Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৮, ০১ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ০৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
শিরোনাম

আগামী সংসদ নির্বাচন শেখ হাসিনার অধীনেই স্বাস্থ্যমন্ত্রী

প্রকাশের সময় : ৩ অক্টোবর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

জয়পুরহাট জেলা সংবাদদাতা : আন্দোলনের হুমকি দিয়ে লাভ নেই। এর আগে আন্দোলন করে ব্যর্থ হয়ে স্যারেন্ডার করে ঘরে ফিরে গেছেন বেগম খালেদা জিয়া। কোনো নির্বাচন নির্ধারিত সময়ের আগে হবে না। ২০১৯ সালে সংবিধান অনুযায়ী শেখ হাসিনার অধীনেই জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। সুতরাং সেই নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত হন খালেদা জিয়া।
গতকাল (রোববার) বিকালে জয়পুরহাট শহিদ ডা. আবুল কাশেম ময়দানে ১৪ দল আয়োজিত জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস বিরোধী এক বিশাল সমাবেশে ১৪ দলের সমন্বয়ক ও স্বাস্থ্য পরিবার পরিকল্পনামন্ত্রী মো. নাসিম কথাগুলো বলেন। ১৪ দলের জেলা সমন্বয়ক ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম সোলায়মান আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সাবেক ভিসি জাসদ নেতা ড. আনোয়ার হোসেন, ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা, সাম্যবাদী দলের এম এ গনি, গণ আজদী লীগের মুহাম্মদ আতা উল্লাহ খান, বাসদ নেতা রেজাউল করিম খান, তরিকত ফেডারেশনের নেতা এম এ আওয়াল এমপি, জাতীয় পার্টির (মঞ্জু) নেতা এজাজ আহম্মেদ মুক্তা, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি এ্যাডঃ সামছুল আলম দুদু এমপি প্রমুখ।
স্বাস্থ্যমন্ত্রী তার বক্তব্যে আরো বলেন, আমরা কথা দিয়েছিলাম গরিবদের ১০ টাকা কেজি চাল খাওয়াবো। আজ সেটা জনগণ পাচ্ছে। ওয়ার্কার্স পার্টির নেতা ফজলে হোসেন বাদশার বক্তব্যের রেশ ধরে তিনি বলেন আপনি বলেছেন খালেদা জিয়ার বাড়িতে ১০ টাকা কেজির চাল পৌঁছাতে। আপনাকে নিয়েই খালেদা জিয়ার বাড়িতে ১০ টাকা কেজির চাল পৌঁছাবো। শেখ হাসিনা যুদ্ধাপরাধীসহ বঙ্গবন্ধুর হত্যার বিচার করে জাতিকে তার দেয়া কথা রেখেছেন। আজ ছেলেমেয়েরা ১ তারিখ এলেই বিনামূল্যে বই পায়। সারা দেশ বিদ্যুতের আলোয় আলোকিত হচ্ছে।
পদ্মাসেতুর কাজ পুরোদমে চলছে। সারাদেশে কমিউনিটি সেন্টারের মাধ্যমে স্বাস্থ্য সেবা দেয়া হচ্ছে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এদেশ একটি সমৃদ্ধশালী দেশে পরিণত হতে চলেছে। মন্ত্রী এর আগে জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতাল ও পাঁচবিবির খাসবাগুড়ি কমিউনিটি সেন্টার পরিদর্শন করেন। এছাড়া নার্সিং ট্রেনিং ইন্সন্টিটিউট এর স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তা কর্মচারীদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় মিলিত হন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ