Inqilab Logo

বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১১ কার্তিক ১৪২৮, ১৯ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

বিনিয়োগ-তথ্য প্রতি মাসে চায় কেন্দ্রীয় ব্যাংক

পুঁজিবাজারের বিশেষ তহবিল

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩১ আগস্ট, ২০২১, ৮:১৮ পিএম

পুঁজিবাজারে স্থি‌তিশীলতা এবং তারল্য সঙ্কট কাটা‌তে ব্যাংকগুলোর গঠিত বিশেষ তহবিলের বিনিয়োগ তথ্য প্রতি মাসে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) বাংলাদেশ ব্যাংকের ডিপার্টমেন্ট অব অফ-সাইট সুপারভিশন এ সংক্রান্ত একটি নির্দেশনা জারি করে সব তফসিলি ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহীর কাছে পাঠিয়েছে।

নির্দেশনা অনুযায়ী, এখন থেকে তহবিল সংক্রান্ত সব তথ্য নির্ধারিত ছকে প্রতি মাসের ৫ তারিখের মধ্যে আগের মাসের প্রতিবেদন পাঠাতে হবে। বিশেষ তহবিলের বিনিয়োগ তথ্য এতদিন ত্রৈমাসিক ভিত্তিতে বিবরণী দাখিলের নিয়ম ছিল। যা প্রতি তিন মাস শেষে পরবর্তী মাসের ১৫ তারিখের মধ্যে এ বিবরণী জমা দিতে হতো। পূর্বের জারি করা এ সংক্রান্ত সার্কুলারের অন্যান্য শর্ত ও নির্দেশনা অপরিবর্তিত থাকবে বলে নতুন নির্দেশনায় বলা হয়েছে।

এর আগে পুঁজিবাজারে তারল্য সংকট কাটাতে বিশেষ তহবিল গঠনের জন্য গত বছরের ফেব্রæয়ারিতে এক নির্দেশনা জারি করে বাংলাদেশ ব্যাংক। তাতে বলা হয়, এখন থেকে যে কোনো ব্যাংক তার নির্ধারিত সীমার বাইরেও পুঁজিবাজারে বিনিয়োগের জন্য ২০০ কোটি টাকার ‘বিশেষ তহবিল’ গঠন করতে পারবে। অর্থাৎ একটি ব্যাংক তাদের মোট মূলধনের ২৫ শতাংশের বেশি শেয়ার ধারণ করতে পারবে না। আর এ ২০০ কোটি টাকা ওই ২৫ শতাংশের আওতামুক্ত থাকবে। ব্যাংকগুলো ইচ্ছে করলে তাদের নিজস্ব উৎস থেকে তহবিল গঠন করতে পারে। আবার তাদের হাতে থাকা ট্রেজারি বিল ও বন্ড বন্ধক রেখে বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে কম সুদে ধারও নিতে পারবে।

গত ৫ আগস্ট পর্যন্ত ৩৫টি বাণিজ্যিক ব্যাংক এ তহবিল গঠন করেছে। অংকে যার পরিমাণ ৩ হাজার ৬৮৫ কোটি টাকা। তবে এর পুরোটা এখনও বিনিয়োগ করা হয়নি। এর মধ্যে শেয়ার কেনা হয়েছে ১ হাজার ৭৩৭ কোটি টাকার। ব্যাংকগুলোর কাছে এখন আছে ১ হাজার ৯৮৪ কোটি টাকা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কেন্দ্রীয় ব্যাংক


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ