Inqilab Logo

শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ৩১ আশ্বিন ১৪২৮, ০৮ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

পরীমণি-সাকলায়েনের একান্ত মুহূর্তের ভাইরাল ভিডিও অপসারণে রিট

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৬ আগস্ট, ২০২১, ১২:০১ এএম

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া আলোচিত চিত্রনায়িকা পরীমণি (শামসুন্নাহার স্মৃতি) এবং পুলিশ কর্মকর্তা গোলাম সাকলায়েনের একান্ত মুহূর্তের ভিডিও সব প্লাটফর্ম থেকে অপসারণের নির্দেশনা চেয়ে রিট করা হয়েছে। রিটে মৃত কলেজছাত্রী মুনিয়া এবং জেকেজি’র ডা. সাবরিনার ব্যক্তিগত ভিডিও অপসারণেরও নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে।

গতকাল বুধবার সুপ্রিম কোর্ট বারের অ্যাডভোকেট তাসমিয়া নুহাইয়া আহমেদ রিটটি ফাইল করেন। বিচারপতি মজিবুর রহমান মিয়া এবং বিচারপতি কামরুল হোসেন মোল্লার ভার্চুয়াল ডিভিশন বেঞ্চে শুনানিতে হতে পারে জানিয়েছেন এই আইনজীবী। তিনি বলেন, রিটে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ সব ধরনের অনলাইন থেকে চরিত্রহরণ করে কারো ব্যক্তিগত আপত্তিজনক ছবি বা ভিডিও প্রকাশে নিষেধাজ্ঞা চাওয়া হয়েছে। বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) চেয়ারম্যান, তথ্য সচিব, টেলিকমিউনিকেশন সচিবকে রিটে বিবাদী করা হয়েছে। রিটকারী বলেন, আমরা দেখতে পাচ্ছি কিছু ব্যক্তিকে নির্দিষ্টভাবে টার্গেট করে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। যেখানে মূলধারার গণমাধ্যমসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছবি ও ভিডিও প্রকাশ করা হচ্ছে। বিশেষ করে নারীদের চরিত্রটাকে টার্গেট করেই এটা করা হচ্ছে। স¤প্রতি পরীমণি, কলেজছাত্রী মুনিয়াসহ অনেকের ব্যক্তিগত ভিডিও প্রকাশিত হয়েছে। যা সম্পূর্ণ ব্যক্তিগত আক্রোশ থেকে এবং তাদের চরিত্র হনন করার জন্যই করা হয়েছে। এ সংক্রান্ত বিভিন্ন প্রতিবেদন যুক্ত করে আমরা হাইকোর্টে রিট করেছি।

উল্লেখ্য, গত ৪ আগস্ট রাতে ৪ ঘণ্টা অভিযান চালিয়ে বনানীর বাসা থেকে পরীমণি ও তার সহযোগীকে আটক করে র‌্যাব। এসময় তার বাসা থেকে বিভিন্ন ধরনের মাদকদ্রব্য উদ্ধার দেখানো হয়। আটকের পর তাদের নেয়া হয় র‌্যাব সদর দফতরে। পরে র‌্যাব-১ বাদী হয়ে মাদকদ্রব্য আইনে পরীমণির বিরুদ্ধে বনানী থানায় মামলা করে। এরপর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পরীমণিকে তিন দফায় রিমান্ডে নেয়া হয়। আদালতে তোলা হয় ৫ বার।
ইতোপূর্বে গত ১৪ জুন সাভার অবস্থিত ঢাকা বোটক্লাবে ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগে মামলা করেন পরীমণি। ৯ জুন রাতে পরীমণির সঙ্গে এ ঘটনা ঘটে-মর্মে উল্লেখ করা হয় এজাহারে। মামলায় ব্যবসায়ী নাসিরউদ্দিন মাহমুদ ও অমিসহ ৬ জনকে আসামি করা হয়। ওই মামলায় গ্রেফতার করা হয় নাসিরউদ্দিন মাহমুদসহ পাঁচজনকে। মামলাটি তদন্তের জন্য ডিবিতে যায়। ওই মামলার তদন্তের সূত্র ধরে পরীমণির সঙ্গে ব্যক্তিগত সম্পর্কে জড়িয়ে যান ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) গুলশান বিভাগের তৎকালিন অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (এডিসি) গোলাম সাকলায়েন। পরীমণির বিরুদ্ধে মামলা হওয়ার পর তাদের মধ্যে গড়ে ওঠা ব্যক্তিগত সম্পর্ক এবং একান্ত মুহূর্তের ভিডিও ক্লিপ ভাইরাল হয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। এ ঘটনায় গোলাম সাকলায়েনকে তার দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দিয়ে মিরপুর পাবলিক অর্ডার ম্যানেজমেন্টে (পিওএম) যুক্ত করা হয়। চিত্রনায়িকা পরীমণি এখন কারাগারে রয়েছেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পরীমণি

১১ অক্টোবর, ২০২১
১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১
২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
২ সেপ্টেম্বর, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ