Inqilab Logo

শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২ আশ্বিন ১৪২৮, ০৯ সফর ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

লকডাউন বাড়লো আরো ৫ দিন, প্রজ্ঞাপন জারি

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৫ আগস্ট, ২০২১, ১২:২১ পিএম

চলমান কঠোর লকডাউনের মেয়াদ আগামী ১০ আগস্ট মধ্যরাত ১২টা পর্যন্ত বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।
আজ বৃহস্পতিবার (৫ আগস্ট) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এ প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।
এর আগে মঙ্গলবার সচিবালয়ে আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা শেষে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক জানান, বিধিনিষেধের মেয়াদ ১০ আগস্ট পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। ১১ আগস্ট থেকে খুলবে সব ধরনের সরকারি-বেসরকারি অফিস, দোকানপাট, শপিংমল। সীমিত পরিসরে চলবে গণপরিবহণ।
তিনি বলেন, ১১ আগস্ট থেকে এই কঠোর বিধিনিষেধ আর থাকবে না। স্বাস্থ্যবিধি মেনে সবকিছু ধীরে ধীরে খুলে দেওয়া হবে। তবে এই সময়ের মধ্যে সবাইকে ভ্যাকসিন নিতে হবে।
মন্ত্রী বলেন, ১১ আগস্ট থেকে দোকানপাট খুলে দেওয়া হবে। ওইদিন থেকে সড়কে পুনরায় গণপরিবহণ চলাচল করবে। ১০ তারিখ পর্যন্ত বিধিনিষেধের সময়ের মতো চলবে, ১১ তারিখ থেকে খুলবে অফিস।
গত ২৩ জুলাই সকাল ৬টা থেকে ১৪ দিনের কঠোর লকডাউন দেয় সরকার। সেই লকডাউনের মেয়াদ আজ বুধবার রাত ১২টায় শেষ হবে।



 

Show all comments
  • ম নাছিরউদ্দীন শাহ ৫ আগস্ট, ২০২১, ৫:০২ পিএম says : 0
    রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ ব‍্যাক্তিরা আছেন। স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা আছেন বিশ্ব পরিস্থিতি এখনো মহামারী মৃত্যু আক্রান্ত মুক্ত নয়। এই মুহুর্তে করোনা সময়ের সব চায়তে ভয়ংকর পরিস্থিতি দেশের আমাদের বাংলাদেশের। হঠাৎ করে ইন্দোনেশিয়া বিধি নিষেধ তুলে নিয়ে এখন ভয়ানক ভয়াবহ মৃত্যু নগরী ইন্দোনেশিয়া প্রতিদিন দের হাজারের মত মৃত্যু হচ্ছে। বাংলাদেশ গন বসতি ইতিমধ্যে ডেল্টাভ‍্যারিযেন্টের আক্রমণ হচ্ছে প্রতিদিন ১৫হাজার কাছাকাছি আক্রান্ত হচ্ছে। নিয়ন্ত্রণ স্বাভাবিক পরিস্থিতি না আসা পযর্ন্ত কি করা উচিৎ উপযুক্ত কতৃপক্ষের চিন্তার বিষয় যদি সবকিছুই স্বাভাবিক পরিস্থিতির মাঝে ছেড়ে দেওয়া হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাহিরে চলে যায় দায়ী কে হবে??জীবন জীবিকার অর্থনীতির চাকা সচল রেখেও কিডাবে ভাইরাসের গতি পকৃতি স্বাভাবিক করা য়ায় জরুরী সিদ্ধান্ত নিন। আমরা যুদ্ধের মাঝেই জর্ম নেওয়া জাতি এত তাড়াতাড়ি পরাজিত হয়ে যাবো??নিশ্চয়ই না। রাষ্ট্রের নীতি নিদ্ধারকগন বিশ্বের ইন্দোনেশিয়া সামনে উদাহরণস্বরূপ হঠাৎ সব বিধিব্যবস্থা উঠিয়ে নিয়ে ভয়ংকর পরিস্থিতি মাঝে আছেন। আমাদের কি করা উচিৎ?????আবেগ দিয়ে নয়। বিবেক দিয়ে চলতে হবে ভাইরাস নিয়ন্ত্রণের পরামর্শ দিবেন বিশেষজ্ঞ ডাক্তার গন। রাষ্ট্র সবাই বিশেষজ্ঞ হয়ে গেলে মহাবিপদ আমাদের জন্য অপেক্ষা করছে। কঠিন মারাত্মক পরিস্থিতি মৃত্যুর মিছিল চলছে প্রতি দিন। মানুষ স্বাভাবিক ভয় নেই আতঙ্ক নেই স্বাস্থ্যবিধি নেই ইচ্ছেমতো। যে মুহুর্তে সমগ্র জাতির স্বার্থেই প্রযোজন কঠোর কারফিঊ একেদারে সবকিছুই বন্ধ ১৪দিন। সেখানেই বিপরীতে সব কিছু স্বাভাবিক হচ্ছে। আল্লাহ্ জানেন আমাদের পরিস্থিতি কি হয়। প্রার্থনা করছি আল্লাহ্ আমাদের হেফাজত করবেন। আমিন।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ