Inqilab Logo

সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০২ কার্তিক ১৪২৮, ১০ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

ঢাবির একাডেমিক কাউন্সিলে চার সুপারিশ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৯ আগস্ট, ২০২১, ১২:০৫ এএম

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মরত শিক্ষকদের কর্মঘণ্টা বৃদ্ধি, অনার্স-মাস্টার্স পর্যায়ে মনোগ্রাফ-থিসিস বাধ্যতামূলক, ফ্যাকাল্টি বিশেষজ্ঞদের বিভাগের কাজে সংযুক্তিকরণ, গবেষণার জন্য তহবিল গঠনের উদ্যোগসহ ৪ বিষয়ে সুপারিশ করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিল। গতকাল বুধবার বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় এসব বিষয়ে সুপারিশ করা হয়। এ সুপারিশ বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সভায় চ‚ড়ান্ত অনুমোদন পাবে।ঢাবির একাডেমিক কাউন্সিলের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, সভায় শিক্ষকদের কর্মঘণ্টা পরিবর্তন করা হয়েছে। প্রথমত সপ্তাহে একজন প্রভাষক ১৬ ঘণ্টা, সহকারী অধ্যাপক ১৪ ঘণ্টা, সহযোগী অধ্যাপক ১২ ঘণ্টা ও একজন অধ্যাপক ১০ ঘণ্টা ক্লাস নেবেন। পরীক্ষার প্রশ্নপত্র তৈরি, খাতা মূল্যায়ন ও ফলাফল তৈরি অতিরিক্ত বলে গণ্য হবে।
দ্বিতীয়ত, বিষয় অনুযায়ী বিশেষজ্ঞ যারা বিশ্বের অন্য বিশ্ববিদ্যালয় বা গবেষণা প্রতিষ্ঠানে কর্মরত তাদের তালিকা তৈরি করা। পরবর্তীতে বিভাগের কাজ যেমন পরীক্ষা পদ্ধতি, এম.ফিল ও পিএইচডি গবেষণায় পর্যবেক্ষক হিসেবে তাদের সংযুক্ত করা। বিভাগে বিভিন্ন বক্তৃতার আয়োজন করা।
তৃতীয়ত, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের প্রশিক্ষণমূলক কর্মসূচি আরও বৃদ্ধি করা। এ ক্ষেত্রে (সকল বিভাগের শিক্ষকদের জন্য প্রযোজ্য) প্রশিক্ষণমূলক কর্মশালাগুলো সেন্টারের উদ্যোগে আয়োজন করা হবে। বিভাগের সঙ্গে সম্পর্কিত বিষয়গুলো নিয়ে সংশ্লিষ্ট বিভাগ প্রশিক্ষণমূলক কর্মশালার আয়োজন করবে। সেগুলো পরবর্তীতে গবেষণায় ফান্ড গঠনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।
চতুর্থত, মাস্টার্সে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের যেসব বিভাগে থিসিস কিংবা মনোগ্রাফ নেই সেগুলো বাধ্যতামূলক করা হবে।
জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেন, একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। সব বিষয় বাস্তবায়ন হলে শিক্ষার গুণগত মান যেমন পরিবর্তন হবে একইসঙ্গে বৈশ্বিক মানদন্ডে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অবস্থানও সুসংহত হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ঢাবি

১৭ অক্টোবর, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ