Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ০৬ কার্তিক ১৪২৬, ২২ সফর ১৪৪১ হিজরী

পরকীয়া বা পূর্ব শত্রুতার জেরেই যাত্রাবাড়িতে শিল্পী খুন : পুলিশের ধারণা

প্রকাশের সময় : ৩ অক্টোবর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক ৫ জন
স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীর যাত্রাবাড়ি রসুলপুরে শিল্পী হত্যাকা-ের খুনিরা পূর্ব পরিচিত। পরকীয়া কিংবা পূর্ব শত্রুতার কারণে বাইরের থেকে আসা কেউ এ হত্যাকা- ঘটাতে পারে। এ ঘটনায় একাধিক ব্যক্তি জড়িত থাকতে পারে বলে ধারাণা করছে পুলিশ। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পাঁচজনকে আটক করা হয়েছে।
গত শনিবার রাত ১১টার দিকে ওই বাসায় হত্যাকা-ের বিষয়টি জানতে পারে প্রতিবেশিরা। পরবর্তীতে পুলিশকে খবর রাতেই শিল্পীর গলাকাটা লাশ উদ্ধার করে স্যার সলিমুল্লাহ মেডিক্যাল কলেজ (মিডফোর্ট) হাসপাতাল মর্গে পাঠায় পুলিশ। এছাড়া আহত অবস্থায় ভাবী পারুলকে উদ্ধার করে ওই ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে পুলিশ। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছে কর্তব্যরত চিকিৎসক।
নিহতের গ্রামের বাড়ি কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের ম্যাচতলায়। তার এ পর্যন্ত তিনটি বিয়ে হয়েছে। প্রথম স্বামী একই গ্রামের হিরন। দ্বিতীয় স্বামী এসএম হিরু। যার মা মিডফোর্ট হাসপাতালে চাকরি করেন। এ ঘরে শিল্পীর অস্টম শ্রেণি পড়–য়া একটি মেয়ে ও চতুর্থ শ্রেণি পড়–য়া এক ছেলে আছে। দ্বিতীয় স্বামীর সাথে ডিভোর্স হওয়ার পরে সন্তানরা গ্রামের বাড়িতে থাকে। পরবর্তীতে শরিয়তপুরের হিরুর সাথে ডিভোর্স হওয়ার পরে দেলোয়ার হোসেন নামে একজনকে বিয়ে করে শিল্পী। তবে দেলোয়ারের ব্যাপারে তেমন কোন তথ্য পাওয়া যায়নি।
রসুলপুরে ওই বাড়ির মালিক মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী জানান, গত মাসের ১৫ থেকে ২০ তারিখের মধ্যে দুই নারী এসে ৫তলার ফ্ল্যাটটি ভাড়া নেয়। ভাড়া নেয়ার সময় মোবাইলে শিল্পীর স্বামীর সাথে তার কথা হয়। গত শুক্রবার তারা আসবাপত্র নিয়ে বাসায় উঠে। তবে এ সময় কোন পুরুষ লোক ছিলো না।
তিনি জানান, তাদের কাছে জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি ও নিবন্ধন ফরম দেয়া হলে জানায় আসবাপত্র গুছিয়ে ওগুলো পূরন করে দিবে। তবে তার কাছে একটি জন্মনিবন্ধন ফরম দিয়েছেন তারা। যাতে গ্রামের বাড়ি চৌদ্দগ্রামে লেখা। স্বামীর ব্যাপারে শিল্পী ভাড়িওয়ালাকে জানায়, তার স্বামীর পুরান ঢাকার বংশালের মালিটোলায় স্ক্রিন প্রিন্টের কারখানা আছে। বাড়ির মালিক দাবি করেন, ওই ফ্ল্যাটের দরজা খোলা থাকলেও বাড়ির কলাপসিবল গেট বন্ধ ছিলো। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বাড়ির মেইন গেটের চাবি সব ফ্ল্যাটেই দেয়া আছে।
ঢাকা মেডিক্যাল সূত্রে জানা গেছে, শিল্পীর ননদ পারুলের বাম হাতের ও ডান পায়ের রগ কাটা। এছাড়া শরীরের বিভিন্নস্থানে ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে। বর্তমানে মেডিকেলের পোস্ট অপারেটিভ বিভাগে চিকিৎসাধীন পারুল। চিকিৎসক জানিয়েছেন তার অবস্থা আশঙ্কাজনক।
যাত্রাবাড়ি থানার এক পুলিশ কর্মকর্তা জানান, প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে পুর্ব শত্রুতার জের কিংবা পরকীয়ার কারণে এ হত্যাকা- ঘটতে পারে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য এ পর্যন্ত ৫ জনকে আটক করা হয়েছে। তবে ঘটনার পর থেকে প্রধান সন্দেহভাজন পালাতক রয়েছে। তকে ধরতে পারলে এ হত্যার রহস্য উন্মোচিত হতে পারে বলে ধারণা করছেন তিনি।
এ ব্যাপারে যাত্রাবাড়ি থানার ওসি আনিছুর রহমান জানান, বহিরাগত কেউ বাসার কোনো কাজের উদ্দেশ্যে বাসায় ঢুকে বা পরিচিতদের মধ্যে কেউ পুর্ব শত্রুতার জেরে এ ঘটনা ঘটাতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করা হচ্ছে। তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত কিছুই বলা যাচ্ছে না।
তিনি জানান, এখনও মামালা হয়নি। তাই নিহতের আত্মীয় স্বজনদের ব্যাপারে খোঁজ খবর নেয়া হচ্ছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন