Inqilab Logo

রোববার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪ আশ্বিন ১৪২৮, ১১ সফর ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থীদের বার্ষিক বনভোজন অনুষ্ঠিত

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৪ আগস্ট, ২০২১, ৫:০৮ পিএম

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, সিলেটের প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের বার্ষিক বনভোজন অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত রোববার (১ আগস্ট) ‘তোমাদের কারও কি মনে পড়ে সেই এক কিলোর কথা, যেই পথ ছিল আমাদের স্বপ্নে আঁকা সবুজের মাঝে রোঁদের উঁকি ঝুঁকি আর দু’পাশে বয়ে চলা লেকের সুনসান নিরবতা’-এই স্লোগানে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা এই আয়োজন করে।

নিউইর্য়কের এস্টোরিয়া পার্কে আয়োজিত এই বনভোজনে নিউইয়র্ক, নিউজার্সি, পেনসিলভেনিয়ার বিভিন্ন পেশায় কর্মরত বাংলাদেশী বংশোদ্ভুত বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা ও তাদের পরিবারসহ প্রায় দেড় শতাধিক সদস্য অংশ নেন।

বনভোজন শুরু হয় সকাল এগারোটায়। সকাল থেকেই নিউইর্য়কের বিভিন্ন স্থান থেকে অংশগ্রহনকারীরা পার্কে জড়ো হতে থাকে। সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে সবার মাঝে সকালের নাস্তা বিতরণ করা হয় । এরপর শুরু হয় মূল পর্ব। এ পর্বে ছিল ছোট ও বড়দের খেলাধুলা , ফুটবল, পিলোপাস, বিভিন্ন বয়সের বাচ্চাদের দৌড়, হাডি ভাঙ্গাসহ অন্যান্য প্রতিযোগিতা। এতে সাস্টিয়ান পরিবার ও সন্তানেরা অংশগ্রহণ করেন। খেলাধুলা শেষে পরিবেশন হয় দুপুরের খাবার ।

মধ্যাহ্ন ভোজের পর পার্কের মনোরম পরিবেশে শুরু হয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম ব্যাচ থেকে শুরু করে ২৮তম ব্যাচ পর্যন্ত প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের ফটোসেশন ও পরিচয় পর্ব। পুরষ্কার বিতরণের পূর্বে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন বিশ্বদ্যিালয়ের ফিজিক্যাল সায়েন্সের সাবেক ডীন ও পদার্থ বিজ্ঞানের সাবেক বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ড. হাবিবুল আহসান , পেট্রোলিয়াম এন্ড মাইনিং ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষক ড. মো. শফিকুল ইসলাম, আইপিই বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক চৌধুরী লুতফর রহমান, ইলেকট্রনিক এন্ড কম্পিউটার সায়েন্স বিভাগের সাবেক শিক্ষার্থী ও নিউইর্য়ক আই এন্ড ইয়ার ইনফারমেরী অফ মাউন্ট সিনাই এর সহযোগী অধ্যাপক ড. আলাউদ্দিন ভুঁইয়া, বিশ্ববিদ্যালয় তথা অর্থনীতি বিভাগের প্রথম ব্যাচের প্রাক্তন শিক্ষার্থী মোহাম্মদ ফরিদ আলম ও মাসুদুর রহমান, ইলেকট্রনিক এন্ড কম্পিউটার সায়েন্স বিভাগের তৃতীয় ব্যাচের শিক্ষার্থী কামরুজ্জামান শাহীন এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার এন্ড পলিমার সায়েন্স (সিইপি) বিভাগের দ্বিতীয় ব্যাচের ছাত্র ও এনওয়াইপিডি লেফট্যানেন্ট পদে সদ্য পদোন্নতিপ্রাপ্ত সাজেদুর রহমান (লিপন)। অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, ভবিষ্যতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক সিনিয়র এবং জুনিয়র শিক্ষার্থীরা সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে আমাদের সাস্টিয়ান বন্ধনকে নতুনভাবে ঢেলে সাজাবে যা পরবর্তীতে সকলের কাছে একটি মাইলফলক হয়ে থাকবে বলে আমরা এই আশা ব্যক্ত করি। তারা বক্তব্যে ক্যাম্পাসের স্মৃতিচারণের সময় আবেগ আপ্লুত হয়ে যান এবং পাশাপাশি আয়োজক কমিটিকে ধন্যবাদ জানান।

পুরো অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্ত¡াবধানে ছিলেন বেলায়েত চৌধুরী, অসীম কুমার সরকার, সায়েদ জাবেদুর মুনির, মো. আবুল কাশেম, আহমেদুর রহমান রণি, এহেছানুল হক (টিপু), মাহবুব আহমেদ মাসুম, আজহার আহমেদ, মো. তিতুমীর আলম, মো. মইনুল হোসেন বাবু, মো. সাদিকুর রহমান সুফিয়ান, শাকির হোসেন, তাপুতী চৌধুরী, অরুপ রতন, রাজেশ কুমার শাহা, সঙ্গমিত্র দেব মুন্নী, মৌসুমি, আল-আমিন, সিদ্দিকা চৌধুরী, হুমাইয়ারা সুলতানা, জাফর আহমেদ, ইমতিয়জ চৌধুরী, মো আবু বকর সিদ্দিক, আলমগীর হোসেন, তৌফিক আহমেদ, ইকবাল, শফিক প্রমুখ।

অনুষ্ঠান পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন পিকনিক আয়োজক কমিটির আহবায়ক বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন বিভাগের ৪র্থ ব্যাচের শিক্ষার্থী বেলায়েত চৌধুরী। এদিকে বিভিন্ন ইভেন্ট পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন সিইপি বিভাগের দ্বিতীয় ব্যাচের ছাত্র সাজেদুর রহমান (লিপন), অর্থনীতি বিভাগের ৭ম ব্যাচের শিক্ষার্থী অসীম কুমার সরকার, সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের ৬ষ্ঠ ব্যাচের শিক্ষার্থী মাহবুব আহমেদ মাসুম, পি এস এ ৮ম ব্যাচের শিক্ষার্থী আজহার আহমেদ। এছাড়া পিকনিকের রেজিস্ট্রেশনের দায়িত্বে ছিলেন শাকির হোসেন ও মো. সাদিকুর রহমান সুফিয়ান।

বনভোজনে বিভিন্ন বয়সী ছেলেমেয়েদের জন্য আয়োজন করা হয় দৌড় প্রতিযোগিতা। সাত বছর এর নিচে মেয়েদের দৌড় প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ান হয় তানিয়া, দ্বিতীয় ও তৃতীয়স্থান অর্জনকারী যথাক্রমে আলিশা ও শিল্পা। আট বছর ও এর উপরে মেয়েদের দৌড় প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ান হয় আরিবা, দ্বিতীয় ও তৃতীয়স্থান অর্জনকারী যথাক্রমে নানজিবা ও ফাতিমা । চার বছরের উপরে এবং সাত বছর এর নিচে ছেলেদের দৌড় প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ান হয় জুনাইদ, দ্বিতীয় ও তৃতীয়স্থান অর্জনকারী যথাক্রমে সাদিক ও আরিয়ান। আট বছর ও এর উপরে ছেলেদের দৌড় প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ান হয় রাজদিদ, দ্বিতীয় ও তৃতীয়স্থান অর্জনকারী যথাক্রমে প্রিতল ও তাহিম। পিলো পাস প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ান হয় জান্নাত, দ্বিতীয় তৃতীয় স্থান অর্জনকারী যথাক্রমে ফারিহা ও নিশো। মহিলাদের হাডি ভাঙ্গা প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ান হয় নিশাথ সোমা, দ্বিতীয় ও তৃতীয়স্থান অর্জনকারী যথাক্রমে ফরিদা ইয়াসমিন ও তিথি। এদিকে সিনিয়র ও জুনিয়র শিক্ষার্থীদের মধ্যে প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুিষ্ঠত হয়। এতে জুনিয়র ফুটবল টিম সিনিয়র টিমকে ৪-১ গোলে পরাজিত করে।

খেলাধুলায় অংশগ্রহণকারী বিজয়ীদের হাতে পুরষ্কার তুলে দেন অনুষ্ঠানের আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ , বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম ব্যাচের প্রাক্তন শিক্ষার্থী মোহাম্মদ ফরিদ আলম ও মাসুদুর রহমান ও অনুষ্ঠানের আহবায়ক বেলায়েত চৌধুরী ।

এদিকে নিউইর্য়ক পুলিশ বিভাগের গুরুত্বপূর্ণ পদে এই প্রথম শাবির কোন প্রাক্তন ছাত্রের পদায়ণে লেফট্যানেন্ট সাজেদুর রহমানের হাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে বিশেষ সম্মাননা পুরুস্কার তুলে দেন অর্থনীতি বিভাগের ১৪ তম ব্যাচের শিক্ষার্থী এহেছানুল হক (টিপু) ।

পিকনিক কমিটির আহবায়ক বেলায়েত চৌধুরী অনুষ্ঠান সফল করার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ জানানোর পাশাপাশি ভবিষ্যতে আরো বড় পরিসরে এই ধরনের আয়োজনে সাস্টিয়ানদের ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহবান জানিয়েছেন ।

প্রবাস জীবন বিভাগে সংবাদ পাঠানোর ঠিকানা
[email protected]



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: প্রবাস জীবন


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ