Inqilab Logo

রোববার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০১ কার্তিক ১৪২৮, ০৯ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

‘গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠায় আন্দোলনের বিকল্প নেই’

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৭ আগস্ট, ২০২১, ১২:০১ এএম

গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠায় আন্দোলনের বিকল্প নেই বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। তিনি বলেন, আসুন আর কোনো বিভেদ নয়, ঐক্যবদ্ধভাবে খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের নেতৃত্বে একটি সফল আন্দোলন গড়ে তুলি। গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠায় যা যা করা প্রয়োজন আমাদের করতে হবে। এই আন্দোলনে মহিলাদলসহ দলের সব পর্যায়ের নেতাকর্মীদের রাজপথে নামতে হবে। গতকাল সোমবার রাজধানীর শাজাহানপুরে জাতীয়তাবাদী মহিলা দল আয়োজিত ‘গণতন্ত্রের মাতা খালেদা জিয়ার সুস্থতা, তার দীর্ঘায়ু ও মুক্তি কামনায়› দোয়া মাহফিল এবং গরীবদের মাঝে বস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস’র বাড়ির আঙ্গিনায় এই অনুষ্ঠানে মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাসের সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য দেন-সাবেক এমপি নিলোফার চৌধুরী মনি, হেলেন জেরীন খান প্রমুখ। এরপর নয়াপল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচতলায় জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দলের ঢাকা মহানগর দক্ষিনের একটি কর্মসূচিতে যোগ দেন গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি, সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা এবং প্রয়াত আরাফাত রহমান কোকোর রুহের শান্তি কামনা ও শ্রমিক দলের সভাপতি আনোয়ার হোসাইন ও সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম নাসিমের আশু রোগমুক্তি ও সুস্থতা কামনায় মিলাদ ও দোয়া মাহফিল হয়।

এতে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ শ্রমিকদলের সভাপতি কাজী আমির খসরু সভাপতিত্বে আরো ছিলেন বিএনপি নেতা আব্দুস সালাম, ইউনুস মৃধা, রফিকুল আলম মজনু, সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, শ্রমিক দলের মাহবুবুর রহমান বাদল, কাজী শাহ আলম রাজা, মোস্তাফিজুর রহমান মজুমদার, লেবারপার্টির মোস্তাফিজুর রহমান ইরান প্রমুখ।
মহিলা দলের অনুষ্ঠানে গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার জন্মদিনও ব্যতিক্রম ভাবে পালন করা হচ্ছে। যেদিন জন্মদিন পালন করার কথা ছিল সেদিন না করে আগে পিছে করা হচ্ছে। এই ব্যতিক্রম থেকে বের হওয়ার জন্যই কিন্তু একটি আন্দোলন দরকার।

মুক্তিযুদ্ধে জিয়াউর রহমানের ভূমিকার প্রশংসা করে তিনি বলেন, স্বাধীনতা যুদ্ধের সূচনা করেছেন জিয়াউর রহমানের ঘোষণার মধ্য দিয়ে। এই যুদ্ধে অনেকেরই অবদান রয়েছে এ কথা অস্বীকার করার কিছু নাই। কিন্তু মনে রাখতে হবে দেশটা ভাষণের মাধ্যমে স্বাধীন হয়নি, স্বাধীন হয়েছে যুদ্ধের মাধ্যমে।

গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠায় জিয়াউর রহমান ও খালেদা জিয়ার অবদানের কথা উল্লেখ করে গয়েশ্বর বলেন, গণতন্ত্রের মাতা দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার আগামী জন্মদিন ঢাকায় দেশনায়ক তারেক রহমানকে সঙ্গে নিয়ে পালন করব। তার আগে বাংলাদেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ