চলছে। সরকারী হিসেবে করোনায় আক্রান্ত হয়ে জেলায় মৃত্যুবরণ করেন ৬১ জন। তবে করোনায় আক্রান্ত মৃত্যুবরণকারী পরিবারের সদস্য ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধি থেকে প্রাপ্ত তথ্যে বে-সরকাররি হিসেবে জেলার বাহিরে চিকিৎসা নিতে গিয়ে মোট করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৯৩ জন।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস


আরও
আরও পড়ুন