Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ০৪ কার্তিক ১৪২৬, ২০ সফর ১৪৪১ হিজরী

মৎস্যমন্ত্রীকে দুই আ’লীগ নেতার চ্যালেঞ্জ পৃথক উকিল নোটিশ

প্রকাশের সময় : ১ অক্টোবর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সংবাদদাতা : ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১ নাসিরনগর এলাকা থেকে নির্বাচিত আওয়ামী লীগ দলীয় সাংসদ ও মৎস্য-প্রাণী সম্পদমন্ত্রী এড. সায়েদুল হককে উকিল নোটিশ পাঠিয়েছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি র, আ, ম, উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি ও সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আল মামুন সরকার। সম্প্রতি বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় মৎস্যমন্ত্রীর বিবৃতিতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে নাসিরনগর উপজেলার হরিপুর ও গুনিয়াউক ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থীর মনোনয়নে ১ কোটি ১৫ লাখ টাকার মনোনয়ন বাণিজ্যের অভিযোগ করায় সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক মানহানির অভিযোগ করে ব্যক্তিগতভাবে পৃথক পৃথক চিঠিতে উকিল নোটিশ পাঠান। গত বুধবার উকিল নোটিশ করেন সভাপতি উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি এবং বৃহস্পতিবার উকিল নোটিশ পাঠান সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার। গত বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে এসব তথ্য জানান জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার। এসময় তিনি জানান, উকিল নোটিশে সাত দিনের সময় দিয়ে মৎস্যমন্ত্রীকে আমার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ প্রমাণের চ্যালেঞ্জ জানিয়েছি অথবা অভিযোগ প্রত্যাহার করে ক্ষমা প্রার্থনার আহ্বান জানিয়েছি। অন্যথায় আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তিনি বলেন, বিগত ইউপি নির্বাচনে মৎস্যমন্ত্রী এককভাবে বিতকিত কার্যক্রম করায় দলের গঠনতন্ত্র মোতাবেক গত ২৫ জুলাইয়ের জেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সংসদের সভায় তাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদান করা হয়। কিন্তু তিনি এ নোটিশের জবাব না দেয়ায় গত ২৩ সেপ্টেম্বরের জেলা আওয়ামী লীগের সভায় সর্বসম্মতভাবে মৎস্যমন্ত্রী সায়েদুল হককে জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য পদ থেকে অব্যাহতি প্রদানের জন্য কেন্দ্রীয় কমিটিতে সুপারিশ পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এ কারণে তিনি জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে মিথ্যা, বানোয়াট, কল্পনা প্রসূত মনোনয়ন বাণিজ্যের অভিযোগ আনেন। যা চরম বিদ্বেষপূর্ণ ও মানহানিকর। একই সময়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের নামে মৎস্যমন্ত্রী সায়েদুল হকের করা মনোনয়ন বাণিজ্যের অভিযোগের প্রতিবাদ করেছেন নাসিরনগর হরিপুর ইউনিয়নে নির্বাচিত চেয়ারম্যান দেওয়ান আতিকুর রহমান আঁখি ও গুনিয়াউক ইউনিয়নের পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থী গোলাম ছামদানী।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন