Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২ আশ্বিন ১৪২৬, ১৭ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।
শিরোনাম

বাগেরহাটে সংখ্যালঘুু পরিবারকে উচ্ছেদ করতে সাতশ’ গাছ কেটে ফেলেছে ভূমিদস্যুরা

প্রকাশের সময় : ৬ অক্টোবর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

বাগেরহাট জেলা সংবাদদাতা : বাগেরহাট সদর উপজেলার খানপুর ইউনিয়নের পালপাড়া গ্রামের একটি হিন্দু পরিবারকে উচ্ছেদ করে জমি দখলের চেষ্টা চালিয়েছে ভূমি দস্যুরা। ভূমি দস্যুরা ঐ হিন্দু পরিবারের ফলজ, বনজ ও ঔষধিসহ  বিভিন্ন প্রজাতির প্রায় সাতশ’ গাছ কেটে ফেলেছে। এ ঘটনায় বাগেরহাট মডেল থানায় অভিযোগ দায়ের করার পরও প্রতিকার পায়নি ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারটি। গতকাল বাগেরহাট প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেন ক্ষতিগ্রস্ত সাবেক শিক্ষক রবীন্দ্রনাথ পাল। অভিযোগে বলা হয়, বরীন্দ্রনাথ পালের বাড়ির পাশে শেখ নাহিদুজ্জামান রাজু নামে এক ব্যক্তি বৃদ্ধাশ্রম করতে স্থাপনা নির্মাণ শুরু করে। এই সুযোগে পাশের জমি কেনার প্রস্তাব দেয়। এই প্রস্তাবে সাড়া না দেয়ায় তারা জমি দখল করতে বিভিন্ন রকমের পাঁয়তারা চালায় এবং নানাভাবে ভয় ভীতি প্রদর্শন করে। একপর্যায়ে গত শুক্রবার সকালে স্থানীয় ইউপি সদস্যের সহযোগিতায় নাহিদুজ্জামানের ভাড়াটিয়া প্রায় ৫০-৬০ জন সন্ত্রাসী দা, কুড়াল নিয়ে গাছপালা কাটতে শুরু করে। এ সময় ঐ বাড়িতে পুরুষ লোক না থাকায় নারীরা বাধা দিলে তাদের উপর চড়াও হয় এবং অস্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ করে। সন্ত্রাসীরা ঐ হিন্দু পরিবারটির ফলজ, বনজ ও ঔষধিসহ  বিভিন্ন প্রজাতির প্রায় সাতশ’ গাছ কেটে ফেলে। বিষয়টি লিখিতভাবে বাগেরহাট মডেল থানায় জানানো হলেও এখনও পর্যন্ত এ ঘটনায় জড়িত কাউকে পুলিশ গ্রেপ্তার করছে না বলে সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়। বাগেরহাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান বলেন, গাছ কর্তনের বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত শেষে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ