Inqilab Logo

সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০২ কার্তিক ১৪২৮, ১০ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

ইসরাইলি অবরোধের বিরুদ্ধে ফের ফুঁসে উঠেছে ফিলিস্তিনিরা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৭ আগস্ট, ২০২১, ১২:০৩ এএম

অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় ইসরাইলির বেড়ার কাছে জড়ো হয়ে বিক্ষোভ করেছে শত শত ফিলিস্তিনি। গাজার বিরুদ্ধে ইসরাইলি অবরোধ তুলে নিতে বিক্ষোভ জানাচ্ছে তারা। কয়েকদিন আগে এই অবরোধ বিরোধী বিক্ষোভের সময় ইসরাইলি সেনাবাহিনীর সাথে ফিলিস্তিনিদের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের পর আবারও রাস্তায় নেমে আসলো গাজাবাসী। খবর আল-জাজিরার। বুধবারের এই বিক্ষোভকে সামনে রেখে আগে থেকেই সেনার সংখ্যা বাড়িয়েছিল ইসরাইলি সেনাবাহিনী। তারা জানিয়েছে, দক্ষিণাঞ্চলীয় গাজায় বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে তারা কাঁদানে গ্যাস এবং তাজা বুলেট ব্যবহার করেছে। ফিলিস্তিনি স্বাস্থ্যকর্মীরা জানিয়েছেন, অন্তত নয়জন আহত হয়েছে। গাজার শাসক গোষ্ঠী হামাসের পরিচালিত আল আকসা টিভির ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, জনতা বেড়ার দিকে অগ্রসর হচ্ছে। কিছুক্ষণ পর ইসরাইলি সেনাবাহিনীর একটি গাড়ির আসার পর তারা সেখান থেকে পালিয়ে আসছে। এসময় বাতাসে কাঁদানে গ্যাস উড়তে দেখা যায়। ইসরাইলি সেনাবাহিনী জানিয়েছে, তারা পয়েন্ট ২২ ক্যালিবারের বন্দুক ব্যবহার করেছে। অন্যান্য শক্তিশালী অস্ত্রের চেয়ে এই অস্ত্র কম প্রাণঘাতী। কিন্তু ক্ষেত্রবিশেষে এটাও প্রাণঘাতী হয়ে উঠতে পারে। গাজায় আল জাজিরার ইয়োমনা এল সাইদ বলেছেন, গাজা উপত্যকার দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর খান ইউনুসে ওই বিক্ষোভে কয়েক ডজন কাঁদানে গ্যাসের ক্যানিস্টার ছোড়া হয়েছে। এল সাইদ বলেন, আজ ইতোমধ্যেই তিনজন ফিলিস্তিনি তাজা বুলেটের আঘাতে আহত হয়েছেন। আর তাদের দিকে ছোঁড়া কাঁদানে গ্যাসের ক্যানিস্টারের কারণে কয়েক ডজন বিক্ষোভকারীর দমবন্ধ হওয়ার উপক্রম হয়েছে। এর আগে শনিবার বিক্ষোভ করে কয়েকশ’ ফিলিস্তিনি। পরে সেটি সংহিস আকার ধারণ করে। গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, শনিবার ইসরাইলি বাহিনীর সাথে ওই সংঘর্ষে ৪০ জনের বেশি ফিলিস্তিনি আহত হয়। তাদের মধ্যে ১৩ বছর বয়সী এক কিশোরের মাথায় গুলিও লাগে বলে জানায় তারা। এছাড়া পায়ে গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হওয়া ৩২ বছর বয়সী ওসামা দুয়েজি নামের একজন বুধবার মারা গেছেন বলেও জানিয়েছে তারা। হামাস বলছে, ওসামা তাদের সশস্ত্র শাখার একজন সদস্য। তার মৃত্যুকে ‘নায়কোচিত শাহাদাত’ বলে বর্ণনা করেছে তারা। এদিকে একেবারে কাছ থেকে গুলিবিদ্ধ হওয়া একজন ইসরাইলি সৈন্য বুধবারও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ওই সৈন্যকে আহত করার পর রোববার হামাসের অস্ত্র স্থাপনায় বোমা হামলা চালিয়েছিল ইসরাইলি সেনাবাহিনী। আল-জাজিরা।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইসরাইলি


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ