Inqilab Logo

বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭ আশ্বিন ১৪২৮, ১৪ সফর ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

কাবুলে শক্তিশালী বিস্ফোরণ-গোলাগুলি, হামলাকারীসহ নিহত ৬

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৪ আগস্ট, ২০২১, ১০:৫৫ এএম

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে শক্তিশালী বিস্ফোরণের পর ব্যাপক গোলাগুলির খবর পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় তিন হামলাকারীসহ আরো ৩ জন বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার নিরাপত্তা বেষ্টিত গ্রিন জোন এলাকার পাশে এ ঘটনা ঘটে। একজন সিনিয়র নিরাপত্তা কর্মকর্তা বলেন, স্থানীয় সময় মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে প্রতিরক্ষামন্ত্রী ও কয়েকজন পার্লামেন্ট সদস্যের বাড়ির পাশে গাড়ি বোমা হামলা চালানো হয়।

হামলার পর প্রতিরক্ষামন্ত্রী বিসমিল্লাহ মোহাম্মদি জানান যে, তার ও তার পরিবারের কেউ এ হামলায় আক্রান্ত হননি। তবে তার কয়েকজন নিরাপত্তা রক্ষী আহত হয়েছেন।
স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মিরওয়াইস স্টেনিকজাই বেলন, প্রথম বিস্ফোরণের পরেই বন্দুকধারীরা এই এলাকায় প্রবেশ করেন। এ সময় তিন হামলাকারী নিরাপত্তারক্ষীদের গুলিতে নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন স্টেনিকজাই।

তিনি বলেন, এ ঘটনার পরই পুলিশ অভিযান শুরু করে। ওই এলাকার সব রাস্তা বন্ধ করে দেওয়া হয়। সব হামলাকারীর মৃত্যু নিশ্চিত হওয়ার পর নিরাপত্তা বাহিনীর অভিযান শেষ হয়েছে।

গাড়ি বোমা বিস্ফোরণের দুই ঘণ্টারও কম সময়ের মধ্যে আরেকটি জোরালো বিস্ফোরণে কাবুলের একই এলাকা কেঁপে ওঠে। এরপরই ব্যাপক গোলাগুলি শুরু হয়।
কাবুল পুলিশ প্রধানের মুখপাত্র ফেরদাউস ফারামারজ বলেন, এলাকার শত শত বাসিন্দাকে নিরাপদ স্থানে সরানো হয়েছে। আরও হামলাকারী ওই এলাকায় লুকিয়ে থাকার আশঙ্কায় নিরাপত্তারক্ষীরা ঘরে ঘরে তল্লাশি চালায়।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র দস্তগীর নাজারি জানিয়েছেন, কমপক্ষে ১০ জন হতাহত হয়েছে। তাদের রাজধানীর একটি হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।
আফগানিস্তান জুড়ে তালেবানদের সহিংসতা বৃদ্ধির মধ্যেই কাবুলের সবচেয়ে সুরক্ষিত অঞ্চলগুলোর একটিতে এই হামলা চালানো হলো। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন সেপ্টেম্বরের মধ্যে মার্কিন সেনাদের আফগানিস্তান ত্যাগের ঘোষণা দেওয়ার পর তালেবানরা বড় শহরগুলোতে হামলা শুরু করেছে।
হামলার সময় শহরের বাণিজ্যিক কেন্দ্র শাহর-ই-নওয়ের প্রধান রাস্তাগুলো যানবাহনে পূর্ণ ছিল, কারণ মানুষ এলাকা ছেড়ে পালানোর চেষ্টা করছিল। হামলার পর গোটা এলাকা জনশূন্য হয়ে পড়ে।

বিস্ফোরণের কয়েক মিনিট পর কাবুলে শত শত বেসামরিক নাগরিক রাস্তায় নেমে আসে এবং আফগান সরকারী বাহিনী এবং তালেবানদের বিরোধিতার প্রতি তাদের সমর্থন ব্যক্ত করার জন্য আল্লাহু আকবর (আল্লাহ সর্বশ্রেষ্ঠ) স্লোগান দেয়।
আফগান বাহিনী এবং তালেবানদের মধ্যে সংঘর্ষ দেশজুড়ে তীব্রতর হয়েছে এবং বিদ্রোহী দলটি চেক পয়েন্ট, ট্রেডিং পোস্ট এবং অবকাঠামো প্রকল্পের উপর নিয়ন্ত্রণ অর্জন করেছে।

আফগান বাহিনী দক্ষিণের লস্করগাহ শহরের বাসিন্দাদের কাছে তাদের বাড়ি ঘর ছেড়ে তালেবানরা যে সব এলাকায় নিয়ন্ত্রণ নিচ্ছে সেখান থেকে দূরে থাকার আবেদন জানিয়েছে, কারণ তারা এই দলের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করতে চায়।
তালেবানরা জানিয়েছে, কাবুলে তাদের যোদ্ধারা মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় ময়দান ওয়ার্দাক প্রদেশের একজন জেলা গভর্নরকে হত্যা করেছে। বিদ্রোহী দলের একের পর এক হত্যাকাণ্ডের সর্বশেষ ঘটনা। সূত্র : রয়টার্স ও আল জাজিরা



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আফগানিস্তান


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ