Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৬ আশ্বিন ১৪২৫, ১০ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

সিরিয়া ইস্যুতে রাশিয়ার সঙ্গে আলোচনা স্থগিত যুক্তরাষ্ট্রের

প্লুটোনিয়াম ধ্বংসের চুক্তি স্থগিত করলেন পুতিন

প্রকাশের সময় : ৫ অক্টোবর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : প্রতিশ্রুতি রক্ষায় ব্যর্থতার অভিযোগ তুলে সিরিয়া নিয়ে রাশিয়ার সঙ্গে আলোচনা সাময়িকভাবে স্থগিত করেছে যুক্তরাষ্ট্র। গতকাল মঙ্গলবার বিবিসি অনলাইনের প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়। মস্কোর বিরুদ্ধে প্রতিশ্রুতি ভঙ্গের অভিযোগ তুলেছে ওয়াশিংটন। তারা বলছে, দুর্ভাগ্যজনক যে সিরিয়ায় যুদ্ধবিরতি চুক্তির বিষয়ে রাশিয়া যে অঙ্গীকার করেছিল, তা পালনে ব্যর্থ হয়েছে। সিরিয়ার শাসককে যেসব শর্ত মানাবে বলে রাশিয়া রাজি হয়েছিল, এ ব্যাপারে হয় তারা অনিচ্ছুক, নয় তো অসমর্থ।
ওদিকে, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে অস্ত্র তৈরির উপযোগী বাড়তি প্লুটোনিয়াম ধ্বংসের চুক্তি স্থগিত করেছে রাশিয়া। ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ সাংবাদিকদের বলেছেন, গত সোমবার একটি ডিক্রি সই করে ২০১০ সালের এ চুক্তি স্থগিত করার নির্দেশ দিয়েছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন। যাতে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্র চুক্তি বাস্তবায়ন করছে না এবং যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে রাশিয়ার সম্পর্কে সাম্প্রতিক উত্তেজনার কারণে চুক্তিটি স্থগিত করা হয়েছে। চুক্তিতে উভয় দেশ পরমাণু অস্ত্র তৈরির উপকরণ ধ্বংসের বিষয়ে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হয়েছিল।
স্নায়ুযুদ্ধের সময়ের দুই প্রতিদ্বন্দ্বী রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে সম্প্রতি আবার নতুন করে উত্তেজনা দেখা দিয়েছে, বিশেষ করে ইউক্রেইন ও সিরিয়ায় গৃহযুদ্ধ নিয়ে মুখোমুখি অবস্থান নিয়েছে বিশ্বের প্রভাবশালী এ দুই দেশ।
এদিকে, ওয়াশিংটনের অভিযোগ, রাশিয়া ও সিরিয়ার সরকার সিরীয় বেসামরিক লোকজনের ওপর হামলা জোরদার করেছে। এতে ব্যাপক হতাহতের ঘটনা ঘটছে। গত সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্র সতর্ক করে বলেছিল, সিরিয়ার আলোচিত আলেপ্পো শহরে রাশিয়া যদি বোমা হামলা বন্ধ না করে, তাহলে মস্কোর সঙ্গে আলোচনা সাময়িকভাবে স্থগিত করা হবে। এক বিবৃতিতে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র জন কারবি বলেন, রাশিয়ার সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় আলোচনায় অংশ গ্রহণ সাময়িকভাবে স্থগিত করছে যুক্তরাষ্ট্র। রাশিয়া তাদের অঙ্গীকার পূরণে ব্যর্থ হয়েছে। ওয়াশিংটনের সিদ্ধান্তকে দুঃখজনক বলেছে রাশিয়া। তাদের ভাষ্য, চুক্তির মূল শর্ত পূরণ করেনি ওয়াশিংটন। এখন তারা অন্যের ঘাড়ে দোষ চাপাচ্ছে। গতকাল সোমবার রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভøালাদিমির পুতিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে প্লুটোনিয়াম নিষ্ক্রিয়করণ চুক্তি স্থগিত করেন। এতে স্নায়ুযুদ্ধ যুগের দুই বৈরী দেশের সম্পর্কে অবনতির আভাস মেলে।
অন্যদিকে, রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০০০ সালে যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়া নিজেদের সং গ্রহে থাকা অস্ত্র তৈরি-উপযোগী উদ্বৃত্ত প্লুটোনিয়াম ধ্বংস করা নিয়ে প্রথম চুক্তি সই করে। তবে চুক্তিটি কার্যকর হয় ২০১০ সালে। সে বছর রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ ও যুক্তরাষ্ট্রের তৎকালীন পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিন্টন নতুন করে আবারও চুক্তি সই করেন। সেবার উভয় দেশ পরমাণু অস্ত্র তৈরি-উপযোগী ৩৪ টন প্লুটোনিয়াম ধ্বংসের অঙ্গীকার করে।
ক্রেমলিনের মুখপাত্র পেসকভ একটি কনফারেন্স কলে সাংবাদিকদের বলেছেন, দীর্ঘ দিন ধরে রাশিয়া একতরফাভাবে এই চুক্তি বাস্তবায়ন করে আসছে। এখন উভয় দেশের মধ্যে চলমান বৈরী সম্পর্ক বিবেচনায় নিয়ে রাশিয়ার পক্ষে এককভাবে এটি চালিয়ে নেওয়া অসম্ভব। বিবিসি, রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ