Inqilab Logo

শনিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২২, ১৫ মাঘ ১৪২৮, ২৫ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

নোয়াখালীতে পবিত্র কোরআন অবমাননা, দম্পতি আটক

নোয়াখালী ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২২ আগস্ট, ২০২১, ৫:২৯ পিএম

পবিত্র কোরআন শরীফ অবমাননার অভিযোগে নোয়াখালীর সদর উপজেলার নোয়ান্নই ইউনিয়ন থেকে টুটন শাহ (৩৫) ও ইয়াসমিন আক্তার (২৯) নামের এক দম্পতিকে আটক করেছে পুলিশ। আটকের পর তার দু’জন ঘটনার জন্য একে অপরকে দায়ী করছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

রোববার রামকৃষ্ণপুর গ্রাম থেকে তাদের আটক করা হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত ২০১১ সালে প্রেমের সম্পর্কের সূত্রধরে রামকৃষ্ণপুর গ্রামের শাহ বাড়ির হারাধন শাহের ছেলে টুটন শাহ ধর্মান্তরিত হয়ে একই এলাকার ইয়াসমিন আক্তারকে বিয়ে করেন। তাদের দুই সন্তান রয়েছে। গত কয়েক মাস ধরে পারিবারিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে তাদের মধ্যে ঝামেলার সৃষ্টি হয়। পরে টুটন তার স্ত্রী ইয়াসমিনকে ইসলাম ধর্ম বাদ দিয়ে হিন্দু ধর্ম পালনের নির্দেশ দেয়। এনিয়ে গত কয়েকদিন আগে ইয়াসমিন অসুস্থ্য হলে চিকিৎসার জন্য টুটনের কাছে টাকা চাওয়াতে সে হিন্দু ধর্ম গ্রহণ করলে তাকে টাকা দিবে বলে জানায় টুটন।
রোববার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে নিজ ঘরে বসে পবিত্র কোরআন শরিফ পড়ছিলেন ইয়াসমিন। বিষয়টি দেখে ক্ষিপ্ত হয়ে তার হাত থেকে কোরআন শরিফ নিয়ে পাশ^বর্তী পুকুরে ফেলে দেয় টুটন। ঘটনাটি এলাকাবাসী দেখতে পেয়ে লোকজনের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাদের দু’জনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। এদিকে আটককৃত টুটন পুলিশকে জানায় আগে ইয়াসমিন একটি গীতা পানিতে ফেলে দিয়েছিল।

সুধারাম মডেল থানার ওসি শাহেদ উদ্দিন জানান, ঘটনাস্থল থেকে ওই দম্পতিকে আটক করা হয়েছে। ধর্ম অবমানানায় তারা দু’জন দু’জনের বিরুদ্ধে পাল্টাপাল্টি অভিযোগ করছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখে প্রয়োজনী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কোরআন অবমাননা

১৯ অক্টোবর, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ