Inqilab Logo

রোববার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০১ কার্তিক ১৪২৮, ০৯ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

পদ্মা সেতুর সড়কপথ শতভাগ রূপ পেল

বসল শেষ রোডওয়ে স্ল্যাবটি পিচ ঢালাইয়ের কাজ শুরু অক্টোবরে

মঞ্জুর মোর্শেদ ও মো. শওকত হোসেন, মুন্সীগঞ্জ থেকে | প্রকাশের সময় : ২৪ আগস্ট, ২০২১, ১২:০১ এএম

পদ্মা সেতু প্রকল্প নতুন এক মাইলফলক পূরণ করলো। গতকাল সকাল ১০টায় সেতুতে শেষ স্ল্যাব বসানো হয়েছে। ফলে ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার সেতুতে পূর্ণাঙ্গ রূপ পেয়েছে সড়কপথ। সেতুর মোট দুই হাজার ৯১৭টি রোডওয়ে স্ল্যাবের সবগুলোই বসানো শেষ হয়েছে। এর মাধ্যমে সেতুটির ওপর দিয়ে যানবাহন চলাচল করার ক্ষেত্রে বাকি থাকছে শুধু পিচঢালাই।

গতকাল সকাল ১০টায় সেতুর শেষ স্ল্যাব বসানো হয়েছে বলে পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী দেওয়ান আব্দুল কাদের গণমাধ্যমকে জানান। তিনি বলেন, সেতুর মোট দুই হাজার ৯১৭টি রোডওয়ে স্ল্যাবের মধ্যে মাত্র তিনটি স্ল্যাব বসানো বাকি ছিল। যার মধ্যে গতরাতে বসানো হয়েছিল দুটি স্ল্যাব। আর সর্বশেষ স্ল্যাবটি গতকাল সকাল ১০টায় বসানো হয়।

প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, পিচ ঢালাইয়ের কাজ শুরু হবে আগামী অক্টোবর মাসের শেষ দিকে। এ কাজে তিন মাসের মতো সময় লাগতে পারে। সেতুর ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি (এমবিইসি) সেতু বিভাগকে জানিয়েছে, তারা আগামী ৩০ এপ্রিলের মধ্যেই সব কাজ শেষ করবে। পদ্মা সেতু প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা জানান, নির্ধারিত সময়ের একমাস আগেই স্ল্যাব বসানো সম্পন্ন হয়েছে।

পদ্মা সেতুতে ২ হাজার ৯৫৯টি রেলওয়ে স্ল্যাব বসানো সম্পন্ন হয়েছে চলতি বছরের ২০ জুন। ১ হাজার ৩২৮টি রেলওয়ে স্টেনজারের উপর বসেছে ১৭ ফুট প্রস্থের রেলওয়ে স্ল্যাব। ফলে এখন সেতুর নিচতলা দিয়ে হেঁটেই মাওয়া থেকে পদ্মা পার হয়ে জাজিরা প্রান্তে যাওয়া যাচ্ছে। প্রায় ১৯ মিলিয়ন ডলারে পদ্মা সেতুতে গ্যাস পাইপলাইন স্থাপন করছে চীনা ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না পেট্রোলিয়াম পাইপ লাইন ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি লিমিটেড। এই প্রকল্পের পরিচালক সুন হুন্ডু জানান, প্রকল্পের মেয়াদ আগামী ডিসেম্বর পর্যন্ত। নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই পাইপ লাইন স্থাপন সম্ভব।

এর আগে ২০১৫ সালের ১২ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মূল সেতুর নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন। প্রকল্পের কাজের অগ্রগতি সংক্রান্ত প্রতিবেদন অনুসারে, গত জুলাই পর্যন্ত পুরো প্রকল্পের কাজ শেষ হয়েছে ৮৭ শতাংশের কিছু বেশি। মূল সেতুর কাজ হয়েছে প্রায় ৯৪ শতাংশ।
সর্বশেষ সংশোধিত প্রকল্প প্রস্তাব অনুসারে, আগামী বছরের জুনের মধ্যে প্রকল্পের কাজ শেষ করার কথা। এরপরও প্রকল্পের মেয়াদ এক বছর থাকবে। তবে সে সময়টা সেতুর কোনো ত্রæটি দেখা দিলে তা মেরামত ও ঠিকাদারের পাওনা মেটানোর জন্য নির্ধারিত।

পদ্মা সেতু দ্বিতলবিশিষ্ট। এর ওপর দিয়ে চলাচল করবে যানবাহন, নিচ দিয়ে রেল। মূল সেতুর দৈর্ঘ্য ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার। সেতুটি চালু হলে দক্ষিণাঞ্চলের ২১টি জেলার সঙ্গে যোগাযোগ সহজ হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পদ্মা সেতু


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ