Inqilab Logo

বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৫ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

ডেলিভারি পরিবহনে গতি

চট্টগ্রাম বন্দরে কমলেও ডিপোতে এখনো কন্টেইনারের স্ত‚প

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১৩ আগস্ট, ২০২১, ১২:০০ এএম

আমদানি পণ্যবাহী কন্টেইনার ডেলিভারি পরিহনে গতি আসছে। আর তাতে চট্টগ্রাম বন্দরে কন্টেইনারের স্ত‚প কমে আসছে। তবে ১৯টি বেসরকারি কন্টেইনার ডিপোতে এখনও ধারণ ক্ষমতার কাছাকাছি কন্টেইনার জমে আছে।

লকডাউনে শিল্প কারখানা বন্ধের অজুহাতে কারখানা মালিক ও আমদানিকারকরা পণ্য ডেলিভারি না নেওয়ায় চট্টগ্রাম বন্দরে আমদানি কন্টেইনারের স্ত‚প বাড়তে থাকে। অন্যদিকে সিঙ্গাপুর ও কলম্বো বন্দরে জটের কারণে রফতানি পণ্যবাহী কন্টেইনারের স্ত‚প জমে বেসরকারি ডিপোগুলোতে। বন্দরের ইয়ার্ডসমূহে জট পরিস্থিতি এড়াতে সব ধরনের পণ্যবাহী কন্টেইনার বেসরকারি ডিপোতে (আইসিডি) সরিয়ে নেয়ার অনুমোদন দেয়া হয়। তবে তাতেও পরিস্থিতির তেমন উন্নতি হয়নি।

এরপর লকডাউনের মধ্যে গত ৫ আগস্ট থেকে কল-কারখানা খুলে দেয়া হয়। মূলত এরপর থেকে কন্টেইনার ডেলিভারি ও পরিবহনে গতি ফিরতে শুরু করে। বিজিএমইএ’র প্রথম সহ-সভাপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম বলেন, কল-কারখানা খোলার পর থেকে আমদানি পণ্যবাহী কন্টেইনার পরিবহন ডেলিভারি বেড়েছে। অন্যদিকে রফতানি পণ্যবাহী কন্টেইনারের সংখ্যাও কমেছে। এখনও সিঙ্গাপুর এবং কলম্বো বন্দরে জট রয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, তাতে আমদানি পণ্যবাহী কন্টেইনারের সংখ্যাও কমে গেছে। আগামী কিছুদিনের মধ্যে পরিস্থিতি পুরোপুরি স্বাভাবিক হবে বলে জানান তিনি।

বন্দর সূত্র জানায়, কল-কারখানা খুলে দেয়ার পর চট্টগ্রাম বন্দরে কন্টেইনারের স্ত‚প ধীরে ধীরে কমতে থাকে। তবে ডিপোগুলোতে কন্টেইনারের সংখ্যা এখনও স্বাভাবিকের চেয়ে অনেক বেশি। গতকাল বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ১৯টি ডিপোতে ৬১ হাজার ১৯টিইইউএস কন্টেইনারের স্ত‚প জমেছিল। ডিপোগুলোর সম্মিলিত ধারণক্ষমতা ৭৮ হাজার ৭শ টিইইউএস। স্ত‚পকৃত কন্টেইনারের মধ্যে আমদানি পণ্যবাহী কন্টেইনার ১৫ হাজার ১৪ টিইইউএস। রফতানি কন্টেইনার রয়েছে ছয় হাজার নয় টিইইউএস। আর খালি কন্টেইনারের সংখ্যা ৩৯ হাজার ৯১৬ টিইইউএস।

চট্টগ্রাম বন্দরের সচিব মো. ওমর ফারুক ইনকিলাবকে বলেন, গত কয়েকদিনে কন্টেইনার ডেলিভারি পরিবহন বেড়েছে। বন্দরের ইয়ার্ডে কন্টেইনারের সংখ্যা কমে ৩৫ হাজার টিইইউএস এ নেমে এসেছে। যা সর্বোচ্চ ধারণক্ষমতার (৪৯ হাজার ১০০ টিইইউএস) অনেক নিচে। কন্টেইনার খালাস, ডেলিভারি এবং পরিবহন স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে এসেছে বলেও জানান তিনি।
বেসরকারি ডিপো মালিকদের সংগঠন বিকডার সেক্রেটারি রুহুল আমিন সিকদার বলেন, ডিপো থেকে কন্টেইনার ডেলিভারি পরিবহন বাড়ছে। তবে খালি কন্টেইনারের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় ডিপোগুলোতে স্বাভাবিক কার্যক্রম বিঘিœত হচ্ছে। খালি কন্টেইনার শিপমেন্ট করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আমদানি পণ্যবাহী

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ