Inqilab Logo

বুধবার, ১৮ মে ২০২২, ০৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

কলাপাড়ায় ১৫ মামলার আসামি গ্রেফতার

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ৩১ আগস্ট, ২০২১, ১২:০০ এএম

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় গণধর্ষণসহ ১৫ মামলার আসামি শাহআলম হাওলাদার ওরফে জংলা শাহআলমকে গত রোববার রাতে মহিপুর থানা পুলিশ গ্রেফতার করেছে। নৌদস্যুতা, হাইজ্যাক, গবাদিপশু লুট, চুরি, ট্রলারে হামলা, গাছ কাটা, চাঁদাবাজি, গণধর্ষণসহ এমন গুরুতর অভিযোগে অভিযুক্ত শাহআলম হাওলাদারের নামও বদলে গেছে। এখন জংলা (বনে থাকে) শাহআলম না বললে কেউ চেনে না। এর আগে শাহআলমকে ধরতে একাধিকবার অভিযান চালিয়ে ব্যর্থ হয় পুলিশ। আটককৃত জংলা শাহআলম উপজেলার লতাচাপলী ইউপির পশ্চিম খাজুরা গ্রামের মৃত লেহাজ উদ্দিনের ছেলে।

কুয়াকাটা সৈকতের পশ্চিমে শেষপ্রান্ত লেম্বুরচর, খাজুরা এলাকার মানুষের কাছে জংলা শাহআলম এখন এক আতঙ্কের নাম। ওখানকার জেলে, শুটকি ব্যবসায়ী, ফ্রাই মাছ ব্যবসায়ী, সাধারণ মানুষের কাছে নামটি মুর্তিমান আতঙ্ক। অন্তত ৪২ বছর বেড়িবাঁধের বাইরে খাজুরা ম্যানগ্রোভ প্রজাতির বনের (জঙ্গল) মধ্যে বসবাস তার। মানুষের গরু চুরি করে জবাই করে চামড়া খুলে মাংস বিক্রি করা। ট্রলার লুট করে ইঞ্জিন খুলে বিক্রি করা। মাছ লুট করা। হামলা করে কাঁকড়া-মাছ বিক্রি করা দোকানে। বছরের পর বছর এসব করে যাচ্ছে। এ চক্রে নিজের ছেলেসহ রয়েছে আরও ২০-২২ সদস্য। মহিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মনিরুজ্জামান জানান, ধর্ষণ, ডাকাতি, গরু চুরিসহ অন্তত ১৫টি মামলা রয়েছে শাহআলমের বিরুদ্ধে। মূলত এ অভিযুক্ত ব্যক্তি জঙ্গলেই লুকিয়ে বসবাস করতো। গতকাল রাতে জঙ্গলের মধ্যে থেকেই শাহআলমকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে আদালতে সোপর্দ করা হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আসামি গ্রেফতার

২৭ জানুয়ারি, ২০২২
১৫ জানুয়ারি, ২০২২

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ