Inqilab Logo

শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ৩১ আশ্বিন ১৪২৮, ০৮ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

গুরুত্বপূর্ণ ৫ কি.মি. শুধুই খানাখন্দক

সান্তাহার-তিলকপু-জয়পুরহাট সড়ক

মো. মনসুর আলী, আদমদীঘি (বগুড়া) থেকে : | প্রকাশের সময় : ৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:০১ এএম

বগুড়ার সান্তাহার থেকে তিলকপুর হয়ে জয়পুরহাট গুরুত্বপূর্ণ সড়কের ৫ কিলোমিটার মরণফাঁদ। দীর্ঘদিন ধরে সংস্কার না করায় সৃষ্টি হয়েছে অসংখ্য ছোটবড় গর্ত। আর বৃষ্টিতে দিন দিন এসব গর্ত বড় থেকে বড় হচ্ছে। মারাত্মক ঝুঁকি নিয়ে যানবাহন চলাচল করছে।

সান্তাহার-নওগাঁ সড়ক থেকে বগুড়া জেলার শেষ এবং জয়পুরহাট সীমানা পর্যন্ত প্রায় ৫ কিলোমিটার সড়কের অনেক স্থানে কার্পেটিং উঠে গেছে। গর্তের ফলে যানবাহন চলাচল করছে একেবারে মন্থর গতিতে। সে সঙ্গে পথচারীদের চলাচলে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।
সান্তাহার পৌরসভার সামনে থেকে হবির মোড় চারমাথা পর্যন্ত এক কিলোমিটার সড়কের পুরো অংশের কার্পেটিং উঠে গেছে। বৃষ্টিতে পানি জমে গর্তগুলো বড় হওয়ায় মাত্র ১০ মিনিটের দূরত্ব অতিক্রমে সময় লাগে এক ঘণ্টার বেশি। এছাড়াও হবির মোড় থেকে তিলকপুর পর্যন্ত ৪ কিলোমিটার সড়কের ছাতিয়ানগ্রামের বাগবাড়ী দক্ষিণ পাশে সড়কের মাঝখানে বড় বড় গর্ত সৃষ্টি হওয়ায় যানবাহন মারাত্বক ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে।
ছাতিয়ানগ্রাম, তিলকপুর, জাফরপুর, আক্কেলপুর, জামালগঞ্জ, ও জয়পুরহাট এলাকার মানুষের যোগাযোগের একমাত্র পথ হচ্ছে এই সড়ক। লোকজনের চলাচলের পাশাপাশি এই সড়ক ব্যবহার করে এলাকার উৎপাদিত কৃষিপণ্য এবং সব ধরনের সবজি রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ট্রাকে পরিবহন করা হয়।
স্থানীয় কৃষক ও ব্যবসায়ীরা জানান, সড়কের কারনে দিন দিন ক্ষতির অঙ্ক বেড়েই চলেছে। দ্রুত সড়কটি সংস্কার করা না হলে কৃষিপণ্য নষ্ট হওয়ার পাশাপাশি আর্থিক ক্ষতি কাটিয়ে উঠা কঠিন হয়ে পড়বে। সড়কটি দ্রুত সংস্কার করে চলাচলের উপযোগী করার জন্য স্থানীয়রা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সান্তাহার-তিলকপু-জয়পুরহাট সড়ক
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ