Inqilab Logo

সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ০৯ কার্তিক ১৪২৮, ১৭ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

রাজার মতই শুরু কিংসদের

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২০ আগস্ট, ২০২১, ১২:০৪ এএম

এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশন (এএফসি) কাপে রাজার মতই শুরু করেছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) টানা দুইবারের চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা কিংস। পরশু রাতে মালদ্বীপের রাজধানী মালের রাশমি ধান্দু স্টেডিয়ামে এএফসি কাপের ‘ডি’ গ্রুপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে স্বাগতিক মাজিয়া স্পোর্টস অ্যান্ড রিক্রিয়েশন ক্লাবকে ২-০ গোলে হারিয়ে শুভসূচনা করেছে কিংসরা। মাজিয়া অধিনায়ক মোহাম্মদ ইরুফানের আত্মঘাতী গোলে এগিয়ে যাওয়ার পর বিজয়ীদের পক্ষে দ্বিতীয় গোলটি করেন ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড রবসন দি সিলভা রবিনহো।
যদিও ম্যাচের শুরু থেকে তেমন ধারালো আক্রমণ শানাতে পারেনি বসুন্ধরা কিংস। স্বাগতিক দল চেনা মাঠে শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক ফুটবল উপহার দিয়ে সুযোগ তৈরি করে। মাজিয়ার ফুটবলাররা ম্যাচের ১১ মিনিটের মধ্যে দু’টি গোলের সুযোগ নষ্ট করেন। দু’বারই তাদের শট ক্রসবারের উপর দিয়ে বাইরে চলে যায়। ১৩ মিনিটে প্রথম পায় বসুন্ধরা। এসময় ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার জোনাথন ফের্নান্দেজের কর্নারের বলে ইরানী ডিফেন্ডার শাফিই হেড নিলে সহজে তা রুখে দেন মাজিয়া গোলরক্ষক। এরপর ধীরে ধীরে ছন্দ ফিরে পেয়ে নিজেদের গুছিয়ে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নেয় কিংসরা। আক্রমণাত্মক হয়ে ওঠেন তাদের আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড রাউল অস্কার বেসেরা ও ব্রাজিলিয়ান রবিনহো। ম্যাচের ২৫ মিনিটে এগিয়ে যায় বাংলাদেশের চ্যাম্পিয়নরা। এসময় নিজেদের সীমানা থেকে শাফিইয়ের লম্বা ক্রস নিয়ন্ত্রণে নেয়ার জন্য ছুটেছিলেন বেসেরা। কিন্তু তিনি বলের নাগাল পাওয়ার আগে মাজিয়ার ইরুফান বিপদমুক্ত করতে শট নেন। দূর্ভাগ্যজনকভাবে তার শটের বল গোলরক্ষকের মাথার উপর দিয়ে জালে জড়ায় (১-০)। প্রথমার্ধেই দ্বিতীয় গোলটি পায় বসুন্ধরা কিংস। ৪০ মিনিটে মাজিয়া অধিনায়ক ইরুফানের কাছ থেকে বল কেড়ে নিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে জোরালো শটে গোল করে ব্যবধান বাড়ান রবিনহো (২-০)। দুই গোলে পিছিয়ে থেকে বিরতিতে গেলেও শেষ পর্যন্ত আর ম্যাচে ফিরতে পারেনি মালদ্বীপের দলটি। অন্যদিকে দ্বিতীয়ার্ধে বসুন্ধরা একাধিক সুযোগ পেয়েও তা কাজে লাগাতে না পারায় ব্যবধান আর বাড়েনি। ফলে ২-০ ব্যবধানে ম্যাচ জিতে রাজার বেশেই মাঠ ছাড়েন তপু বর্মণরা।
স্প্যানিশ কোচ অস্কার ব্রুজনের অধীনেই দেশের ফুটবলে সর্বোচ্চ পর্যায়ে খেলা শুরু করে বসুন্ধরা কিংস। ব্রুজন বাংলাদেশের আগে মালদ্বীপে কোচিং পেশায় নিয়োজিত ছিলেন বলে সেখানকার ফুটবলের অলি গলি তার ভালোই জানা। তাই তো মাজিয়ার বিপক্ষে ম্যাচে সেভাবেই পরিকল্পনা সাজিয়েছিলেন তিনি। ম্যাচ শেষে ব্রুজন বলেন, ‘আমরা জানতাম মাজিয়া সুবিধা আদায়ের জন্য মাঠে ফাঁকা জায়গা তৈরি করতে চাইবে। কিন্তু গুরুত্বপূর্ণ হলো ৯০ মিনিট আমার দল সঠিক দায়িত্ব পালন করেছে। আমরা মাজিয়াকে মরিয়া হয়ে খেলার সুযোগ দিয়েছিলাম। তাদের অনেক খেলোয়াড় আক্রমণে উঠে আসে। পাল্টা আক্রমণে আমরা অনেক বিপজ্জনক হয়ে উঠি।’
কিংসদের পরের ম্যাচ আগামীকাল ভারতের বেঙ্গালুরুর বিপক্ষে। যারা পরশু দিনের প্রথম ম্যাচে স্বদেশী দল মোহনবাগানের কাছে ২-০ ব্যবধানে হেরেছে। মোহনবাগান-বসুন্ধরা নিজের প্রথম ম্যাচ জিতে পরের রাউন্ডের টিকিট পাওয়ার দৌঁড়ে এগিয়ে গেল।
তাই গ্রুপ পর্বের লড়াইয়ের ছবি এখন পরিষ্কার ব্রুজনের কাছে। তার কথায়,‘এখন একটা বিষয় পরিষ্কার, আমরা শেষ ম্যাচ পর্যন্ত টুর্নামেন্টে টিকে আছি। মাজিয়া যদি পরের রাউন্ডে খেলতে চায়, তাহলে তাদের দু’টি ম্যাচই জিততে হবে। বেঙ্গালুরুর অবস্থাও একই। বসুন্ধরা আর মোহনবাগান যদি দ্বিতীয় ম্যাচ হেরেও যায়, তাহলে বসুন্ধরা শেষ ম্যাচ পর্যন্ত টিকে থাকবে। এটা দারুণ ব্যাপার।’
ভারতের বেঙ্গালুরুর বিপক্ষে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচ নিয়ে বসুন্ধরা কিংসের স্প্যানিশ কোচ বলেন,‘ বেঙ্গালুরুর বিপক্ষে মাজিয়া ম্যাচের থেকে বেশি সুযোগ থাকবে আমাদের।’
ম্যাচ হেরে বসুন্ধরা কিংসকে জয়লাভের জন্য কৃতিত্ব দিয়েছেন মাজিয়ার সার্বিয়ান কোচ রিসতো ভিদাকোভিচ। তার কথায়, ‘ তারা আমাদের চেয়ে শক্তিশালী ও গতিসম্পন্ন দল। আমরা জানতাম কঠিন একটি ম্যাচ হবে। প্রথমার্ধে আমরা ভালো খেলতে পারিনি। আমরা স্নায়ুর চাপে ছিলাম। অনেক লম্বা পাসে খেলেছি। দ্বিতীয়ার্ধে খেলায় উন্নতি হলেও সেটি যথেষ্ট ছিল না।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশন
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ