Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ০৩ কার্তিক ১৪২৮, ১১ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

পাকিস্তানের সাথে সম্পর্কের উন্নয়ন চায় যুক্তরাষ্ট্র

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১১ আগস্ট, ২০২১, ৭:১৫ পিএম

পাকিস্তানের সেনাপ্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়াকে ফোন করে মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী লয়েড অস্টিন যুক্তরাষ্ট্র-পাকিস্তান সম্পর্কের উন্নতি অব্যাহত রাখতে ওয়াশিংটনের আগ্রহের কথা জানিয়েছেন। মঙ্গলবার দেয়া এক বিবৃতিতে এই তথ্য জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা দফতর পেন্টাগন।

বিবৃতিতে বলা হয়, সেক্রেটারি অস্টিন যুক্তরাষ্ট্র-পাকিস্তান সম্পর্ক উন্নত করতে এবং এই অঞ্চলে দুই দেশের একাধিক অভিন্ন স্বার্থ ভাগ করে নেয়ার বিষয়ে তার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। পেন্টাগনের প্রেস সেক্রেটারি জন কিরবি বলেন, সচিব অস্টিন এবং জেনারেল বাজওয়া আফগানিস্তানের চলমান পরিস্থিতি, আঞ্চলিক নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতা এবং দ্বিপক্ষীয় প্রতিরক্ষা সম্পর্ক নিয়ে আরও বিস্তৃতভাবে আলোচনা করেছেন। তিনি বলেন, অস্টিন এই অঞ্চলে নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতার পারস্পরিক লক্ষ্য নিয়েও আলোচনা করেছেন।

এক সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে কিরবি বলেন, আফগানিস্তান ও পাকিস্তানের সীমান্তে যে নিরাপদ আশ্রয়স্থল রয়েছে সে বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্র পাকিস্তানি নেতৃত্বের সঙ্গে কথোপকথন চালিয়ে যাচ্ছে। তিনি বলেন, ‘আমরা মনে রাখছি যে সেই নিরাপদ আশ্রয়গুলো কেবল আফগানিস্তানের অভ্যন্তরে আরও নিরাপত্তাহীনতা এবং আরও অস্থিতিশীলতার উৎস সরবরাহ করছে।’ তিনি আরও বলেন, ‘পাকিস্তানি নেতাদের সঙ্গে সেই বিষয়ে আলোচনা নিয়ে আমরা দুশ্চিন্তাগ্রস্ত নই ‘

কিরবি বলেন, ‘আমরা এটাও মনে রাখি যে পাকিস্তান এবং পাকিস্তানি জনগণও সেই অঞ্চল থেকে উদ্ভূত সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের শিকার হয়। সুতরাং, আমাদের সকলেরই সেই নিরাপদ আশ্রয়স্থল বন্ধ করার গুরুত্ব এবং তালেবান বা অন্যান্য সন্ত্রাসী নেটওয়ার্ক দ্বারা বিভেদ বপনের জন্য ব্যবহার না করার গুরুত্ব সম্পর্কে তাদের একটি সম্যক ধারণা রয়েছে। তিনি বলেন, ‘এবং আবার, আমরা পাকিস্তানিদের সাথে সব সময় সেই বিষয়ে আলোচনা করছি।’

আফগানিস্তানে ভারত ও পাকিস্তানের কী ভূমিকা থাকা উচিত, জানতে চাইলে পেন্টাগনের মুখপাত্র বলেন, ‘আমরা চাই প্রতিবেশী দেশগুলো যাতে এমন পদক্ষেপ না নেয়, যা আফগানিস্তানের পরিস্থিতি আগের চেয়ে আরও বিপজ্জনক করে তোলে এবং আন্তর্জাতিক চাপ প্রয়োগের চেষ্টা অব্যাহত রাখতে চায়। আমরা এই যুদ্ধের একটি আলোচিত শান্তিপূর্ণ রাজনৈতিক নিষ্পত্তি চাই।’ সূত্র : ডন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ