Inqilab Logo

শনিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৮ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী
শিরোনাম

সিলেট নগরীতে এডিস মশার লার্ভার সন্ধানে অভিযান, ৩ প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা

সিলেট ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৬ আগস্ট, ২০২১, ৫:২২ পিএম

সিলেট দক্ষিণ সুরমার ক্বীন ব্রিজ সংলগ্ন এলাকায় খোলা আকাশের নীচে স্যানেটারী পন্যের পসরায় সন্ধান পাওয়া গেছে ডেঙ্গু মশার লার্ভার। এ ঘটনায় ৩ প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে সিসিকের ভ্রাম্যমান আদালত মামলা ও জরিমানা করেছেন। আজ বৃহস্পতিবার (২৬ আগষ্ট ২০২১) দুপুরে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট সুনন্দা রায় পরিচালনা করেন এ ভ্রাম্যমান আদালত। এসময় উপস্থিত ছিলেন সিসিকের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মো. জাহিদুল ইসলাম সহ সংশ্রিষ্ট কর্মকর্তা ও মহানগর পুলিশের একটি দল। অভিযানে ভ্রাম্যমান আদালত বেআইনিভাবে খোলা আকাশের নীচে স্যানেটারী পন্যের পসরা সাজিয়ে রাখায় তিন প্রতিষ্ঠানের মামলা করেন এবং ৫ হাজার টাকা করে মোট ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন। এছাড়া খোলা স্থান থেকে ১ সপ্তাহের মধ্যে ডেঙ্গু মশার উৎস স্থল ধ্বংসে এসব স্যানেটারী পন্য সরিয়ে নিতে সময় বেঁধে দেন। সিসিকের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মো. জাহিদুল ইসলাম জাহিদুল ইসলাম বলেন, নগর জুড়ে ডেঙ্গু উৎস চিহ্নিত ও ধ্বংশে অভিযান চলমান থাকবে। বাসা-বাড়ির ভেতরে যাতে ডেঙ্গু মশার উৎস না থাকে সেদিকে সবাইকে সচেতন থাকার অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি। এদিকে করোনার মহামারীতে বিপর‌্যস্থ্য জনজীবনে ডেঙ্গু যাতে হানা দিতে না পারে সেজন্য নগরবাসির সহযোগিতা চেয়েছেন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। সিসিক মেয়র বলেন, কোনভাবেই বাসা-বাড়ির ছাদ, ফুলের টব, এসির জমানো পানি, নারিকেলের খোসা, টায়ার-টিউব কিংবা টিনের কৌটা, নির্মানাধিন ভবন, সরকারী বেসরকারী ভবনের ছাদ ইত্যাদি স্থানে পরিস্কার পানি যেন জমে না থাকে। কারণ এসব স্থান ডেঙ্গু মশার প্রজননের জন্য আদর্শ। এছাড়া ডেঙ্গু মশার উৎসের সন্ধ্যান পেলে তাৎক্ষনিক সিসিকের স্বাস্থ্য বিভাগে তথ্য প্রদানের আহবান জানান তিনি। এছাড়া ভ্রাম্যমান আদালত নগরের মেন্দিভাগ এলাকার ঈশিতা রেস্টুরেন্টে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার বিক্রির জন্য ভোক্তা অধিকার আইনে মামলা ও ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ