Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৪ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

আফগান সেনাসদস্য ৩ লাখ নয়, আসলেই ছিল ৫০ হাজার : বিবিসি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৮ আগস্ট, ২০২১, ১২:২৯ পিএম | আপডেট : ১:০০ পিএম, ১৮ আগস্ট, ২০২১

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন তাঁর বিভিন্ন সময়ে দেয়া বক্তব্যে বলেছেন, আফগানিস্তানের নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যসংখ্যা তিন লাখ। এই বাহিনীর ব্যয়ভার বহন করছে তাঁর দেশ। সদস্যসংখ্যা নিয়ে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেনও একই কথা বলেছেন। কিন্তু বিবিসির এক নিজস্ব অনুসন্ধানে বেরিয়ে এসেছে, আফগান বাহিনীর সদস্যসংখ্যা ছিল আসলে ৫০ হাজার।

বিবিসির নিউজনাইট অনুষ্ঠানে তুলে ধরা হয়েছে, তালেবানের সঙ্গে লড়াইয়ে আফগান সেনাদের হেরে যাওয়ার অন্যতম প্রধান কারণ হলো তার সদস্যসংখ্যা। আনুষ্ঠানিকভাবে যে সদস্যসংখ্যা বলা হচ্ছিল, তা আসলে প্রকৃত সংখ্যা নয়। প্রকৃত সংখ্যা এর চেয়ে অনেক অনেক কম। ছয় ভাগের এক ভাগ। এর আগে বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, আফগান সেনাবাহিনীর প্রশিক্ষণের জন্য প্রায় ৮ হাজার ৯০০ কোটি ডলার খরচ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনও এই বাহিনীকে প্রশিক্ষিত করা এবং তাদের সরঞ্জাম দেওয়ার কথা একাধিকবার বলেছেন। তবে দুটি গুরুত্বপূর্ণ সূত্র বলেছে, আফগান বাহিনীর সদস্যসংখ্যা আসলে ৫০ হাজার বা তারও কম।

বিবিসির নিউজনাইটকে একটি সূত্র জানিয়েছে, দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী সালাউদ্দিন রব্বানি ও প্রতিরক্ষামন্ত্রী বিসমিল্লাহ খান মোহাম্মদি এক বৈঠকে এ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছিলেন। কারণ, দেশটির সেনাসংখ্যা আসলে ৫০ হাজার। এ ছাড়া দ্বিতীয় একটি সূত্র জানিয়েছে, সন্ত্রাসবাদ–বিষয়ক বিশেষজ্ঞ ও ন্যাটোর হয়ে কাজ করা সাজ্জান গোহেলও বলেছিলেন, আফগান সেনাসংখ্যা ৫০ হাজার। এ বিষয়টি নিয়ে বিবিসির সঙ্গে হোয়াইট হাউসের সঙ্গে কথা হয়েছে। বিবিসির পক্ষ থেকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, যদি গোয়েন্দারা জানিয়ে থাকেন, আফগান সেনাসদস্য ৫০ হাজার, তবে সেই তথ্য কি প্রেসিডেন্টকে জানানো হয়েছিল? হোয়াইট হাউসের মুখপাত্র এ প্রশ্নের কোনো উত্তর দেননি।

খোদ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের গণমাধ্যম সিএনএনও আফগান বাহিনী সেনাসংখ্যা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে। বাইডেনের বক্তব্যের সত্যানুসন্ধানে তারা বলেছে, আফগান বাহিনীর সদস্যসংখ্যা তিন লাখ বলে যে প্রচার রয়েছে, তার সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে। এর সপক্ষে তারা বলেছে, সরকারের একটি পর্যবেক্ষক সংস্থা গত জুলাইয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছিল। এতে উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়েছে যে, আফগান বাহিনীর সদস্যসংখ্যা তিন লাখ কি না, এর সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিবিসি

১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন