Inqilab Logo

সোমবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২২, ০৩ মাঘ ১৪২৮, ১৩ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

দু’দলকেই ভাবাচ্ছে উইকেট

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩১ আগস্ট, ২০২১, ১২:০০ এএম

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে আগের সিরিজে মিরপুর শেরে-ই-বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামের উইকেট ছিল বড় আলোচনায়। টি-টোয়েন্টির ধরণের বিপরীত মিলেছিল অতি মন্থর ও টার্নিং উইকেট। যেখানে ১২০-১৩০ রান করাই ছিল বিরাট ব্যাপার। অস্ট্রেলিয়া পাঁচ ম্যাচ সিরিজের মধ্যে সর্বোচ্চ দলীয় স্কোর ছিল ১৩১। ১০৪ রানের পুঁজি নিয়েও বাংলাদেশকে লড়াই করতে দেখা গেছে। সহায়ক উইকেট পাওয়ায় অজিদের অনায়াসে ৪-১ ব্যবধানে হারায় মাহমুদউল্লাহর দল। এবার বাংলাদেশের সামনে আরও দুর্বল প্রতিপক্ষ। দ্বিতীয় সারির নিউজিল্যান্ড। ব্যাটসম্যানদের আত্মবিশ্বাস ফেরাতে এই সিরিজে অন্তত এর থেকে ভালো উইকেটের প্রত্যাশা বাংলাদেশের কোচ রাসেল ডমিঙ্গোর।
বিশ্বকাপ স্কোয়াডের কোন তারকাকে না নিয়েই বাংলাদেশে এসেছে কিউইরা। মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামের স্পোর্টিং উইকেটেও যাদের বিপক্ষে ভারি থাকবে বাংলাদেশের পাল্লা। আবহাওয়ার প্রতিকূলতা থাকলেও ডমিঙ্গো তাই আশায় আছেন আরেকটু ভালো বাইশ গজের, ‘দুর্ভাগ্যজনকভাবে আমি গ্রাউন্ডসম্যান নই। আমি কেবল ভালো উইকেট আশা করতে পারি। বছরের এই সময়টায় প্রচুর আর্দ্রতা থাকে এবং বৃষ্টি হয়, রোদের দেখা অনেক সময় পাওয়া যায় না। বছরের অন্য সময়ের মতো উইকেট পাওয়া এই সময়ে কঠিন। আমি আশা করছি ভালো উইকেট থাকবে। আমরা জানি ব্যাটসম্যানদের আত্মবিশ্বাস পাওয়াটা কত গুরুত্বপূর্ণ। আমরা এও বুঝি জেতার অভ্যাস কতটা আত্মবিশ্বাস দেয়। আমি ভালো উইকেট ধারণা করছি। মিরপুরের স্বাভাবিক উইকেট যেখানে ১৫০-১৬০ রান করা যাবে।
বাংলাদেশে খেলতে এসে মিরপুরের বাইশ গজের আচরণে রীতিমতো কাবু হয়ে গিয়েছিল অস্ট্রেলিয়া। তাদের প্রত্যাশার সঙ্গে বিস্তর ফারাক ছিল উইকেটের। নিউজিল্যান্ড সেই সিরিজটা দেখার পর নিজেদের করণীয় ঠিক করে রেখেছে। তবে অনুমিত মন্থর উইকেটের বদলে অন্যরকম কিছু হলেও অবাক হবে না কিউইরা উইকেটের আচরণ থেকে সব রকম চিন্তাই তাই তাদের মাথায়।
মিরপুর হোম অব ক্রিকেটের উইকেট এমনিতেই খুব ব্যাটিং বান্ধব না। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজ সেটা হয়ে উঠে একদম দুরূহ। ১২০ রান করাই ছিল বিশাল ব্যাপার। মন্থরতার সঙ্গে উঁচু নিচু বাউন্স মিলিয়ে টি-টোয়েন্টির একদম আদর্শ উইকেট ছিল না তা। উইকেটের এমন অবস্থা দেখে বাংলাদেশে আসার আগে মাউন্ড মাঙ্গুনুইতে স্পিন সারফেস বানিয়ে প্রস্তুতি নিয়েছে নিউজিল্যান্ড। বাংলাদেশে এসেও তাদের মাথায় ঘুরপাক খাচ্ছে তা। তবে সবাইকে অবাক করে দিয়ে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে মিরপুরের উইকেটের আচরণ ভিন্নরকমও দেখা যেতে পারে।
বাংলাদেশ সফরে দায়িত্ব থাকা কিউই কোচ গ্লেন পকন্যাল তাই ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে জানালেন সব রকমের হিসাব ঘুরছে তাদের মাথায়, ‘এটা বেশ কঠিন (ধারণা করা)। আমাদের একটা উপলব্ধি আছে যে উইকেটের চেহারা দেখে এবং অস্ট্রেলিয়া সিরিজ মাথায় রেখে তারা খেলবে। কিন্তু ইতিহাস পরামর্শ দেয় উইকেট একদম ভিন্নরকমও হতে পারে। আমরা দুই ধরণের আচরণের জন্যই প্রস্তুতি নিয়ে এসেছি। অস্ট্রেলিয়া সিরিজের মতো মন্থর উইকেটের প্রস্তুতিই আমাদের মূলত থাকছে। আমরা আসলে এরকম উইকেটে খেলতে অভ্যস্ত না। কিন্তু এখানে যদি কিছু পেস-বাউন্স দেখা যায়, তখন আমরা বেশ খুশি হবো।’
১ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হওয়া সিরিজে কেমন উইকেট মিলবে, তা বলে দিবে সময়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: উইকেট

১৬ জানুয়ারি, ২০২২
১৮ অক্টোবর, ২০২১
১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ