Inqilab Logo

বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৫ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

কলাপাড়ায় জমি লিখে না দেয়ায় শাশুড়িকে শারীরিক নির্যাতন

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি | প্রকাশের সময় : ২৯ আগস্ট, ২০২১, ৬:৪৯ পিএম

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় জামাই ইসমাইল'কে জমি লিখে না দেয়ায় শাশুড়ি সুফিয়া বেগম (৮০) কে মারধর করে জখম করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। আহত সুফিয়া বেগম পৌর শহরের বাদুরতলী এলাকার একুশে সড়কের মৃত মোসলেম খানের স্ত্রী। শুক্রবার দুপুর ১ টায় পৌর শহরের উপজেলার বাদুরতলী এলাকার একুশে সড়কে এ ঘটনাটি ঘটেছে। এ ঘটনায় আহত সুফিয়া বেগম ছেলে সোহরাব শনিবার কলাপাড়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ইসমাইল খাঁ শ্বশুরবাড়িতে জোর করে ঘর তুলে বসবাস করে আসছে। বিভিন্ন সময় ইসমাইলকে ঘর নিয়ে যাওয়ার জন্য বলা হলে সে যাচ্ছিল না। ওই ঘরের জমি নিজের নামে লিখে দিতে শাশুড়িকে বলে। এতে রাজি না হওয়ায় ঘটনা দিন ইসমাইল খাঁ ও তার ছেলে নাঈম এবং ফেরদৌস মিলে কিল, ঘুসি, চর, থাপ্পর দিয়ে বৃদ্ধ সুফিয়়া বেগমকে আহত করে। এ সময় সুফিয়়া বেগমকে বাঁচাতে এসে তার ছেলে সোহরাব (৩৪) ও ছেলের বউ শাহিদা (২০) কেও বেধরক মারধর করে আহত করে।

আহত সুফিয়া বেগমের ছেলে সোহরাব বলেন, ইসমাইল খাঁ আমার বড় বোনের জামাই। সে কলাপাড়া থানার কথিত সোর্স পরিচয় দিয়ে় মাদক ব্যবসার সাথে জড়িয়ে পড়েছে। কয়েক মাস আগে ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার হয়ে জেলহাজতে ছিল। জেল থেকে বেরিয়ে আরও বেপরোয়া হয়ে ওঠে। যার জন্য আমাদের বাড়ি থেকে তাকে যেতে বলা হয়। কিন্তু বাড়ির জমি নিজের দাবি করে এবং নিজের নামে লিখে দিতে বলে। এতে রাজি না হওয়ায় আমি সহ আমার মা ও স্ত্রী কে কিল, ঘুসি, চর, থাপ্পর মারে রক্তাক্ত করে।
বর্তমানে সুফিয়া বেগম কলাপাড়া হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এ ব্যাপারে কলাপাড়া থানার ওসি (তদন্ত) মো. আসাদুর রহমান জানান, অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: নির্যাতন


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ