Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ০৩ কার্তিক ১৪২৮, ১১ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

পরীমণির জামিন আবেদন শুনানি ১৩ সেপ্টেম্বর

আছেন কারাগারে হেলেনার পাশের কক্ষে

বিশেষ সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৩ আগস্ট, ২০২১, ১২:০১ এএম

মাদক মামলায় চিত্রনায়িকা পরীমণির জামিন আবেদন করেছেন তার আইনজীবীরা। গতকাল রোববার ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েসের আদালতে অ্যাডভোকেট মজিবুর রহমান জামিন আবেদন করেন। অন্যদিকে তৃতীয় দফায় এক দিনের রিমান্ড শেষে পরীমণিকে গত শনিবার ফের কাশিমপুর কেন্দ্রীয় মহিলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

আদালত থেকে শনিবার সন্ধ্যায় কারাগারে নেয়ার পর থেকে সেখানে তাকে কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। তার পাশের কক্ষেই আলোচিত আওয়ামী লীগ নেত্রী (বহিষ্কৃত) হেলেনা জাহাঙ্গীর গত বৃহস্পতিবার থেকে কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন।
পরীমণির আইনজীবি মজিবুর রহমান জানান, সিএমএম আদালতে জামিন আবেদন করেছিলাম। সেখানে জামিন না মঞ্জুর হয়েছে। এবার মহানগর দায়রা জজ আদালতে জামিন আবেদন করেছি। আগামী ১৩ সেপ্টেম্বর জামিন শুনানি হবে।

গত ৪ আগস্ট বিকাল চারটার পর বনানীর ১২ নম্বর রোডের পরীমণির বাসায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। এরপর তাকে ৫ আগস্ট চার দিন এবং ১০ আগস্ট দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। গত ১৩ আগস্ট রিমান্ড শেষে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়। এরপর আবারও ১৯ আগস্ট একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। গত ১৯ আগস্ট কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন আদালত।
মহিলা কারাগারের অতিরিক্ত দায়িত্বপ্রাপ্ত সিনিয়র জেল সুপার মো. আব্দুল জলিল জানান, প্রিজন ভ্যানে করে পরীমণিকে ঢাকার আদালত থেকে শনিবার সন্ধ্যা ৬টা ২০মিনিটে কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে কারা বিধি অনুযায়ী তাকে খাবার ও অন্যান্য সুযোগ সুবিধা দেয়া হচ্ছে।

কারাসূত্র জানায়, কারাবিধি অনুসরণ করে বিভিন্ন মহলের অনেকেই তার সঙ্গে দেখা করতে কারাফটকে আসছেন। তবে করোনা সংক্রমণের কথা মাথায় রেখে সে সুযোগ দেয়া সম্ভব নয়। কারণ, পরীমণি এখন ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে আলাদা সেলে বন্দি আছেন। পরীমণি অন্যান্য বন্দিদের মতোই সকল সুযোগ-সুবিধা পাচ্ছেন। পরীমণি কারাগারের কোয়ারেন্টিন সেন্টার ‘রজনীগন্ধা ভবনে’ রয়েছেন। যেখানেই নতুন আসা সব নারী বন্দিদের কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়।

পরীমণির ন্যায় বিচার চেয়ে বিক্ষুব্ধ নাগরিকজনের সমাবেশ : মাদক মামলায় গ্রেফতার চিত্রনায়িকা পরীমণির ন্যায় বিচার চেয়ে রাজধানীর শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরের সামনে সমাবেশ করেছেন বিক্ষুব্ধ নাগরিকজন। গতকাল রোববার বিকেল ৪টায় শুরু হয়ে এই সমাবেশ শেষ হয় বিকেল সাড়ে ৫টায়।
সমাবেশে বক্তারা পরীমণির ন্যায় বিচার পাওয়া নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেন। বিচারের আগেই তাকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও নানা গণমাধ্যমে হেয়প্রতিপন্ন করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন বক্তারা। সেই সাথে পরীমণির বিষয়ে ইতিবাচক খবর প্রকাশের জন্য গণমাধ্যমগুলোর প্রতি আহবানও জানানো হয় সমাবেশ থেকে।

সমাবেশে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে সাবেক তত্ত¡াবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ও মানবাধিকার কর্মী সুলতানা কামাল বলেন, পরীমণি নারী বলে তাকে এতটা হেয়প্রতিপন্ন হতে হচ্ছে। যে অপরাধে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে সেটি জামিনযোগ্য অপরাধ অথচ তাকে একের পর এক রিমান্ডে দেয়া হচ্ছে। মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের সরকার ক্ষমতায় থাকতে এমনটা হতে পারে না। সরকারের একটা বাহিনী একজন অভিনেত্রীর প্রতি এতটা নির্দয় আচরণ করতে পারে না।

সমাবেশে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে বক্তব্য রাখেন মানবাধিকার কর্মী খুশি কবির, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. সাদেকা হালিম, জাবি অধ্যাপিকা স্নিগ্ধা রেজওয়ান এবং বিভিন্ন স্বাধীন চলচ্চিত্র নির্মাতা ও প্রগতিশীল ছাত্র সংগঠনের নেত্রীবৃন্দ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পরীমণি

১১ অক্টোবর, ২০২১
১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১
২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
২ সেপ্টেম্বর, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ