Inqilab Logo

রোববার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০১ কার্তিক ১৪২৮, ০৯ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

বারবার পদ্মা সেতুতে ধাক্কা লাগায় আমরা উদ্বিগ্ন

সাংবাদিকদের ওবায়দুল কাদের

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:০১ এএম

পদ্মা সেতুর স্প্যানের সঙ্গে ‘বীরশ্রেষ্ঠ জাহাঙ্গীর ফেরি’র ধাক্কা লাগলেও এর আঘাতের কোনও ইমপ্যাক্ট (প্রভাব) খুঁজে পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেছেন, পদ্মা সেতু বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় একটি প্রকল্প। এ প্রকল্প বাস্তবায়ন প্রক্রিয়া খুবই চ্যালেঞ্জিং ছিল। চলতি বছরের অক্টোবরে সেতুতে পিচ ঢালাই হবে। ইতোমধ্যে স্ল্যাব বসানোর কাজ সম্পন্ন হয়েছে।

তিনি বলেন, এর মধ্যে কতগুলো ঘটনা ঘটেছে (পঞ্চমবাবের মতো), যা মানুষের মনে প্রশ্ন সৃষ্টি করেছে। আমরা উদ্বিগ্ন যে, এখানে বারবার কেন ধাক্কা লাগে। গতকাল যে বিষয়টি এসেছে সেখানে একটি টেলিভিশনে প্রচারিত ভিডিওতে দেখা গেছে, সেতুর স্প্যানের সঙ্গে বীরশ্রেষ্ঠ জাহাঙ্গীর ফেরির ধাক্কা লেগেছে। এ খবর পাওয়া পর নিজে মাওয়া ছুটে আসি। বিআইডব্লিউটিএ, বিআইডব্লিউটিসি, সেনাবাহিনীসহ সংশ্লিষ্টরা যৌথভাবে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে স্প্যানে কোনও আঘাতের ইমপ্যাক্ট খুঁজে পাননি। আমি এটা বলতে পারি, এখানে কোনও ড্যামেজ পাইনি।
পদ্মা সেতু পরিদর্শনে এসে গতকাল মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ের মাওয়া প্রান্তে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি। মন্ত্রী বলেন, পানির লেভেল থেকে স্প্যানের উচ্চতা ১৮.৩ মিটার। গ্লোবাল ওয়ার্মিংয়ের হিসাব বিবেচনা করে ০.৫ মিটার বেশি রেখে উচ্চতা ১৮.৮ মিটার রাখা হয়েছে। এই ১৮.৮ মিটার ধরা হয়েছে যখন পানির স্তর সর্বোচ্চ ৭.৫ মিটার হবে। বর্তমানে নদীতে পানির উচ্চতা আছে ছয় মিটার। এখানে বাস্তবে দৃশ্যমান কিছু পাওয়া যায়নি। সরেজমিনে দেখা যায়নি আঘাতের চিহ্ন। যেহেতু টেলিভিশনে ভিডিও নিউজ প্রচার হয়েছে এর জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশনা দিচ্ছি। পূর্ণাঙ্গ তদন্ত হবে। সেতু বিভাগ, বিআইডব্লিউটিএ, বিআইডব্লিউটিসি, সেনাবাহিনীসহ সংশ্লিষ্টরা যৌথভাবে তদন্ত করবে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ২০০১ সালে তৎকালীন সরকার বিআইডব্লিউটিএর চেয়ারম্যান হিসেবে একজন অযোগ্য লোককে নিয়োগ দেয়। তখন এ নিয়ে মিডিয়ায় অনেক সমালোচনা হয়। এই চেয়ারম্যানকে নিয়ে তখনকার সময় একটা গ্রুপ জাহাজ ও ফেরি ব্যবসায় সিন্ডিকেট নিয়ন্ত্রণ করতো। সেই লোকেরা এখন এখানে বিভিন্ন কাজের সাথে জড়িত। সে জন্য অবশ্যই তদন্ত করা হবে, কোন ষড়যন্ত্র আছে কিনা? এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, পদ্মা সেতুর প্রকল্প পরিচালক শফিকুল ইসলামসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পদ্মা সেতুর


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ